শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
সৃজনের আলোয় মুস্তাফিজ শফি, লন্ডনে বর্ণাঢ্য সংবর্ধনা  » «   বৃটেনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তাহমিনার অসাধারণ সাফল্য  » «   দুই বঙ্গকন্যা ব্রিটিশ মন্ত্রীসভায় স্থান পাওয়ায় বঙ্গবন্ধু লেখক এবং সাংবাদিক ফোরামের আনন্দ সভা ও মিষ্টি বিতরণ  » «   কেয়ার হোমের লাইসেন্স বাতিলের বিরুদ্ধে আইনী লড়াইয়ে ল’ম্যাটিক সলিসিটর্সের সাফল্য  » «   যুক্তরাজ্যে আবারও চার ব্রিটিশ-বাংলাদেশী  পার্লামেন্টে  » «   আমি লুলা গাঙ্গ : আমার আর্তনাদ কেউ  কী শুনবেন?  » «   বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রতিবাদে লন্ডনে ইউনিভার্সেল ভয়েস ফর হিউম্যান রাইটসের সেমিনার অনুষ্ঠিত  » «   লন্ডনে বাংলা কবিতা উৎসব ৭ জুলাই  » «   হ্যাকনি সাউথ ও শর্ডিচ আসনে এমপি প্রার্থী শাহেদ হোসাইন  » «   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকে’র সাথে ঢাবি ভিসি প্রফেসর ড. এএসএম মাকসুদ কামালের মতবিনিময়  » «   মানুষের মৃত্যূ -পূর্ববর্তী শেষ দিনগুলোর প্রস্তুতি যেমন হওয়া উচিত  » «   ব্যারিস্টার সায়েফ উদ্দিন খালেদ টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নতুন স্পীকার নির্বাচিত  » «   কানাডায় সিলেটের  কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলমকে সংবর্ধনা ও আশার আলো  » «   টাওয়ার হ্যামলেটসের নতুন লেজার সার্ভিস ‘বি ওয়েল’ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন মেয়র লুৎফুর রহমান  » «   প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী এমপির সাথে বিসিএর মতবিনিময়  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

অভিনন্দন সুলতান মনসুর,এ বিজয় মানবতার বিজয়



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

‘আজকে আমার রুদ্ধ প্রাণের পল্ললে

বান ডেকে ঐ জাগলো জোয়ার

দুয়ার ভাঙ্গা কল্লোলে।‘

আমি বিমোহিত, আমি বিমুগ্ধ, আমি উল্লসিত নবপ্রাণের ঊচ্ছাসে।

আল্লাহর কাছে অশেষ শুকরিয়া জানাই, প্রিয় নেতাকে তিনি সম্মানিত করেছেন। এবারের নির্বাচনে জননেতা সুলতান মনসুরের একজন একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে আমি কুলাউড়ার জনসাধারণ, ভোটার, ঐক্যফ্রন্টের  নেতাকর্মী ও কুলাউড়ার আওয়ামী লীগ পরিবার তথা ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমীক লীগ ও আওয়ামী লীগের সমূহ নেতাকর্মী যাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতায় একজন সৎ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক হিসেবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শিত সুলতান মনসুরের বিজয় তরান্বীত হয়েছে। এ বিজয় শুধু কুলাউড়াবাসীর বিজয় নয়। সমগ্র দেশের আপামর জনগণের বিজয়। এ বিজয় সৎ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতির বিজয়।কুলাউড়াবাসীর মঙ্গল হোক।

আমি সকলকে অভিনন্দন জানাচ্ছি, যারা জননেতা সুলতান মনসুরকে ভালোবেসে তাঁর জন্য দেশ ও প্রবাস থেকে সকল প্রকার সাহায্য, সহযোগিতা ও সমর্থন অব্যাহত রেখেছিলেন। আমি অভিনন্দন জানাচ্ছি, সে সকল বঙ্গবন্ধুর সৈনিকদেরও যারা সুলতান মনসুর ঐক্যফ্রন্টে যোগ দেওয়ায় তাঁর উপর অভিমানে, রাগে, ক্ষোভে বেদনায় জর্জরিত হয়েছিলেন তাদেরকেও। আপনারাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও আওয়ামী লীগের সম্পদ। এ রকম কর্মী আছে বলেই  শত ঝড়-জঞ্জা মোকাবেলা করেও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ঠিকে আছে। আমি অভিনন্দন জানাচ্ছি আওয়ামী লীগ পরিবারের সকল সুলতানপ্রেমী নেতাকর্মীদের যারা প্রতিকুল পরিবেশেও সুলতান ভাইকে অর্থ দিয়ে, শ্রম দিয়ে, পরামর্শ দিয়ে, নিজের ও আত্নীয় পরিজনদের ভোট দিয়ে তাঁর বিজয়ে সহযোগিতা করেছেন-দেশ বিদেশের সকল প্রাক্তন ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামী লীগার ভাই, বোন ও সংগ্রামী বন্ধুদের।

বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে থাকা দলমত নির্বিশেষে সুলতান মনসুরের সমর্থক যারা কষ্টার্জিত রোজগার থেকে একজন সৎ রাজনীতিক হিসেবে সুলতান মনসুরকে ভালোবেসে তাঁকে আর্থিকভাবে সহায়তা করেছেন ,আপনাদেরকে অশেষ অভিনন্দন জানাচ্ছি।

অভিনন্দন সুলতান মনসুর সাইবার ফোর্সকে। যারা দেশ-বিদেশ থেকে সামাজিক মিডিয়া ফেসবুকে অসংখ্য আইডি থেকে অত্যন্ত সৃজনশীলভাবে সুলতান মনসুরকে প্রচার করেছেন, তাঁর বিরুদ্ধে উত্থাপিত সকল ভূয়া সংবাদ ও প্রচারণাকে চূর্ণ বিচূর্ণ করে প্রতিপক্ষকে মোকাবেলা করেছেন ও প্রকৃত সত্যকে তুলে ধরেছেন ,তাদের সকলকে আমি হৃদিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।

অভিনন্দন জানাচ্ছি জননেতা সুলতান মনসুর,  কুলাউড়ার সাবেক এম পি নবাব আলী আব্বাস খাঁন, বিএনপি নেতা এ্যাডভোকেট আবেদ রাজাসহ সকল নেতৃবৃন্দকে- যারা  একটি পরিকল্পিত আলোকিত ও চিত্তাকর্ষক সৃজনশীল নির্বাচনী প্রচারণায় কুলাউড়ার সামাজিক পরিবেশকে আলোকিত করেছেন এবং মানুষের চিত্ত হরণে সক্ষম হয়েছেন।

এ বিজয় গোটা বাংলাদেশের। এ বিজয় মানবতার বিজয়। এ বিজয় অহংকারের বিপরীতে উদারতার। এ বিজয় আমাদের কাংখিত সৎ ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতির। এ বিজয় আগামী প্রজন্মের জন্য অশেষ অনুপ্রেরণার। যে বিজয়ে আজ গোটা বাংলাদেশের মানুষ আনন্দিত। সকলের মঙ্গল হোক।

পরিশেষে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর একটি বিশ্বাসের প্রতি আলোকপাত করতে চাই। যা কিছু যুক্তিসঙ্গত ও ব্যগ্রকন্ঠে প্রকাশ উপোযোগী এবং মানুষের প্রতি কল্যাণকর- সকল ভয় ভীতি ও রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধু তা ধারণ ও প্রকাশ করতেন এবং এর বাস্তবায়নে সর্বাত্নক চেষ্টা করতে কখনো পিছপা হননি। ফাঁসিকাষ্ঠের ভয়ও তাঁকে এই সাধনা থেকে পিছপা করতে পারেনি বলেই বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভ করেছিলো। দলমত নির্বিশেষে আমাদের জীবনেও তাই ঘটুক। এ প্রত্যাশায় সকলকে রক্তিম অভিবাদন।

জয় বাংলা। জয় বঙ্গবন্ধু।

ছরওয়ার হোসেন; সাংবাদিক ও স্যোসাল একটিভিস্ট ,নিউ ইয়র্ক।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

"এই বিভাগে প্রকাশিত মতামত ও লেখার দায় লেখকের একান্তই নিজস্ব " -সম্পাদক