মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
সৈয়দ আফসার উদ্দিন এমবিই‘র ইন্তেকাল  » «   ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিয়ানীবাজারে পথচারী ও রোগীদের মধ্যে ইফতার উপহার  » «   ইস্টহ্যান্ডসের রামাদান ফুড প্যাক ডেলিভারী সম্পন্ন  » «   বিসিএ রেস্টুরেন্ট কর্মীদের মানসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এনএইচএস এর ‘টকিং থেরাপিস’ সার্ভিস ক্যাম্পেইন করবে  » «   গ্রেটার বড়লেখা এসোশিয়েশন ইউকে নতুন প্রজন্মদের নিয়ে কাজ করবে  » «   স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বিয়ানীবাজার প্রেসক্লাবের দোয়া ও ইফতার মাহফিল  » «   কানাডা যাত্রায়  ইমিগ্রেশন বিড়ম্বনা এড়াতে সচেতন হোন  » «   ব্রিটিশ রাজবধূ কেট মিডলটন ক্যানসারে আক্রান্ত  » «   যুদ্ধ বিধ্বস্ত গাজাবাসীদের সাহায্যার্থে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকের অনুদান  » «   বড়লেখায় পাহাড়ি রাস্তা সম্প্রসারণে বেরিয়ে এলো শিলাখণ্ড  » «   মাইল এন্ড পার্কে ট্রিস ফর সিটিস এর কমিউনিটি বৃক্ষরোপণ  » «   রয়েল টাইগার্স স্পোর্টস ক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন  » «   গোলাপগঞ্জ স্যোশাল এন্ড কালচারাল ট্রাস্ট ইউকে’র সাধারণ সভা ও নির্বাচন সম্পন্ন  » «   যুক্তরাজ্যবাসি  সাংবা‌দিক সাইদুল ইসলামের পিতা আব্দুল ওয়াহিদের ইন্তেকাল  » «   ইউকে বাংলা রিপোটার্স ইউনিটি‘র নতুন কার্যকরী কমিটির অভিষেক  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

আমিরাতে নারী দিবসে বাংলাদেশি খাবারে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশি নারী



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

৮ মার্চ নারী দিবসে আরব আমিরাতের ফুজাইরাহতে বাংলাদেশি খাবার রান্না করে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশি ভেটেরিনারি ডাক্তার সাবিহা ইয়াসমিন তানিয়া। স্থানীয় লুলু মল ফুজাইরাহ আয়োজন করেছিলো আন্তর্জাতিক রান্না প্রতিযোগিতার। অনলাইনের মাধ্যমে রেসিপি আহবান করেছিলো ফেব্রুয়ারি মাসে। শত শত রেসিপির মধ্যে চূড়ান্ত পর্বে ৮ জনকে ডাকে আয়োজক সংগঠক। তিনজন ভারতীয়, দুইজন ফিলিপিনো, একজন পাকিস্তানী, একজন মিশরীয় এবং একমাত্র বাংলাদেশি ছিলেন সাবিহা ইয়াসমিন তানিয়া।

৮ মার্চ নিজ দেশীয় খাবার রান্না করেন চূড়ান্ত পর্বের ৮ জন প্রতিযোগী। বাংলাদেশি খাবার রান্না করে তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন সাবিহা ইয়াসমিন তানিয়া। পেশায় তিনি দুবাইয়ের একটি বেসরকারি সংস্থার ভেটেরিনারি ডাক্তার। তানিয়ার বাড়ি চট্টগ্রামের দেওয়ানবাজারে। স্বামী শাহ মোহাম্মদ তানভির নূর তাঁর এগিয়ে যাওয়ার পেছনে শক্তি যুগিয়েছেন বলে তিনি জানান। আরব আমিরাতের আজমান শহরে থাকা তানিয়া নিজ কর্মের মাধ্যেমে দেশকে তুলে ধরতে পারায় নিজেকে গর্বিত মনে করেন।

এ প্রতিযোগিতায় প্রথম হোন ফিলিপিনো মহিলা এবং দ্বিতীয় হয়েছেন মিশরী মহিলা। প্রবাসে নানাভাবে দেশকে তুলে ধরতে নিজের ইচ্ছাশক্তি দরকার বলেও জানিয়েছেন ভেটেনারি ডাক্তার সাবিহা ইয়াসমিন তানিয়া।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন