মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চন্দরপুর ফ্রি সেলাই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্বনির্ভরতার পথ দেখাবে  » «   বার্মিংহামে কসবা-খাসা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে’র প্রীতি সমাবেশ  » «   কাতালোনীয়া সান্তা কলমা আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবস পালন  » «   পর্তুগাল আওয়ামী লীগের জাতীয় শোক দিবস  » «   মদিনায় বাস দূর্ঘটনায় নিখোঁজ ১ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে  » «   স্পেন ছাত্রলীগ জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে  » «   খায়রুল আনামের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   মনসা পূজোর জন্যে আবার প্রস্তুত সিকদার বাড়ি  » «   স্পেনে জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে বাংলাদেশ দূতাবাস  » «   মিলান কনস্যুলেটে জাতীয় শোক দিবস পালন  » «   লন্ডনে মুক্তিযুদ্ধ গবেষক তাজুল মোহাম্মদের সাথে অন্তরঙ্গ আড্ডা  » «   সৌদি আরবে জাতীয় শোক দিবস পালিত  » «   সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি হাজি নিহত  » «   সৌদির তেল স্থাপনায় ভয়াবহ হামলা  » «   বাংলাদেশ কনসুলেট জেদ্দার শোকদিবস পালন  » «  

মুসলিম পরিবার ছেলের নাম রাখল নরেন্দ্র মোদী



ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশ হতেই দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঝড়ে কুপোকাত হয়ে গেছে দেশটির বিরোধী শিবির। সেই ঝড়ে ভেসে গেলেন উত্তরপ্রদেশের পারসাপুর এলাকার মহরাউর গ্রামের মুসলিম পরিবারের এক গৃহবধূ।

ওই গৃহবধু গত ২৩ মে নির্বাচনের ফল প্রকাশের দিনে পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। মোদির জয়ের দিনে সন্তান জন্ম নেয়ায় তার নাম ‘নরেন্দ্র দামোদর দাস মোদি’ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওই নারী।

সন্তানের জন্ম দেয়া উত্তরপ্রদেশের ওই নারীর নাম মেহনাজ বেগম। ২৩ মে ছেলের নাম ঠিক করার দিন নির্ধারণ করা ছিল। সেদিনই মোদির নাম মাথায় আসে তার। সেই নামেই নিজের ছেলের নাম ঠিক করেন তিনি। আশপাশের সবাই তাকে মত বদলাতে বললেও, তিনি অনড় থাকেন বলে ভারতীয় একটি বার্তাসংস্থাকে জানিয়েছেন তার শ্বশুর।

দুবাইতে কর্মরত ওই নারীর স্বামী মুস্তাক আহমেদকে খবর দেয়া হলে তিনিও চেষ্টা করেন স্ত্রীর মত বদলাতে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত স্ত্রীর ইচ্ছেকে মেনে নেন তিনি।

পরে ওই পরিবারের পক্ষ থেকে জেলা শাসকের উদ্দেশে লেখা একটি হলফনামা জমা দেয়া হয় পঞ্চায়েতের সহ-উন্নয়ন কর্মকর্তা ঘনশ্যাম পাণ্ডের কাছে। শুক্রবার ওই হলফনামা পেয়ে ঘনশ্যাম পাণ্ডে বলেছেন, ‘আবেদনটি গ্রাম পঞ্চায়েতের সম্পাদকের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তিনিই জন্ম ও মৃত্যু নথিবদ্ধ করার বিষয়টি দেখেন।’

হলফনামায় মেহনাজ বেগম মোদি এবং তার সরকারের উন্নয়নের প্রশংসা করেছেন। বিশেষ করে দরিদ্র মানুষদের জন্য বিনামূল্যে গ্যাসের সংযোগ ও শৌচাগার নির্মাণে আর্থিক সহায়তা প্রকল্পের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর নামে নাতির নাম রাখার ব্যাপারে মেহনাজের শ্বশুর ইদ্রিশ বলেছেন,‘শিশুর নাম রাখার বিষয়টি পরিবারের ব্যক্তিগত ব্যাপার। তাই অন্যদের এতে নাক গলানো উচিত নয়।’

মেহনাজ জানিয়েছেন, আমরা চাই নরেন্দ্র মোদির মতোই আমাদের সন্তান পরিশ্রমী হোক। তার মতোই সফল হোক।

সূত্র: জিনিউজ, আনন্দবাজার।