রবিবার, ৩ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
বিলেতে কারী শিল্পে ঈদের ছুটি সময়ের দাবি  » «   ঈদের ছুটি  » «   ইউরোপে জ্বালানি সংকট চরমে, বিকল্প ভাবতে হচ্ছে ইউরোপকে  » «   হাইডে প্রবীণদের স্মরণে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল  » «   ঈদের দিন হোক সবার উৎসবের দিন  » «   ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হসপিটাল সিলেটের সার্টিফিকেট বিতরণী অনুষ্ঠিত  » «   নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশী সমিতি’ ইউকে’র যাত্রা শুরু  » «   ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


ম্যানচেষ্টার আওয়ামী লীগের ৭ মার্চ পালন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষ্যে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ গ্রেটার ম্যানচেষ্টার শাখা আয়োজন করেছিল এক আলোচনা সভার। সংগঠনের সহ-সভাপতি জনাব গৌছ মিয়ার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মীর গোলাম মোস্তাফার পরিচালায় সভার শুরুতে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে যারা শহীদ হয়েছিলেন এবং ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা সহ সকল শহীদদের আত্নার মাগফিরাত কামনা করে এক মিনিট দাঁড়িয়ে নিরবতা পালন করা হয়।

শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন জাফর আহমদ। উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযুদ্ধা ডাঃ নজরুল ইসলাম, সংগঠনের সহ সভাপতি সৈয়দ মাহমুদুর রহমান, যুগ্ম-সম্পাদক রুহুল আমিন রুহেল, রুহুল আমিন চৌঃ মামুন, আব্দুল হান্নান, ফয়জুল হক জুয়েল, আজম চৌঃ, মোঃ সদর উদ্দিন, জুয়েল মিয়া প্রমুখ।

সভা শেষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদেরের রোগ মুক্তির জন্য দোয়া করা হয়। বক্তব্যে  ডাঃ নজরুল ইসলাম বলেন ৭ই মার্চের ভাষণ বাঙ্গালী জাতির মুক্তির সনদ ছিল। বঙ্গবন্ধু যদি এই আহবান না করতেন বাংলার আপামর জনগনকে না জাগাতেন হয়ত আজও আমরা পরাধীনতার শিকলে আবদ্ধ থাকতে হত। সেই ভাষণ শুধু একটা ভাষণ ছিল না, এটা একটা মন্ত্র ছিল হেমিলনের বাশীঁ ওলার মত, এ যেন এক বিদ্যুৎ রুশ্মী যা মানুষের হৃদয়ে নাড়া দিয়েছিল। তাইত কৃষক, শ্রমিক, ছাত্র শিক্ষক থেকে শুরু করে সবাই ঝাপিয়ে পড়েছিল দেশ মাতাকে রক্ষায়।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন