শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


আমিরাতে আশাজাগানিয়া কাজ দিয়ে যাত্রা শুরু ‘শেকড়ের খোঁজে’ সংগঠনের



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাঙ্গালী সংস্কৃতির প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে যাত্রা শুরু হয়েছে ‘শেকড়ের খোঁজে’ নামের একটি সংগঠনের।  সম্প্রতি কাজী গুলশান আরা কে সভাপতি করে ২০ সদস্যের কার্যকরী পরিষদ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়াও উপদেষ্টা ড.  হাবিবুল খন্দকার, ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন, বাইজুন এন চৌধুরী ও আবুল বাশারকে উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য করা হয়েছে।

নব গঠিত সংগঠনের সভাপতি কাজী গুলশান আরা বলেন, ‘প্রবাসে যাদের বেড়ে ওঠা, তাদের একটা  উল্লেখযোগ্য অংশেরই সময়ের সাথে সাথে দেশীয় সংস্কৃতি থেকে বিশাল একটা দূরত্ব তৈরি হয়। সুপ্রাচীন কাল থেকেই আমাদের মাঝে যে প্রবল ইচ্ছা সব সময় বিদ্যমান থাকে, সেটা হল আমরা আমাদের সন্তানদেরকে বড় করব  আধুনিকতায় এবং সেই আধুনিকতায় বড় করতে গিয়ে আমরা ভুলে যাই আমাদের শেঁকড় কে,  সাহিত্য-সংস্কৃতি, ইতিহাস এবং  ঐতিহ্য কে। আমাদের নতুন প্রজন্মের বেশির ভাগই বাংলা পড়তে বা লিখতে পারেনা। আমরা রবীন্দ্রনাথকে চিনিনা, নজরুলকে চিনিনা  আর মধুসূদন জীবনানন্দ তো অনেক দূরের ব্যাপার। এভাবেই প্রজন্মের মাঝে হারিয়ে যায় কালজয়ী বোদ্ধারা এবং একই সাথে আমাদের ইতিহাস এবং ঐতিহ্য।’

তিনি বলেন, ‘শেকড়ের খোঁজে শুধুমাত্র নাচ, গান বা  আবৃতির কোন সংগঠন নয়। শেকড়ের খোঁজে যোগসূত্র তৈরি করবে বিশ্বের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাঙ্গালীদের মাঝে এবং বাঙালি সংস্কৃতিকে, ইতিহাসকে, সভ্যতা কে পৌঁছে দেবে এ প্রজন্মের দোরগোঁড়ায়। বাংলাকে ছড়িয়ে দেবে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে। শুধু তাই নয়, আমরা পাশে দাঁড়াবো প্রতিটি বাঙালির, যেখানেই যাদের প্রয়োজন।’

সংগঠনটি যাত্রা শুরু করেছে তাদের প্রজেক্ট – ‘প্রজেক্ট – পাঠশালা’ দিয়ে:

এই উদ্দ্যোগে তারা আবুধাবি বাংলা স্কুলের একটি বাচ্চার পুরো বছরের বেতন তুলে দিলেন  রাষ্ট্রদূতের হাত দিয়ে। সেখানে উপস্হিত ছিলেন সংগঠনটির উপদেষ্টা ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন। সহ-সভাপতি বেলায়েত হিরু, সহ-সাধারণ সম্পাদক এনামুল কবীর রবিন ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আশিক।

কার্যকরী পরিষদের অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি বেলায়াত হিরু, আনন্দিতা খান সুমি। সাধারণ সম্পাদক জাবেদ আহমদ মাছুন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-১ এনামুল করিম রবিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক-২ সামিদা চৌধুরী পপি, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন রেজা, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফা নুশরাত, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সৈয়দ আরিফ, যুগ্ম সাংস্কৃতিক সম্পাদক-১ লুৎফুর রশীদ রাসেল, যুগ্ম সাংস্কৃতিক সম্পাদক-২ আশিকুর রহমান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মাকসুদা খানম, যুগ্ম শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক -১ নাজনীন আক্তার, যুগ্ম শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক-২ আলা মোকাদ্দেস, প্রচার সম্পাদক, সামসদ্দিন ফারুক সুমন, দপ্তর সম্পাদক সারোয়ার জামান জাবেদ।

এসময়  রাষ্ট্রদূত  বলেন –  এমন সুন্দর অভিষেক অবশ্যই অত্যন্ত প্রশংসার দাবিদার। সংগঠনটি যেন এমন মহতী কাজে সবসময় জড়িয়ে থাকে এবং বাংলাদেশের ইতিহাসকে ও সংস্কৃতিকে প্রবাসের মাটিতে প্রবাসী সন্তানদের মাঝে সঠিকভাবে তুলে ধরে।

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন