রবিবার, ৩ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
বিলেতে কারী শিল্পে ঈদের ছুটি সময়ের দাবি  » «   ঈদের ছুটি  » «   ইউরোপে জ্বালানি সংকট চরমে, বিকল্প ভাবতে হচ্ছে ইউরোপকে  » «   হাইডে প্রবীণদের স্মরণে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল  » «   ঈদের দিন হোক সবার উৎসবের দিন  » «   ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হসপিটাল সিলেটের সার্টিফিকেট বিতরণী অনুষ্ঠিত  » «   নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশী সমিতি’ ইউকে’র যাত্রা শুরু  » «   ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


টাইগার সমর্থকরা তবুও আশায় আশায়



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

আসলেও ক্রিকেট যেন অনুমানের অতীত এক অনিশ্চয়তার খেলা। অস্ট্রেলিয়ার মতো বিশ্বজয় করা টিমের সঙ্গে বাংলাদেশের গর্জে ওঠা যেমন চমকে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে, ঠিক তেমনি চমক দেখিয়েছে শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ডের বিপরীতে গত ২১ জুন লিডসে। অথচ ইংল্যন্ডের কাছে হেরে গেছে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইণ্ডিজের বিপরীতে মাত্র ১০৫ রান করে সবকিছু হারিয়ে মাঠ থেকে বেরিয়েছে এক সময়ের বিশ্বকাপ জয়ী পাকিস্তান।

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে খেলার জন্য আমরা যেন প্রার্থনায় ছিলাম, কারণ আমাদের সামনে ছিল আশাবাদ। আমরা বধ করব শ্রীলঙ্কানদের। ব্রিটেনের হাজার হাজার বাংলাদেশি সমর্থক সেদিন বৃষ্টিতে ভিজে তবুও গ্যালারিতে গিয়েছে, বৃষ্টি উপেক্ষা করেও ঘণ্টার পর ঘণ্টা ভিজেছে বৃষ্টির জলে। খেলা পরিত্যক্ত হওয়ায় খুশ মেজাজে থাকেনি টাইগার সমর্থকরা সেদিন, এক পয়েন্ট নিয়ে তৃপ্ত হয়নি তারা। কারণ তাদের সামনে ছিল শ্রীলঙ্কান বধের স্বপ্ন।

কিন্তু এই শ্রীলংকানদের সঙ্গে অভাবনীয় হার মেনে নিতে হয়েছে ইংল্যান্ডের। অথচ এই ইংল্যান্ড এবারের হট ফেবারেট হিসেবে খ্যাতি পেয়েছে। বাংলাদেশ কোনো কারণে যদি এই বিশ্বকাপে দুঃখবোধে আক্রান্ত হয়, তখন ব্রিটেনবাসী বাংলাদেশি সংখ্যাগরিষ্ঠদের সমর্থন পাচ্ছে ইংল্যান্ডে। সে হিসেবে গত পরশুও আশাহত হয়েছে অধিকাংশ ব্রিটিশ বাংলাদেশি। একইভাবে ভারতের সঙ্গে আফগানদের যেভাবে বিবেচনা করা হয়েছে, সে বিবেচনায় থাকেনি আফগান দল। প্রতিরোধটা শক্তই ছিল। লড়েছে প্রাণপণ। সে হিসাব কষেই হয়ত আগামীর খেলা খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এ ছাড়াও বাংলাদেশ খেলবে শক্তিশালী দুটো দল পাকিস্তান এবং ভারতের সঙ্গে। শক্তিশালী হলেও কিন্তু ব্রিটেনের বাংলাদেশ সমর্থকরা আশা হারায়নি। দলনেতা মাশরাফির মতই ব্রিটেনের টাইগার সমর্থকরাও আশাবাদী। এখনো স্বপ্ন দেখছে টাইগার সমর্থকরা, অন্তত সেমিফাইনালে বাংলাদেশকে দেখার। আর সেজন্যই তাদেরও এই একটি কথাই, অনিশ্চয়তার এই খেলাটিতে হতাশ হতে নেই। ঠিক সেভাবেই আগামীকালের খেলায় আফগানদেরও দুর্বল ভেবে হেলায় দেখার কোনো সুযোগ নেই।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন