বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে স্পেনে দূতাবাসের বিশেষ আয়োজন  » «   পদ্মা সেতুর স্মারক নোট বাজারে আসবে রবিবার  » «   পদ্মা সেতুর জন্য অভিনন্দন বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির  » «   অদম্য বাংলাদেশ, খুলল পদ্মার দ্বার  » «   আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই: প্রধানমন্ত্রী  » «   রেমিটেন্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণে মাদ্রিদে মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে মায়ের কোল থেকে ভেসে গেল শিশু, ৫ জনের মৃত্যু  » «   লন্ডনে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ইউকের বিশ বছরপূর্তি উদযাপন  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


কিং সউদ বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিনশীপ এওয়ার্ড পেলেন দুই বাংলাদেশি



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সৌদি আরবের বিখ্যাত বিদ্যাপীঠ কিং সউদ বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিনশীপ এওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি দুই শিক্ষার্থী । ১৩ ফেব্রুয়ারি বুধবার বিশ্ববিদ্যায়ল ক্যাম্পাসে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ২০১৭-১৮ শিক্ষা বর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কলেজ সমূহে সর্বোচ্চ নম্বর প্রাপ্তদের ডিনশীপ এওয়ার্ড দেওয়া হয় । বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর ডক্টর বদরান আল ওমর ছাত্র ছাত্রীদের হাতে সার্টিফিকেট এবং প্রাইজমানি তুলে দেন।

ডিনশীপ এওয়ার্ড প্রাপ্ত বাংলাদেশি ছাত্ররা হলেন, কলেজ অব এডুকেশন হতে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের রহমত উল্লাহ এবং কলেজ অব আর্টস হতে ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের তামজীদ রহমান ।

রংপুর জেলার পীরগঞ্জের জাফর পাড়া গ্রামের আজহার আলীর কনিষ্ঠ সন্তান তামজীদ রহমান । নরসিংদী জেলার রায়পুরের শিবপুর গ্রামের আনোয়ারুল হকের কনিষ্ঠ সন্তান রহমত উল্লাহ ।

আরব বিশ্বের অন্যতম একটি সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ে সৌদি শিক্ষার্থী সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীদের-কে পিছনে ফেলে বাংলাদেশিদের এ সাফল্য গর্ব এবং আনন্দের ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেক ফেকাল্টি থেকে পাঁচ জন শিক্ষার্থী বাছাই করে মোট ১ শত ৮৪ জনকে এই এওয়ার্ড দেওয়া হয় । এদের মধ্যে ১ শত ১২জন ছাত্র এবং ৭২ জন ছাত্রী ।

বর্তমানে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ২য় সেমিস্টারে এই বিদ্যাপিঠে ত্রিশজন বাংলাদেশি ছাত্র অধ্যয়নরত আছেন । তারা, আরবি ভাষাতত্ব ইনস্টিটিউট, কলেজ অব এডুকেশন, কলেজ অব আর্টস, কলেজ অব ইন্জিনিয়ারিং, কলেজ অব সাইন্স ছাড়াও কলেজ অব ট্যুরিজম এন্ড আর্কিওলজিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ ডিগ্রী পিএইচডি, মাস্টার্স, স্নাতক, পোস্ট গ্রাজুয়েট, ডিপ্লোমা প্রোগ্রাম এবং আন্ডার গ্রাজুয়েটের অধ্যয়ন করছেন ।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন