সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
 পরিচ্ছন্ন সিলেটের স্বপ্ন দেখছে প্রজেক্ট ‘ক্লীন সুরমা, গ্রীন সিলেট’  » «   বাংলাদেশের মুক্ত অর্থণেতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করবে আরব আমিরাত  » «   আজমানে স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্য ব্যবসায়িদের সাথে কনসাল জেনারেলের মতবিনিময়  » «   ডাকসুর কোষাধ্যক্ষ অপসারন ও ৩৪ জনের ছাত্রত্ব বাতিলের দাবীতে ভিপি’র চিঠি  » «   কাতালোনীয়ার স্বাধীনতার ডাকে লক্ষ লক্ষ জনতার সমাবেশ  » «   সুনির্দিষ্ট অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে: জয়  » «   সিলেটে বাম গণতান্ত্রিক জোটের জনসভা  » «   শীঘ্রই আমিরাতের আজমানে বাংলাদেশ স্কুল প্রতিষ্ঠা হচ্ছে  » «   সংহতি আমিরাতের শাহ আব্দুল করিম উৎসব  » «   লন্ডনে বিয়ানীবাজারের প্রবীন ব্যক্তিত্ব আবদুস সাত্তার স্মরণ সভা  » «   কৃুয়েত দূতাবাসের বিতর্কিত কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা  » «   মাদকেরও অভিযোগ : প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শোভন-রাব্বানীর দেখা করার অনুমতি স্থগিত  » «   নেপাল-চীনেও ডেঙ্গু : বিভিন্ন দেশ ভ্রমণে সতর্ক করেছে যুক্তরাষ্ট্র  » «   বিসিএ রেষ্টুরেন্ট অফ দ্যা ইয়ার ও বিসিএ শেফ অফ দ্যা ইয়ার এর প্রতিযোগিতা আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু  » «   রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বসবাসের কোনো চিহ্নই নেই  » «  

আমিরাতে ‘ইন্টারন্যাশনাল ওমেন আইকন বাংলাদেশ’ ভূষিত হলেন তিশা সেন



আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন দেশের আলোকিত তরুণীদের সম্মাননা দিয়েছে আরব আমিরাতের ভারতীয় সাংস্কৃতিক সংগঠন জানকজ। এবারের নারী দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘ ব্যালেন্স ফর ব্যাটার’ কে সামনে নিয়ে ‘ইন্টারন্যাশনাল ওমেন আইকন বাংলাদেশ’ সম্মাননা পেয়েছেন সংস্কৃতিকর্মী ও সাংবাদিক তিশা সেন।

শুক্রবার আরব আমিরাতের শারজাহের একটি বেসরকারি রূপচর্চা কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে এ সম্মাননা তুলে দেন প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ ভারতীয় জনপ্রিয় অভিনেত্রী শারু ভারগেস। এ সময় অন্যান্য অতিথি ছিলেন মিস ইন্টারন্যাশনাল ২০১৯ ইশা ফারসা কোরিশ, লেখিকা হানি ভাসকারান, ফ্যাশন কোরিওগ্রাফার এঢভোকেট বীমা বেনজির। অনুষ্ঠানের আয়োজক ছিলেন জানকজ এর কো ফাউন্ডার সৌম্য অরুণ নাইর, যিশা ভেনুগোপাল।

পুরো অনুষ্ঠানটিই ছিলো নারীকে ঘিরে। নারীরা অতিথি আয়োজকেরাও নারী। বাংলাদেশ, ভারত, ফিলিপিন, পাকিস্তান এই ৪ দেশের ৪ জন তরুণীকে স্ব স্ব ক্ষেত্রে নিজ দেশকে তুলে ধরার জন্য এ সময় এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

তিশা সেন ছোটবেলা থেকে মা বাবার সাথে আরব আমিরাতে বেড়ে ওঠেছেন। আজমানের ইন্ডিয়ান স্কুলে পড়াশোনা শেষ করে ২ বছর সে স্কুলেই শিক্ষকতা করেছেন। তিনি ৫২ বাংলা টিভির সংবাদপাঠিকা এবং স্টাফ করেসপন্ডেন্ট। এছাড়া সংহতি সাহিত্য পরিষদ আরব আমিরাত শাখার সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা তিশা একজন ক্লাসিকাল নৃত্যশিল্পী এবং মৌলিক চিত্রশিল্পী হিসেবেও কাজের স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। শিল্পকলার ষোলকলা জানা তিশার হাত আছে লেখালেখিতেও। নানামাত্রিক সম্ভাবনাময় তিশা তার এগিয়ে যাওয়াতে সকলের সহযোগিতা ও দোয়া চেয়েছেন।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার মেয়ে তিশা সেনের বাবা অনুপ সেন ও মা রূপশ্রী সেন তার এ প্রাপ্তিতে গর্বিত। এদিকে সংহতি আমিরাত এবং ৫২ বাংলা টিভি পরিবারসহ নানা সংগঠন ও ব্যক্তি তিশাকে পৃথক পৃথক অভিনন্দন জানিয়েছেন।