শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
অসুস্থ চারখাই ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন মুরাদ চৌধুরীর আশু সুস্থতা কামনায় লন্ডনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   আলীনগর ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে‘র আত্নপ্রকাশ  » «   অমর একুশে বইমেলার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   তরুণদের উচ্চশিক্ষায় সহায়তা: মেয়র লুৎফুর রহমান এবার চালু করলেন ইউনির্ভাসিটি বার্সারি স্কিম  » «   ‘টি আলী স্যার’কে নিয়ে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে গানের চিত্রায়ণ  » «   বিবিসিজিএইচ এর বিয়ানীবাজারের মোল্লাপুর-এ বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান  » «   কবিকণ্ঠের সুবর্ণরেখায় শিক্ষাব্রতী শীর্ষক সুহৃদ আড্ডায় বক্তারা- অগণন প্রাণে আলো জ্বেলেছেন মো. শওকত আলী  » «   স্পেন-বাংলাদেশ প্রাতিষ্ঠানিক সম্পর্কের পরিধি বিস্তৃত হচ্ছে  » «   টি আলী স্যারকে নিয়ে লেখা আব্দুল গাফফার চৌধুরী’র গানে সুর দিলেন মকসুদ জামিল মিন্টু  » «   লন্ডনে প্রকাশক ও গবেষক মোহাম্মদ নওয়াব আলীর সাথে মতবিনিময় ও ‘বাসিয়ার বই আলোচনা‘র  মোড়ক উন্মোচন  » «   ঢাকা এন আর বি ক্লাবে – ‘বাঙালীর বিয়েতে বাংলাদেশের পোশাক’ ক্যাম্পেইনের নেটওয়ার্কিং মিটিং  » «   প্রধানমন্ত্রীর সাথে ঢাবি অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকে’র সভাপতির সাক্ষাৎ  » «   লন্ডনে গোলাপগঞ্জের কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের সাথে সরওয়ার হোসেনের মতবিনিময়  » «   বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জের মানুষের সেবায় আজীবন পাশে থাকবো -সরওয়ার হোসেন  » «   লন্ডনে  EXPLORE BEANIBAZAR প্রদর্শিত হবে ২২ জানুয়ারি  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

উত্তর কুমারশাইল জামে মসজিদে কমলা-মাল্টার বাগান
সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশনের- সবুজে হাসি সবুজে বাচিঁর উদ্যোগ-



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

অন্ধকারে আলো শ্লোগাণ নিয়ে  কাজ করা শিক্ষা, লেখক ও সামাজিক অনুপ্রেরণাবান্ধব   চ্যারিটি প্রতিষ্ঠান  সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশনের  উদ্যোগে বড়লেখা উপজেলার সীমান্তবর্তী উত্তর কুমারশাইল জামে মসজিদে ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষরোপণ করা হয়েছে।

সবুজে হাসি  সবুজে বাঁচি-  শিরোনামে  অস্বচ্ছল পরিবার ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষরোপণ   প্রকল্পের অংশ হিসাবে  উপজেলার  এই মসজিদে কমলা, মাল্টা ও ঔষধি গাছের সমন্ধিত  বাগান করে দেয়া হয় ।

যুক্তরাজ্যবাসী সিলেট বিয়ানীবাজার পৌরসভার নয়াগ্রামের  মরহুম আব্দুল তাহিদ এর  সন্তানদের  অর্থায়নে  ৮ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার  সকালে  আড়ম্বরহীনভাবে  মসজিদ প্রাঙ্গণে চারা লাগিয়ে প্রজেক্টটির  উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ ফুটবল উন্নয়ন ফেডারেশন মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি মো: আব্দুল কুদ্দুস।

উত্তর কুমারশাইল জামে মসজিদ  কমিটির সহ সভাপতি  মো: হাবিব আলীর সভাপতিত্বে ও নাজমুল কায়সারের সঞ্চালনায়  অতিথি হিসাবে  উপস্থিত  ছিলেন ৪নং উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রফিক উদ্দিন,উত্তর কুমারশাইল জামে মসজিদের সভাপতি ও অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য আব্দুল খালিক।

অতিথিবৃন্দ সবুজে হাসি  সবুজে বাঁচি প্রকল্পের মাধ্যমে মসজিদে ফলদ ও ঔষধি বাগাণ করে দেওয়ায় সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন- সীমান্তবর্তি  এই অঞ্চলের  কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  এধরণের  পরিকল্পিত কমলা ও মাল্টার সমন্বিত বাগাণ  এটিই প্রথম। রোপণ করা উন্নতমানের গ্রাফটিং চারা থেকে ফলন দ্রুত পাওয়া যাবে। এবং এর মাধ্যমে মসজিদের জন্য ধারাবাহিক আয়ের একটি ক্ষেত্রও তৈরী হলো।

অতিথিবৃন্দ বলেন, এধরণের উদ্যোগ বেশী করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেয়া হলে সমাজে পুষ্টি চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বিজ্ঞানভিত্তিক বারোমাসি  ফলদ ও ঔষধি বাগাণ করতে তরুণরা উদ্ধুদ্ধ হবেন।

‘সবুজে হাসি সবুজে বাঁচি’ প্রজেক্টের কো-অর্ডিনেটর  সাংবাদিক মো: ইবাদুর রহমান জাকির মসজিদ কর্তৃপক্ষ,অতিথিবৃন্দ এবং স্বেচ্ছাসেবকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছে, সকলের সহযোগিতায় বাগাণে বৃক্ষরোপণ সম্পন্ন হয়েছে। ফাউন্ডেশন মসজিদ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে  গাছগুলোর সার্বিক পরিচর্যা ও মনিটরিং করা হবে, যাতে গাছগুলো  নষ্ট না হয় এবং  দ্রুত ফলন উপযোগি হয়।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, আব্দুস সত্তার, আখদ্দছ আলী, সমছুল হক, আব্দুর কুদ্দুস, আব্দুর রহিম শুক্কুর,আব্দুল কাইয়ুম ,আব্দুল জলিল, ফখর উদ্দিন, মুসলিম খান,আলী হোসেন, আব্দুর রব।

প্রসঙ্গত  অন্ধকারে আলো- শ্লোগাণ নিয়ে  ২০০৪ সাল থেকে  সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশন বিভিন্ন  মানবিক , শিক্ষা- শিক্ষক সম্পর্কিত এবং  সমাজসেবামূলক  ধারাবাহিক  নিজস্ব প্রকল্পের মাধ্যমে কাজ করছে। ফাউন্ডেশনের  প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে- প্রতিশ্রুতিশীল লেখকদের বই প্রকাশ, ‘সবুজে হাসি  সবুজে বাঁচি’- প্রকল্পের মাধ্যমে  অস্বচ্ছল পরিবার ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষ রোপন,  সৃজনশীল প্রকল্প- ’সৃষ্টি ঘর’ এর আওতায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চিত্রাঙ্কন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, প্রবীন অসহায়দের জন্য –’প্রশান্তির হাসি,’ ‘মানবিক স্বজন’ এর   আওতায়  নিভৃতে  বঞ্চিত ও দুস্থ মানুষের  ঘরে খাবার সামগ্রী বিতরণ  এবং  পবিত্র রমজান মাসে সুবিধা বঞ্চিত ও নিন্মবিত্ত  পরিবারের জন্য ‘হাসি মুখে ইফতার’ এবং  কৃষক ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য ‘আমার স্বপ্ন’ প্রকল্পের মাধ্যমে তৃণমূলে  কাজ করছে। মূলত সবগুলো কাজে সাধ্যমতো ফাউন্ডেশন এর একটা সমাজবান্ধব আদর্শিক চিন্তা- চেতনা ও অনুপ্রেরণার স্ফোরণের প্রত্যয় থাকে।

 

 

 

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন