সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
হ্যাকনি সাউথ ও শর্ডিচ আসনে এমপি প্রার্থী শাহেদ হোসাইন  » «   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকে’র সাথে ঢাবি ভিসি প্রফেসর ড. এএসএম মাকসুদ কামালের মতবিনিময়  » «   মানুষের মৃত্যূ -পূর্ববর্তী শেষ দিনগুলোর প্রস্তুতি যেমন হওয়া উচিত  » «   ব্যারিস্টার সায়েফ উদ্দিন খালেদ টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নতুন স্পীকার নির্বাচিত  » «   কানাডায় সিলেটের  কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলমকে সংবর্ধনা ও আশার আলো  » «   টাওয়ার হ্যামলেটসের নতুন লেজার সার্ভিস ‘বি ওয়েল’ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন মেয়র লুৎফুর রহমান  » «   প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী এমপির সাথে বিসিএর মতবিনিময়  » «   সৈয়দ আফসার উদ্দিন এমবিই‘র ইন্তেকাল  » «   ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিয়ানীবাজারে পথচারী ও রোগীদের মধ্যে ইফতার উপহার  » «   ইস্টহ্যান্ডসের রামাদান ফুড প্যাক ডেলিভারী সম্পন্ন  » «   বিসিএ রেস্টুরেন্ট কর্মীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এনএইচএস এর ‘টকিং থেরাপিস’ সার্ভিস ক্যাম্পেইন করবে  » «   গ্রেটার বড়লেখা এসোশিয়েশন ইউকে নতুন প্রজন্মদের নিয়ে কাজ করবে  » «   স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বিয়ানীবাজার প্রেসক্লাবের দোয়া ও ইফতার মাহফিল  » «   কানাডা যাত্রায়  ইমিগ্রেশন বিড়ম্বনা এড়াতে সচেতন হোন  » «   ব্রিটিশ রাজবধূ কেট মিডলটন ক্যানসারে আক্রান্ত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

হবিগঞ্জ জেলার ১৮ জন অবসরপ্রাপ্ত গুণী শিক্ষক পেলেন টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা-২০২৩



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

শ্রদ্ধা, ফুলেল ভালোবাসা  ও তাঁদের  কর্মজীবনের তথ্যচিত্র  প্রদর্শন ও সংরক্ষণের মাধ্যমে হবিগঞ্জ জেলার ১৮ জন অবসরপ্রাপ্ত গুণী শিক্ষককে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রদান করা হয়েছে  টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা-২০২৩। এরমধ্যে ৫ জনকে দেওয়া হয়-  টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা -২০২৩। বাকী ১৩ জন আদর্শ শিক্ষককে দেয়া হয়েছে টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন বিশেষ  সম্মাননা- ২০২৩।

সম্মাননাপ্রাপ্ত ১৮শিক্ষক ও তাঁদের পরিবারের হাতে বায়োগ্রাফি তুলে দেওয়া হয়। এছাড়া সম্মাননাপ্রাপ্ত প্রত্যেক শিক্ষককে আর্থিক উপহার  দেওয়া হয়েছে।

১৭ অক্টোবর, মঙ্গলবার হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে জমকালো অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো: আবু জাহির।

বিশেষ অতিথি  ছিলেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আতাউর রহমান সেলিম, হবিগঞ্জ জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো: রুহুল্লাহ, টি আলী স্যার ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ সমন্বয়ক, সিলেট বিভাগ বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কবির খান।

প্রধান অতিথি  অ্যাডভোকেট মো: আবু জাহির এমপি বলেছেন- স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষকদেরকে স্মার্ট হতে হবে। স্মার্ট শিক্ষকদের মাধ্যমে আমাদের আগামী প্রজন্ম ছাত্র-ছাত্রীদেরকে স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ৬ষ্ঠ শ্রেণী থেকে ৭ম শ্রেণী পর্যন্ত কারিকুলাম পরিবর্তন করেছে। শিক্ষার্থীরা স্কুলে বসে শিখবে, লেখাপড়া করবে এবং আয় করবে। স্কুল থেকেই তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে বিদেশ থেকে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করবে।

তিনি বলেন- হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক টি আলী স্যার ছিলেন একজন আদর্শ শিক্ষক। তাঁর প্রতি সম্মান জানাতে সরকার হবিগঞ্জ পৌরসভার মাধ্যমে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের সড়কটি –‘টি আলী স্যার সড়ক’ নামে নামকরণ করেছে।

এমপি আবু জাহির বলেন, অসহায়, আর্থিক সঙ্কটে থাকা শিক্ষকদের বাছাই করে তাদেরকে সম্মানিত করছে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক চ্যারিটি সংস্থা ‘টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন’। প্রবাসে থেকে দেশের শিক্ষকদের জন্য এমন কাজ অত্যন্ত গৌরবের। অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের জীবদ্দশায় সহযোগিতা ও তাদের কাজের স্বীকৃতি দেওয়া হলে শিক্ষকরা এই পেশায় আসতে অনুপ্রাণীত হবেন।

বিশেষ অতিথিবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন শিক্ষক- শিক্ষার্থীদের মধ্যে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার বন্ধনকে শুধু অটুট রাখতে কাজ করছে না। এটির মাধ্যমে সমাজে  শিক্ষকদের সম্মানের চর্চার  নানা দিক তুলে ধরে অসংখ্য শিক্ষার্থীদের আলোর পথে হাটার অনুপ্রেরণা দিচ্ছে।

অবসরপ্রাপ্ত  শিক্ষকদের সম্মান এবং তাদের পাশে থাকার প্রত্যয়ে কাজ করা সংগঠনটির ভূয়সী প্রসংশা করে বিশেষ অতিথিবৃন্দ বলেন- এধরণের উদ্যোগ সমাজে যতবেশী চর্চা হবে সমাজ ততো আলোকিত হবে।

টি আলী স্যারের ছাত্র, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক হবিগঞ্জের মুখ পত্রিকার সম্পাদক হারুনুর রশিদ চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠান সভাপতিত্ব করেন হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ আলফাজ উদ্দিন।

ফাউন্ডেশন  এর বাংলাদেশ সমন্বয়ক সিলেট বিভাগ বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কবির খান ফাউন্ডেশন গঠনের প্রেক্ষাপট উল্লেখ করে বলেন, ফাউন্ডেশনের অন্যতম কাজ হচ্ছে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের শারিরীক সুস্থতার খোঁজখবর, সহযোগিতা এবং সামাজিকভাবে তাদেরকে সৃজনশীল সময় দেয়া ইত্যাদি বিষয়গুলো শিক্ষার্থীদের মাঝে  ছড়িয়ে দেয়া। যাতে করে আমৃত্যু শিক্ষকরা সম্মানের সাথে জীবন যাপন করতে পারেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অ্যাডভোকেট মনসুর উদ্দিন আহমেদ ইকবাল, হবিগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল তালুকদার, সাবেক পৌর কমিশনার আব্দুল মোতালিব মমরাজ।

টি আলী স্যারের স্মৃতিচারণ করে তাঁরা বলেন, সমাজকে আলোকিত করতে একজন গুণী শিক্ষকের বিকল্প নেই। তজম্মুল আলী স্যার ছিলেন এমনই একজন মানুষ গড়ার আদর্শ কারিগর। গুণী এই শিক্ষকের  ছাত্র হতে পেরে আমরা গর্বিত।

সংবর্ধিত শিক্ষকবৃন্দকে অভ্যর্থনা জানান, হবিগঞ্জ হাই স্কুল এন্ড কলেজের সিনিয়র শিক্ষক শিউলী রানী দাশ ও সিনিয়র শিক্ষক তাহমিনা বেগম।

অনুষ্ঠানে শিক্ষকদের বর্ণাঢ্য জীবনের তথ্যচিত্র  প্রদর্শন করা হয়। এই সময় অনেক শিক্ষক তাদের আবেগ ধরে রাখতে পারেননি, নিজের অজান্তেই চোখে পানি চলে আসে। অবসরপ্রাপ্ত প্রবীন শিক্ষকদের পাশে থাকা স্বজনরাও আবেগ আপ্লুত হয়ে   গর্ববোধ প্রকাশ করেন। পরে সম্মাননাপ্রাপ্ত ১৮শিক্ষক ও তাদের পরিবারের হাতে বায়োগ্রাফি তুলে দেওয়া হয়।

সম্মাননাপ্রাপ্ত শিক্ষকরা হলেন- হবিগঞ্জ সদর উপজেলায় মো. আব্দুর রহমান, মো. জবেদ আলী, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় মো. আব্দুল খালেক, মহেশ্বর দাস, বানিয়াচং উপজেলায় রামেন্দ্র সুন্দর ভট্টাচার্য্য, মো. আমীর হোসেন মাস্টার, মাধবপুর উপজেলায় আব্দুন নূর, মো. সিরাজুল ইসলাম, নবীগঞ্জ উপজেলায় নিজামুল ইসলাম, মৌলভী মো. মহিউদ্দিন, চুনারুঘাট উপজেলায় রইছ উল্লাহ, মো. আব্দুল মতিন, বাহুবল উপজেলায় মো. আরজু মিয়া, উজ্জ্বল কুমার ভট্টাচার্য্য, লাখাই উপজেলায় সালাহ উদ্দিন আহমেদ ভূঞা, মো. আছগর আলী, আজমিরীগঞ্জ উপজেলায় আবু সালেহ শাহ, মো. আবুল খায়ের পাটোওয়ারী।

তজম্মুল আলী একজন মানুষ গড়ার কারিগর। ভালোবেসে তাঁর অগণিত ছাত্র-ছাত্রীরা নাম রাখেন টি আলী স্যার। টি আলী স্যার সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার বৃহত্তর জলঢুপে জন্মগ্রহন করেন। তিনি ১৯৪৭ সাল থেকে ১৯৭৮ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ৩১ বছর হবিগঞ্জ সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। একই স্কুলে শিক্ষকতার পাশাপাশি হোস্টেল সুপারের মত গুরু দায়িত্বও পালন করেন ২৮ বৎসর। ২০১৯ সালে সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার কৃতি সন্তান এই শিক্ষকের নামে প্রতিষ্ঠিত হয় যুক্তরাজ্য ভিত্তিক চ্যারিটি সংস্থা- টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন।

মূলত অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সম্মাননা ও আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া শিক্ষকদের সহযোগিতার উদ্দেশ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় ফাউন্ডেশনটি। আদর্শবান শিক্ষক, আর্থিক দিক দিয়ে পিছিয়ে থাকা শিক্ষকদের সন্ধান অথবা  অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক যাদের খোঁজ খবর অনেকে রাখেন না তাদেরকে খোঁজে কাজের স্বীকৃতি প্রদান করে।

প্রসঙ্গত টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন ২০২০ সালে সিলেট বিভাগে আদর্শ শিক্ষকদের নিয়ে কাজ শুরু করে। ফাউন্ডেশনটি আদর্শ শিক্ষকদের সম্মাননা পদকে মনোনয়নে একটি বোর্ড গঠন করে। এই মনোনয়ন বোর্ডের প্রধান হলেন- টি আলী স্যার ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ সমন্বয়ক, সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সিলেট বিভাগ বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি কবির খান।

হবিগঞ্জ জেলার দায়িত্বে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ আলফাজ উদ্দিন হবিগঞ্জ জেলার প্রত্যেক উপজেলায় অবসরপ্রাপ্ত দুইজন আদর্শ শিক্ষককে সম্মাননা পদকে মনোনয়ন জরিপ করেন। এরই ধারাবাহিকতায় মনোনয়ন বোর্ড হবিগঞ্জ জেলার ৯ উপজেলার অবসরপ্রাপ্ত আদর্শ শিক্ষকের সম্মাননার স্বীকৃতি হিসেবে টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা পদক ২০২৩ সালের জন্য ১৮ জন মনোনয়নপ্রাপ্ত শিক্ষকদের নামের তালিকা প্রকাশ করে।

এছাড়া তাদের জীবন বৃত্তান্ত সংগ্রহের পর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের বর্ণাঢ্য জীবনী প্রকাশ করে। মনোনয়নপ্রাপ্ত শিক্ষকদের প্রত্যেকের ফ্রেমবন্দি জীবনী মঙ্গলবার তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

যুক্তরাজ্য থেকে পরিচালিত ফাউন্ডেশনটি  সিলেট বিভাগে ২০২২ সালে টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা পদক  প্রদান করেছে। এবং ধারাবাহিকভাবে মৌলভীবাজার ও সুনামগঞ্জ জেলায় গুণী শিক্ষকদের জীবিত অবস্থায় সম্মাননা প্রদানের জন্য কাজ করছে।

হবিগঞ্জ জেলার ১৮ জন অবসরপ্রাপ্ত গুণী শিক্ষক সম্মাননা  অনুষ্ঠানটি সফলভাবে সম্পন্ন করায় ফাউন্ডেশনের সভাপতি ফয়ছল আহমদ রুহেল এবং সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম অভি   ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশ টিম এবং  হবিগঞ্জ এর অনুষ্ঠান পরিচালনায় সাথে সম্পৃক্ত সকলকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছে বলেছে- সকলের সমন্বিত প্রচেষ্টায় টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা ২০২৩ অনুষ্ঠানটি সফল হয়েছে।

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন