মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
সৈয়দ আফসার উদ্দিন এমবিই‘র ইন্তেকাল  » «   ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিয়ানীবাজারে পথচারী ও রোগীদের মধ্যে ইফতার উপহার  » «   ইস্টহ্যান্ডসের রামাদান ফুড প্যাক ডেলিভারী সম্পন্ন  » «   বিসিএ রেস্টুরেন্ট কর্মীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এনএইচএস এর ‘টকিং থেরাপিস’ সার্ভিস ক্যাম্পেইন করবে  » «   গ্রেটার বড়লেখা এসোশিয়েশন ইউকে নতুন প্রজন্মদের নিয়ে কাজ করবে  » «   স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বিয়ানীবাজার প্রেসক্লাবের দোয়া ও ইফতার মাহফিল  » «   কানাডা যাত্রায়  ইমিগ্রেশন বিড়ম্বনা এড়াতে সচেতন হোন  » «   ব্রিটিশ রাজবধূ কেট মিডলটন ক্যানসারে আক্রান্ত  » «   যুদ্ধ বিধ্বস্ত গাজাবাসীদের সাহায্যার্থে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকের অনুদান  » «   বড়লেখায় পাহাড়ি রাস্তা সম্প্রসারণে বেরিয়ে এলো শিলাখণ্ড  » «   মাইল এন্ড পার্কে ট্রিস ফর সিটিস এর কমিউনিটি বৃক্ষরোপণ  » «   রয়েল টাইগার্স স্পোর্টস ক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন  » «   গোলাপগঞ্জ স্যোশাল এন্ড কালচারাল ট্রাস্ট ইউকে’র সাধারণ সভা ও নির্বাচন সম্পন্ন  » «   যুক্তরাজ্যবাসি  সাংবা‌দিক সাইদুল ইসলামের পিতা আব্দুল ওয়াহিদের ইন্তেকাল  » «   ইউকে বাংলা রিপোটার্স ইউনিটি‘র নতুন কার্যকরী কমিটির অভিষেক  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

পর্তুগালে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস
মো.সাহাব উদ্দিন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

পর্তুগালে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে “মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। পর্তুগালের রাজধানী লিসবন, বাণিজ্যিক নগরী পর্তো-সহ দেশের সবগুলো বড় বড় শহরেও এ দিবসটি পালিত হয়েছে।

সকাল ৮.৩০ মিনিটের পর থেকেই লিসবনের স্থায়ী শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি যথাযোগ্য সম্মান জানাতে উপস্থিত হতে শুরু করেন বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন, মিডিয়াসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সকাল ১০.৩০ মিনিটের সময় “বাংলাদেশ দূতাবাস অব পর্তুগাল” এর পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান। এরপর পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন লিসবন “আরোইস মিউনিসিপ্যালিটির” প্রেসিডেন্ট মাদালেনা নাতিভিদাধ। এরপর একে একে সকল রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন, সংস্থা, বিভিন্ন সমবায় সমিতি, প্রেস মিডিয়া ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের প্রতি জানানো হয় যথাযথ সম্মান ও ভালোবাসা।

এরপর ভাষা শহীদদের সম্মানে ১ মিনিট নিরবতা পালন শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান ও “আরোইস মিউনিসিপ্যালিটির” প্রেসিডেন্ট মাদালেনা নাতিভিদাধ। এরপর সমবেত কন্ঠে পরিবেশন করা হয় অমর একুশে সংগীত ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো -একুশে ফেব্রুয়ারী” সংগীতটি। সংগীতের পর পরই অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন