শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


আমিরাতে বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধন
রাষ্ট্রদূতের উপস্থিতিতে কমিউনিটিতে ফিরে এসেছে প্রাণ



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

দুবাই উত্তর আমিরাতে প্রায় অর্ধযুগ পর বাংলাদেশ কমিউনিটিতে হঠাৎ নতুন মেরুকরণ দেখা দিয়েছে। রাজনৈতিক মতাদর্শের কারণে দীর্ঘদিন দ্বিধাবিভক্তি থাকার পর শুক্রবার রাতে দুবাই উত্তর আমিরাতে বাংলাদেশ কমিউনিটির মাঝে দেখা দিয়েছে যেন পুরানো সোহার্দ্য। যা গত সাত বছর ধরে বাংলাদেশ কমিউনিটির মাঝে দেখা যায়নি।

গতকাল শুক্রবার (২৪ জুলাই) রাতে বাংলাদেশ সমিতি সারজা’র বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধন কালে দীর্ঘদিন রাজনৈতিক মতাদর্শ নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত থাকা দু’টি ধারার নেতৃবৃন্দের সহবস্থান সবাইকে চমকে দিয়েছে।

সাত বছর তিন মাস পর দুবাই উত্তর আমিরাতের সাবেক কনসাল জেনারেল আবু জাফর রাষ্ট্রদূত হিসেবে ফিরে আসার পর বাংলাদেশী কমিউনিটির মাঝে আবারো প্রাণের সঞ্চার হয়েছে। রাজনৈতিক মতাদর্শের ভিন্নতা এবং তৎকালীন রাষ্ট্রদূতের অবহেলা ও নানা প্রতিবন্ধকতার অভিযোগ তুলে বাংলাদেশী কমিউনিটির একটা অংশ দীর্ঘদিন কমিউনিটির কার্যক্রম থেকে বিরত ছিল।

শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ সমিতির শারজায় নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধন করতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আরব আমিরাতে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবু জাফর।

ভিন্ন মতাদর্শের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতির প্রতি ইঙ্গিত করে অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে বলেন ”মিশন কর্মকর্তারা হচ্ছেন রাষ্ট্রীয় সেবক । আমরা রাষ্ট্রের নিযুক্ত সেবক হিসেবে এখানে এসেছি, কোনো জনপ্রতিনিধি হিসেবে এখানে আসিনি।তাই আমাদের বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের সমান চোখে দেখতে হবে। এখানে বিভাজন করে দেখার কোন সুযোগ নেই এবং বিভাজন তৈরি করে দেওয়ার কোন অধিকার নেই। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের রাষ্ট্রীয় আইন মেনে চলতে হয়।”

উল্লেখ্য যে, চলমান কভিট ১৯ সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত সংখ্যক কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে বঙ্গবন্ধু হলটি উদ্বোধন করার কথা জানিয়েছিলেন সারজা বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি আবুল বাশার ও সাধারণ সম্পাদক শাহ মাকসুদ।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসেন খান, আবুধাবি বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন, আল হারামাইন গ্রুপের কর্ণধার এবং এনআরবি ব্যাংকের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাহতাবুর রহমান নাসির, বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সভাপতি , শারজা বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা ও বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা ইঞ্জিনিয়ার আবু জাফর চৌধুরী, দুবাই বাংলাদেশ সমিতির আহ্বায়ক ও দুবাই বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক আবদুস সবুর, বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের সহ-সভাপতি আইয়ুব আলী বাবুল, সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের সাবেক সভাপতি ও কমিউনিটি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, আওয়ামী লীগ বিএনপি সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের নেতৃবৃন্দ ও জনতা ব্যাংক ,বিমান এবং সমিতির কর্মকর্তারা এই সভায় উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধনের পর আয়োজিত আলোচনা সভায়, বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মাহমুদ ও সমিতির বর্তমান কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম রূপু বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও কমিউনিটির অনেক আওয়ামী লীগ নেতার সাথে বিএনপি নেতৃবৃন্দের সৌহার্দ্যপূর্ণ ভাবে ছবি তুলতেও দেখা যায় ।

ভিন্ন ভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের সোহার্দ্য পূর্ণ এ সহাবস্থান একটা ইতবিাচক দিক হিসেবেই মনে করছেন প্রবাসী আমিরাত প্রবাসীরা।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন