মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্রিয়া সাহা’র সাম্প্রদায়িক অভিযোগের প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের বিক্ষোভ সমাবেশ  » «   বাংলা স্কুল বার্সেলোনার বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা ও শিক্ষা সফর অনুষ্ঠিত  » «   একজন প্রিয়া সাহা এবং ‘ফান্ডামেন্টালিজমে’র লেভেলিং  » «   টেলিফোন সাক্ষাৎকারে প্রিয়া সাহা  » «   বিয়ানীবাজারে ছাত্র ইউনিয়নের কাউন্সিল সম্পন্ন  » «    বিয়ানীবাজার সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসে দুদকের অভিযান  » «   সিলেটের বিলুপ্তপ্রায় প্রাকৃতিক ঐতিহ্য  » «   পুকুরে জ্বলছে রহস্যময় আলো, সাত রাজার ধন দেখতে মানুষের ঢল  » «   ট্রাম্পের কাছে নালিশকারী প্রিয়া সাহা ‘দলিত কণ্ঠ’র সম্পাদক  » «   লন্ডনে সফররত সাংবাদিক ও প্রকাশককে সংবর্ধনা প্রদান  » «   আমিরাতে এবার গোল্ডকার্ড পেলেন সিআইপি মাহতাবের ভাই অলিউর!  » «   আমিরাতে বাংলাদেশি মানিকের গোল্ডকার্ড অর্জন  » «   সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি  » «   বার্সেলোনায় স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবকে সিটি করপোরেশনের আশ্বাস  » «   বাংলাদেশ ক্রীড়া পরিষদ ইউকে’র উদ্যোগে চতুর্থ ক্রীড়ামেলা বার্মিংহামে ২১ জুলাই  » «  

আফগানিস্তানে গুলিতে নারী সাংবাদিক নিহত



আগানিস্তানে মিনা মঙ্গল নামে এক নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করেছে সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার (১১ মে) রাজধানী কাবুলে নিজ বাড়ির পাশে তাকে গুলি করা হয়। তিনি দেশটির একজন জনপ্রিয় টিভি উপস্থাপক এবং সংসদের উপদেষ্টা ছিলেন। খবর এএফপি।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নারী মুখপাত্র নাসরত রাহিমি জানান, বন্দুকধারী দুই ব্যক্তি মোটরসাইকেলে এসে তার উপর উপর্যুপরি গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে, তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

নিহতের পরিবার জানিয়েছে, বাজারের ওই এলাকা থেকে প্রতিদিন সকালে মিনা অফিসে যান। সেখানেই তার গাড়ি আসে। হামলার সময়ও মিনা গাড়ির জন্যই অপেক্ষা করছিলেন। সেই সময়ে তার ওপর গুলি করা হয়। কী কারণে এই হামলা বা মিনার কোনো শত্রু ছিল কি না, সে ব্যাপারে কিছুই জানাতে পারেননি তারা।

জানা গেছে এক দশকেরও বেশি সময় সাংবাদিকতায় জড়িত ছিলেন মিনা। উপস্থাপনারও কাজ করছেন আরিয়ানা টিভি, সামশাদ টিভিসহ একাধিক টিভি চ্যানেলে। সম্প্রতি সংসদের নিম্নকক্ষে সাংস্কৃতিক উপদেষ্টার কাজ করতেন মিনা। আফগানিস্তানের নারীদের অধিকার নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লেখালেখি করতেন। তার নিজস্ব একটি ফেসবুক পেজও ছিল।

এ ঘটনার পর আফগানিস্তানের মানবাধিকার বিষয়ক আইনজীবী ও নারী অধিকার আন্দোলনকারী ওয়াঝমা ফ্রোঘ বলেন, ‘মিনা মঙ্গল ইতোপূর্বে তার জীবন নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন। এরপরও তার নিরাপত্তায় কোনো পদক্ষেপ নেয়নি কর্তৃপক্ষ। আমরা এর জবাব চাই।’