বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কারী ইন্ড্রাস্টির সংকট মোকাবেলায় দরকার সমন্বিত উদ্যোগ  » «   বিবিসি প্রকাশ করেছে উইঘুর নির্যাতন নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন  » «   মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ আরও ২ দেশে: বেলজিয়ামে ২১ দিনের কোয়ারেন্টিন ঘোষণা  » «   শুধুই নারীদের পরিচালনায় প্রথম সৌদি আরবের আকাশে উড়ল ব্যতিক্রমী ফ্লাইট  » «   গোলাপগন্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী এলিম চৌধুরী’র মতবিনিময়  » «   দুদকের মামলায় হাজী সেলিম কারাগারে  » «   নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও রাশিয়ার মুদ্রা রুবল’র উত্থান  » «   কারী শিল্পের সংকট মোকাবেলায় সিবিআই প্রেসিডেন্টের কাছে  বিসিএ’র পাঁচ দাবী উপস্থাপন  » «   গোলাপগঞ্জে ভোটার হাল নাগাদ শুরু  » «   বার্সেলোনায় মাদারীপুর সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী  » «   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসায় স্পেনের প্রেসিডেন্ট  » «   আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর চিরবিদায়  » «   ইতালির জেনোভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান  » «   বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে‘র দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও সম্মেলন অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

দাপুটে ব্যাটিং নৈপুণ্যে ইতিহাস রচনা করলো বাংলাদেশ



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতল বাংলাদেশ। প্রায় হেরে যাওয়া ম্যাচে মাত্র ২৪ বলে ৫২ রানের অবিশ্বাস্য ইনিংস খেলে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এ জয় উপহার দেন।

শেষ দিকে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ২৪ বলে ৩৯রান। ঠিক ওই সময় ঝড় তুলেন তরুণ এ অলরাউন্ডার। দলের জয়ে ২টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৫২ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন সৈকত। মোসাদ্দেক-সৌম্যর জোড়া ফিফটি গড়া ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে পরাজিত করে বাংলাদেশ।

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে প্রথমে ব্যাট করে বৃষ্টির বাগড়ায় পড়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৪ ওভারে সংগ্রহ করে ১৫২/১ রান। বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশের টার্গেট দাঁড়ায় ২৪ ওভারে ২১০রান।

এমন কঠিন সমীকরণ তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। উদ্বোধনী জুটিতে তারা ৫.৩ ওভারে ৫৯ রান যোগ করেন।

এরপর মাত্র ১ রানের ব্যবধানে ২ উইকেট হারায় বাংলাদেশ দল। ১৩ বলে ১৮ রান করে ফেরেন তামিম। তার বিদায়ের পর ব্যাটিংয়ে নেমেই আউট হন সাব্বির রহমান রুম্মন।

এরপর মুশফিকুর রহিমকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন দুর্দান্ত খেলে যাওয়া সৌম্য সরকার। তৃতীয় উইকেটে তাড়া ৪৯ রান যোগ করেন।

নিজের খেলা ২৭তম বলে সিঙ্গেল নেয়ার মধ্য দিয়ে ক্যারিয়ারের ৪৪তম ম্যাচে ১০ ফিফটি গড়েন সৌম্য সরকার। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে যাওয়া সৌম্য ফেরেন ৪১ বলে ৯টি চার ও তিনটি ছক্কায় ৬৬ রান করে।

দলীয় ১৩৪ রানে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন মুশফিকুর রহিম। তার আগে ২২ বলে ৩৬ রান করেন জাতীয় দলের এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান।

পাঁচ নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নামা মোহাম্মদ মিঠুনও মুশফিকের মতো একই ভাবে আউট হন। ফ্যাবিয়ান অ্যালানের বলে বিভ্রান্ত হওয়ার আগে ১৪ বলে ১৭ রান করেন মিঠুন।

ইনিংসের শেষ দিকে রান রেট বেড়ে যাওয়ায় একেরপর এক বাউন্ডারি হাঁকান সৈকত। তার অনবদ্য ব্যাটিংয়ে প্রথম শিরোপার স্বাদ পায় বাংলাদেশ দল।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন