শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনবাসী প্রবীণ মুরব্বী জমির উদ্দিন( টেনাই মিয়া)র ইন্তেকাল  » «   কবি সংগঠক ফারুক আহমেদ রনির পিতা মুমিন উদ্দীনের ইন্তেকাল  » «   একসেস ট্যু জাস্টিস নিশ্চিত করা আইনের শাসনের প্রধান স্তম্ভ  » «   বৃহত্তর সিলেট এডুকেশন ট্রাস্টের নির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে প্যালেষ্টাইনের জনগণের প্রতি উৎসর্গ করে লন্ডনে সমাবেশ  » «   এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন যুক্তরাজ্যে আসছেন  » «   হিলালপুর গ্রামে সড়ক বাতি উদ্বোধন  » «   বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকের কার্যকরী কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত  » «   পূর্ব মুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসিপরীক্ষার্থীদের মধ্যে পরীক্ষা উপকরণ বিতরণ  » «   গুচ্ছ কবিতা ।। আতাউর রহমান মিলাদ  » «   ব্রিটেনের রাজা চার্লস ক্যান্সারে আক্রান্ত  » «   গুচ্ছ কবিতা ।। আবু মকসুদ  » «   মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী : শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা  » «   ‘এখন হয়েছে উল্টো, পুরুষরা বাজারে এসে খাই, পরে পরিবারের জন্য কিনে নিয়ে যাই‘!  » «   বিশ্বনাথে ১৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেছে ব্যারিস্টার নাজির আহমদ ফাউন্ডেশন  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

বার্সেলোনায় কনস্যুলার সেবা প্রদান করেছে মাদ্রিদ দূতাবাস 
প্রতিমাসে দুইদিন সেবা কার্যক্রম পরিচালনার জোর দাবি



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

 

বার্সেলোনায় প্রবাসীদের নানা সমস্যা , দুর্ভোগে সহায়তা এবং সরকারের প্রবাসীবান্ধব সেবাগুলো প্রবাসীদের কাছে পৌছে দিতে বাংলাদেশ দূতাবাস মাদ্রিদ বার্সেলোনায় কনস্যুলার সেবা প্রদানের কার্যক্রম শুরু করে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে।
রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকারের নেতৃত্বে প্রতি দুইমাসে এই সেবা প্রদান করে আসলেও গত ছয় মাস থেকে কার্যক্রমটি দুই দিনের পরিবর্তে একদিনে কমিয়ে আনা হয়েছে ।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ৩০ মার্চ শনিবার বাংলাদেশ দূতাবাস মাদ্রিদ টীম বার্সেলোনার কাইয়ে উরখেল ১৪৫ নম্বর সেন্ট্রো সিবিক হলে এই দূতাবাস সেবা প্রদান করে।
সকাল ৯টা থেকে বার্সেলোনা সহ এর আশ-পাশের বিভিন্ন এলাকার প্রায় ১৫ শতাধিক প্রবাসী সেবা নিতে উপস্থিত হোন। লোকজন বেশী হওয়াতে একদিনের জন্য সেবা দিতে আসা দুতাবাস টীমের নির্ধারিত সময় সন্ধা ৭টা পেরিয়ে । এসময় সেবা নিতে আসা প্রবাসীরা উত্তপ্ত হয়ে হলের ভেতরে ডুকে পড়েন এবং তাদের কাজ শেষ করে যাওয়ার জন্য জোর দাবী জানান। পরে প্রবাসীদের দাবীকে সম্মান জানিয়ে প্রথম শ্রম সচিব শফিফুল ইসলাম রাত ৯:০০ টা পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে উপস্থিত সকল প্রবাসীদের প্রয়োজনীয় কাজ সম্পন্ন করেন।

একদিনে প্রায় ১৫ শতাধিক মানুষের সেবা দিতে গিয়ে দূতাবাস টীমকে হীম সীম খেতে হয়েছে। এছাড়াও তাড়াহুড়ো ও অতিরিক্ত কাজের চাপের কারণে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্যে ভুল করা হয়েছে বলে অনেক অভিযোগ করেছেন সেবাগ্রহনকারী প্রবাসীরা।

সেবা প্রদান দিতে আসেন মাদ্রিদে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের ১ম শ্রম সচিব শরিফুল ইসলাম,অফিস সহকারী সাইফুল ইসলাম সহ মোট চারজন দূতাবাস কর্মকর্তা ।

মোট ১৬৪জন প্রবাসীদের মধ্যে পাসপোর্ট বিতরন সহ অন্যান্য সেবাসমুহ হচ্ছে নতুন আবেদনকারী এমআরপি’র এনরোলমেন্ট ,পাসপোর্ট রি-ইস্যু আবেদন গ্রহণ,৬ বছরের কমবয়সী বাচ্চাদের এমআরপি’র আবেদন গ্রহণ,মোবাইল ইউনিটের মাধ্যমে নতুন পাসপোর্টের আবেদনকারীর ছঁবি, ফিঙ্গার প্রিন্ট গ্রহণ,স্প্যানিশ পাসপোর্টধারী বাংলাদেশী নাগরিকদের নো-ভিসা আবেদন গ্রহণ,বিভিন্ন কাগজপত্র সত্যায়ন এবং প্রবাসীদের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট এর আবেদন গ্রহণ ইত্যাদি।
প্রায় ১৫ হাজার বাংলাদেশী অধ্যুষ্যিত বার্সেলোনায় প্রবাসীরা প্রতিমাসে অন্তত দুইদিন সেবা কার্যক্রম পরিচালনার জোর দাবি জানিয়েছেন।

 

 

কণ্ঠ: জিনাত শফিক


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন