শনিবার, ২৫ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
পদ্মা সেতুর স্মারক নোট বাজারে আসবে রবিবার  » «   পদ্মা সেতুর জন্য অভিনন্দন বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির  » «   অদম্য বাংলাদেশ, খুলল পদ্মার দ্বার  » «   আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই: প্রধানমন্ত্রী  » «   রেমিটেন্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণে মাদ্রিদে মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে মায়ের কোল থেকে ভেসে গেল শিশু, ৫ জনের মৃত্যু  » «   লন্ডনে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ইউকের বিশ বছরপূর্তি উদযাপন  » «   মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিবাদ এবং সাধারণ জনগণ  » «   স্পেনে ঢাকা ফ্রুতাস (Frutas) এর ১৬ বছর পূর্তি উৎসব অনুষ্ঠিত  » «   সিলেটে বন্যা : বৃষ্টি হয়েছে নদ-নদীর পানি কমেছে  » «   সিলেটে রানওয়েতে বন্যার পানি, বন্ধ বিমানের ফ্লাইট  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদে ছুটির দাবীতে আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ ২২শে জুন  » «   বিয়ানীবাজারে বিদ্রোহী প্রার্থী ও গোলাপগন্জে নৌকা বিজয়ী  » «   রুয়ান্ডা যাওয়ার প্রথম ফ্লাইটটি বাতিল : প্রীতি প্যাটেল আশা ছাড়েন নি  » «   মরহুম এম এ গণির আত্মার মাগফিরাত কামনায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের শোক সভা ও দোয়া মাহফিল  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


শুনো গো দখিন হাওয়া….
দুবাইয়ে ফাগুন উৎসব



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে ফাগুন উৎসবে মেতেছিলো প্রবাসীরা। হলদে বরণ সাজ আর স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি প্রবাসে ভেসে উঠেছে এক টুকরো বাংলাদেশ। এ যেন বিশ্বকবির ‘আজি দখিন-দুয়ার খোলা,এসো হে, এসো হে, এসো হে আমার বসন্ত এসো’ আহবান।

মরুর আকাশে বাতাসেও যেন লেগেছিলো বাংলাদেশের ফাগুন হাওয়া। মহিলাদের হলুদ শাড়ির সাথে তাল মিলিয়ে পুরুষেরাও পরেছিলেন হলুদ রাঙা পান্জাবী। নানা বাহারি পশরায় দেশকে খুঁজে পাবার এর পরম সুখ যেন ছিলো এই উৎসবে।

শুক্রবার দুবাইয়ের মোহাইসানা পন্ড পার্কে এ আয়োজন করেন সংস্কৃতিকর্মী সাইদা দিবা, সিআইপি জেসমিন আক্তার, শাফেয়া আক্তার তুহিন সহ অন্যান্যরা।

অনুষ্ঠানে নারী, পুরুষ আবাল বৃদ্ধ বণিতা সকলের উপস্থিতি প্রাণবন্ত করে বাসন্তী বিকেল। এনআরবি ব্যাংকেরে চেয়ারম্যান সিআইপি মাহতাবুর রহমান নাসের সহ কমিউনিটির অন্যান্য বরেন্য ব্যক্তিরাও এসেছিলেন স্বপত্নীক। প

অনুষ্ঠানে নিজ ঘরে ফাগুনের পিঠা বানিয়েছিলেন অনেকে। সুন্দর পোষাক পরা মহিলাদের থেকে সেরা সুন্দরী এবং ছেলেদের তেকে বসন্তরাজ নির্বাচিত করা হয়। দেয়া হয় পুরস্কারও।

অনুষ্ঠানে আগতরা জানান, সামাজিক এবং রাজনৈতিক অনুষ্ঠানের বাইরেও বাংলাদেশের সার্বজনীন এমন উৎসবের আয়োজনে দেশের আমেজ পাওয়া যায়। এসব আয়োজন অব্যাহত রাখার আহবানও তাদের।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন