শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনবাসী প্রবীণ মুরব্বী জমির উদ্দিন( টেনাই মিয়া)র ইন্তেকাল  » «   কবি সংগঠক ফারুক আহমেদ রনির পিতা মুমিন উদ্দীনের ইন্তেকাল  » «   একসেস ট্যু জাস্টিস নিশ্চিত করা আইনের শাসনের প্রধান স্তম্ভ  » «   বৃহত্তর সিলেট এডুকেশন ট্রাস্টের নির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে প্যালেষ্টাইনের জনগণের প্রতি উৎসর্গ করে লন্ডনে সমাবেশ  » «   এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন যুক্তরাজ্যে আসছেন  » «   হিলালপুর গ্রামে সড়ক বাতি উদ্বোধন  » «   বিয়ানীবাজার জনকল্যাণ সমিতি ইউকের কার্যকরী কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত  » «   পূর্ব মুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসিপরীক্ষার্থীদের মধ্যে পরীক্ষা উপকরণ বিতরণ  » «   গুচ্ছ কবিতা ।। আতাউর রহমান মিলাদ  » «   ব্রিটেনের রাজা চার্লস ক্যান্সারে আক্রান্ত  » «   গুচ্ছ কবিতা ।। আবু মকসুদ  » «   মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী : শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা  » «   ‘এখন হয়েছে উল্টো, পুরুষরা বাজারে এসে খাই, পরে পরিবারের জন্য কিনে নিয়ে যাই‘!  » «   বিশ্বনাথে ১৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেছে ব্যারিস্টার নাজির আহমদ ফাউন্ডেশন  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

ওসি প্রত্যাহার, অধ্যক্ষসহ ৩জনের রিমান্ড মঞ্জুর



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন


সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে (১৮)  পুড়িয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় জেলহাজতে থাকা অধ্যক্ষ এস এম সিরাজ উদদৌলাহর ৭দিন এবং প্রভাষক আবছার উদ্দিন ও পরীক্ষার্থী আরিফুল ইসলামের ৫দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সরাফ উদ্দিন আহমেদের আদালত। বুধবার সকালে পুলিশের রিমান্ড আবেদনের উপর দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালত এ আদেশ দেন। পুলিশের আদালত পরিদর্শক গোলাম জিলানী ৩জনের রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সকালে কড়া নিরাপত্তায় ওই ৩জনকে এজলাসে হাজির করা হয়। এর আগে ৯এপ্রিল অপর ৪ জনের ৫ দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করেন একই আদালত। তারা হলেন মাদ্রাসার প্রাক্তন ছাত্র আলাউদ্দিন, যুবলীগ কর্মী নুর হোসেন হোনা, কেফায়েত উল্লাহ জনি ও শহিদুল ইসলাম। অপরদিকে দায়িত্বে অবহেলা করায় ১০ এপ্রিল সকালে সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মো. মোয়াজ্জেম হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানান ফেনীর পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার। ওই মাদরাসা শিক্ষার্থীদের অভিযোগ ওসি নিজেই শুরু থেকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় জড়িতদের নানান ভাবে সহযোগিতা করেছেন। তদন্তে যাদের নাম এসেছে তাদেরকেই প্রকাশ্যে থানার ভেতরে ঘুরতে দেখা গেছে। পুলিশ এখনো গভর্নিং বডির সদস্য ও এজাহার ভুক্ত আসামী মকসুদ আলম , মাদরাসা ছাত্র শাহাদাত হোসেন শামীম, নুর উদ্দিন , হাফেজ আবদুল কাদের, জোবায়ের আহমেদ, ও জাবেদ হোসেনকে আটক করতে পারেন নি। মডেল থানার ওসি (তদন্ত) কামাল হোসেন জানান, এজাহার নামীয় আসামী ও তদন্তে যাদের নাম এসেছে সবাইকে আটকের চেষ্টা চলছে । তারা পলাতক রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২৭ মার্চ আলিম পরীক্ষার্থী এক ছাত্রীকে শ্লীলনতাহানী করেন অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলাহ। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদি হয়ে সোনাগাজী থানায় মামলা করলে পুলিশ অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায়। গভর্নিং বডির ২ সদস্য ও মাদরাসার প্রাক্তন ছাত্ররা মামলা প্রত্যাহারের জন্য হুমকি দেয়। মামলা প্রত্যাহার না করায় গত ৬এপ্রিল পরীক্ষা কেন্দ্রের একটি ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে দাহ্য পদার্থ ঢেলে ওই ছাত্রীকে হত্যার চেষ্টা করে দুর্বৃত্তরা। সে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধিন। এ ঘটনায় ৮এপ্রিল ওই ছাত্রীর ভাই নোমান বাদি হয়ে অধ্যক্ষসহ ৮জনের নাম উল্লেখ সোনাগাজী থানায় মামলা দায়ের করেন।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন