রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
মালয়েশিয়াস্থ বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের অর্থ সম্পাদকের বিদায়ী সংবর্ধনা  » «   জকিগঞ্জ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকে’র সাধারণ সভা ও নির্বাচন  সম্পন্ন  » «   যুক্তরাজ্যে চার ব্রিটিশ-বাংলাদেশী পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী  » «   লেবারের ধ্বস, ব্রেক্সিটেই ব্রিটেনের যাত্রা  » «   ব্যারিস্টার ইমনকে আওয়ামী সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক করার দাবি  » «   টানা চতুর্থ বার বিজয়ী হলেন ব্রিটিশ-বাংলাদেশী রুশনারা আলী  » «   পপলার এন্ড লাইমহাউজ আসনে লেবার পার্টির আপসানা বেগম বিজয়ী  » «   বাংলাদেশ এবং আমিরাতের জন্মগত মিল আছে  » «   বিয়ানীবাজার প্রগতি এডুকেশন ট্রাস্টের বিশেষ সাধারণ সভা সম্পন্ন  » «   ১৯টি স্বর্ণের মধ্যে ৯টি’ই মেয়েদের  » «   ব্রিটেন নির্বাচনে ব্রেক্সিট না মানবিকতা?  » «   ব্রিটিশ-বাংলাদেশী রুশনারা আলী আবারও এমপি হচ্ছেন!  » «   মিয়ানমারকে বয়কটের ঘোষণা ৩০ মানবাধিকার সংস্থার  » «   ভয়েস অব বার্সেলোনার সান্তা কলমা শাখা কমিটি ঘোষনা  » «   ৫২ বাংলা টিভির মধ্যপ্রাচ্য টকশো ‘প্রবাসি সংযোগ’  » «  

আফগানিস্তানে গুলিতে নারী সাংবাদিক নিহত



আগানিস্তানে মিনা মঙ্গল নামে এক নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা করেছে সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার (১১ মে) রাজধানী কাবুলে নিজ বাড়ির পাশে তাকে গুলি করা হয়। তিনি দেশটির একজন জনপ্রিয় টিভি উপস্থাপক এবং সংসদের উপদেষ্টা ছিলেন। খবর এএফপি।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নারী মুখপাত্র নাসরত রাহিমি জানান, বন্দুকধারী দুই ব্যক্তি মোটরসাইকেলে এসে তার উপর উপর্যুপরি গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে তদন্ত চলছে, তবে কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

নিহতের পরিবার জানিয়েছে, বাজারের ওই এলাকা থেকে প্রতিদিন সকালে মিনা অফিসে যান। সেখানেই তার গাড়ি আসে। হামলার সময়ও মিনা গাড়ির জন্যই অপেক্ষা করছিলেন। সেই সময়ে তার ওপর গুলি করা হয়। কী কারণে এই হামলা বা মিনার কোনো শত্রু ছিল কি না, সে ব্যাপারে কিছুই জানাতে পারেননি তারা।

জানা গেছে এক দশকেরও বেশি সময় সাংবাদিকতায় জড়িত ছিলেন মিনা। উপস্থাপনারও কাজ করছেন আরিয়ানা টিভি, সামশাদ টিভিসহ একাধিক টিভি চ্যানেলে। সম্প্রতি সংসদের নিম্নকক্ষে সাংস্কৃতিক উপদেষ্টার কাজ করতেন মিনা। আফগানিস্তানের নারীদের অধিকার নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লেখালেখি করতেন। তার নিজস্ব একটি ফেসবুক পেজও ছিল।

এ ঘটনার পর আফগানিস্তানের মানবাধিকার বিষয়ক আইনজীবী ও নারী অধিকার আন্দোলনকারী ওয়াঝমা ফ্রোঘ বলেন, ‘মিনা মঙ্গল ইতোপূর্বে তার জীবন নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন। এরপরও তার নিরাপত্তায় কোনো পদক্ষেপ নেয়নি কর্তৃপক্ষ। আমরা এর জবাব চাই।’