মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
মানুষের মৃত্যূ -পূর্ববর্তী শেষ দিনগুলোর প্রস্তুতি যেমন হওয়া উচিত  » «   ব্যারিস্টার সায়েফ উদ্দিন খালেদ টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নতুন স্পীকার নির্বাচিত  » «   কানাডায় সিলেটের  কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলমকে সংবর্ধনা ও আশার আলো  » «   টাওয়ার হ্যামলেটসের নতুন লেজার সার্ভিস ‘বি ওয়েল’ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন মেয়র লুৎফুর রহমান  » «   প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী এমপির সাথে বিসিএর মতবিনিময়  » «   সৈয়দ আফসার উদ্দিন এমবিই‘র ইন্তেকাল  » «   ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিয়ানীবাজারে পথচারী ও রোগীদের মধ্যে ইফতার উপহার  » «   ইস্টহ্যান্ডসের রামাদান ফুড প্যাক ডেলিভারী সম্পন্ন  » «   বিসিএ রেস্টুরেন্ট কর্মীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এনএইচএস এর ‘টকিং থেরাপিস’ সার্ভিস ক্যাম্পেইন করবে  » «   গ্রেটার বড়লেখা এসোশিয়েশন ইউকে নতুন প্রজন্মদের নিয়ে কাজ করবে  » «   স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বিয়ানীবাজার প্রেসক্লাবের দোয়া ও ইফতার মাহফিল  » «   কানাডা যাত্রায়  ইমিগ্রেশন বিড়ম্বনা এড়াতে সচেতন হোন  » «   ব্রিটিশ রাজবধূ কেট মিডলটন ক্যানসারে আক্রান্ত  » «   যুদ্ধ বিধ্বস্ত গাজাবাসীদের সাহায্যার্থে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকের অনুদান  » «   বড়লেখায় পাহাড়ি রাস্তা সম্প্রসারণে বেরিয়ে এলো শিলাখণ্ড  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

আমিরাতে ‘ইন্টারন্যাশনাল ওমেন আইকন বাংলাদেশ’ ভূষিত হলেন তিশা সেন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন দেশের আলোকিত তরুণীদের সম্মাননা দিয়েছে আরব আমিরাতের ভারতীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন জানকজ। এবারের নারী দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘ ব্যালেন্স ফর ব্যাটার’ কে সামনে নিয়ে ‘ইন্টারন্যাশনাল ওমেন আইকন বাংলাদেশ’ সম্মাননা পেয়েছেন সংস্কৃতিকর্মী ও সাংবাদিক তিশা সেন।

শুক্রবার আরব আমিরাতের শারজাহের একটি বেসরকারি রূপচর্চা কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সম্মাননা তুলে দেন প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ ভারতীয় জনপ্রিয় অভিনেত্রী শারু ভারগেস। এ সময় অন্যান্য অতিথি ছিলেন মিস ইন্টারন্যাশনাল ২০১৯ ইশা ফারসা কোরিশ, লেখিকা হানি ভাসকারান, ফ্যাশন কোরিওগ্রাফার এঢভোকেট বীমা বেনজির। অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিলেন জানকজ এর কো ফাউন্ডার সৌম্য অরুণ নাইর, যিশা ভেনুগোপাল।

পুরো অনুষ্ঠানটিই ছিলো নারীকে ঘিরে। নারীরা অতিথি আয়োজকেরাও নারী। বাংলাদেশ, ভারত, ফিলিপিন, পাকিস্তান এই ৪ দেশের ৪ জন তরুণীকে স্ব স্ব ক্ষেত্রে নিজ দেশকে তুলে ধরার জন্য এ সময় এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

তিশা সেন ছোটবেলা থেকে মা বাবার সাথে আরব আমিরাতে বেড়ে ওঠেছেন। আজমানের ইন্ডিয়ান স্কুলে পড়াশোনা শেষ করে ২ বছর সে স্কুলেই শিক্ষকতা করেছেন। তিনি ৫২ বাংলা টিভির সংবাদপাঠিকা এবং স্টাফ করেসপন্ডেন্ট। এছাড়া সংহতি সাহিত্য পরিষদ আরব আমিরাত শাখার সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা তিশা একজন ক্লাসিকাল নৃত্যশিল্পী এবং মৌলিক চিত্রশিল্পী হিসেবেও কাজের স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। শিল্পকলার ষোলকলা জানা তিশার হাত আছে লেখালেখিতেও। নানামাত্রিক সম্ভাবনাময় তিশা তার এগিয়ে যাওয়াতে সকলের সহযোগিতা ও দোয়া চেয়েছেন।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার মেয়ে তিশা সেনের বাবা অনুপ সেন ও মা রূপশ্রী সেন তার এ প্রাপ্তিতে গর্বিত। এদিকে সংহতি আমিরাত এবং ৫২ বাংলা টিভি পরিবারসহ নানা সংগঠন ও ব্যক্তি তিশাকে পৃথক পৃথক অভিনন্দন জানিয়েছেন।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন