শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে স্পেনে দূতাবাসের বিশেষ আয়োজন  » «   পদ্মা সেতুর স্মারক নোট বাজারে আসবে রবিবার  » «   পদ্মা সেতুর জন্য অভিনন্দন বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির  » «   অদম্য বাংলাদেশ, খুলল পদ্মার দ্বার  » «   আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই: প্রধানমন্ত্রী  » «   রেমিটেন্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণে মাদ্রিদে মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে মায়ের কোল থেকে ভেসে গেল শিশু, ৫ জনের মৃত্যু  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


শারজাহ সরকারের শ্রমিক দিবসের বর্ণিল আয়োজনে বাংলাদেশ



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস উপলক্ষে শ্রমিকদের উৎসাহ ও অনুপ্রেরণা দেয়ার লক্ষে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহের আল সাজ্জা ইন্ডাস্ট্রিয়াল এরিয়াতে আয়োজন করা হয় শ্রমিক মেলার। শারজাহ সরকারের উদ্যোগে ও ইভেনটাইডস কোম্পানির সহযোগিতায় এই ৪ দিন ব্যাপী শ্রমিক মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পহেলা মে থেকে ৪ তারিখ সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে এই মেলা। মেলায় প্রতিদিন শারজাহ সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত হয়ে সব দেশের প্রবাসিদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেন।

বিনামূল্যে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরামর্শ প্রদান, শ্রমিকদের নিকট শ্রম বা শ্রমিক ও ইমিগ্রেশনের নিয়ম কানুন সম্পর্কে ধারণা প্রদান, বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক ও সমসাময়িক বিষয়ে সচেতনতামূলক পরামর্শ, প্রজেক্টের শো, সবাইকে নিয়ে বিনোদনমূলক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মেলার সমাপ্তি করা হয়। ছিলো খাবার ও বিভিন্ন সেবা প্রদানের জন্যে স্টল। প্রতিদিন লটারী তে নানা পুরস্কার জিতেন শ্রমিকেরা। শ্রমিক মেলার মূল উদ্দেশ্য ছিল শ্রমিকদের আনন্দ ও পরামর্শ প্রদান করা এবং সাথে শ্রম মান ও উন্নত করা।

৪ দিন ব্যাপী শ্রমিক মেলায় দেখা যায়, বাংলাদেশি, ভারতীয়, পাকিস্তানী ও নানা দেশের শ্রমিকদের ভিড়। আর নানা দেশি-বিদেশী শিল্পীদের পরিবেশনা সকল শ্রমিকদের মন কাড়ে। অন্যান্য দিন সব দেশের সাংস্কৃতিক পরিবেশনার থাকলেও মেলার চতুর্থ দিন বাংলাদেশের হয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন সংহতি আমিরাত। এতে পুঁথি পাঠ করেন সংহতি আমিরাতের সাধারণ সম্পাদক ও ছড়াকার লুৎফুর রহমান, গান পরিবেশন করেন সদস্য ও সংগীতশিল্পী শিপন কর্মকার। বাংলাদেশের ঢোলের আওয়াজে মেলা মাতান রাধা কান্ত ও দোতারার শুরে মন কাড়েন অসিত দাস। সব শেষে হুমায়ুন আহমেদ এর ঘেটু পুত্র কমলার একটি গানে নাচ পরিবেশন করেন সংহতির সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা ও নৃত্যশিল্পী তিশা সেন।

কাজ শেষে সবাই দল বেঁধে চলে আসে মেলায়, আর দিনের খাটনি শেষে ফিরে যায়, মুখে হাসি নিয়ে। এতেই আসল সফলতা খুঁজে পেয়েছেন বলে জানান ইভেন্ট কোম্পানির প্রধান য়াজির হামিদ।

সহনশীলতার বছর বা ‘ইয়ার অফ টলারেন্স’ কে সামনে রেখে প্রতিবছর এমন করে শ্রমিক মেলার আয়োজন করার ইচ্ছা আছে বলে জানান সরকারি কর্মকর্তারা।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন