রবিবার, ৩ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
বিলেতে কারী শিল্পে ঈদের ছুটি সময়ের দাবি  » «   ঈদের ছুটি  » «   ইউরোপে জ্বালানি সংকট চরমে, বিকল্প ভাবতে হচ্ছে ইউরোপকে  » «   হাইডে প্রবীণদের স্মরণে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল  » «   ঈদের দিন হোক সবার উৎসবের দিন  » «   ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হসপিটাল সিলেটের সার্টিফিকেট বিতরণী অনুষ্ঠিত  » «   নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশী সমিতি’ ইউকে’র যাত্রা শুরু  » «   ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


বইমেলায় ৫২ বাংলার বার্তা সম্পাদকের বইয়ের দ্বিতীয় সংস্করণ এসেছে



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এবারের একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয়েছে অঞ্চলভিত্তিক গণহত্যার প্রথম ছড়ার বই লাল সবুজের ছড়ার দ্বিতীয় সংস্করণ। লিখেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইপ্রবাসী একাত্তর টিভির আরব আমিরাত প্রতিনিধি, ৫২ বাংলা টিভির বার্তা সম্পাদক ছড়াকার লুৎফুর রহমান।

এ বিষয়ে লুৎফুর রহমান জানান, দীর্ঘ ১০ বছরের কাজের ফসল আমার এ বই। দেশে ছুটিতে গিয়ে প্রতিবছর এ কাজ করেচি। এ ছাড়া খেলাঘরের কর্মী থাকা অবস্থায় ‘খেলাঘর স্কুলে যায়/ মুক্তিযুদ্ধের গল্প শোনায়’ অনুষ্ঠান করতে গিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের গল্প শোনতে গিয়ে ভাবলাম, আমরা মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি কিন্তু আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম মুক্তিযোদ্ধাও দেখবে না। তাই গণহত্যার ইতিহাস এবং বিশেষ করে স্থানীয় রাজাকারদের কুকর্ম ছড়ার মাদ্যমে তুলে দেয়াতে বাচ্চারা এসব কাপুরষদের চিনে রাখবে। প্রতিটি দেশপ্রেমি নাগরিকের এই কাজ চালিয়ে যেতেও তিনি অনুরোধ জানান।’

সিলেট বিভাগের গণহত্যা নিয়ে রচিত লাল সবুজের ছড়া বইতে ছড়ায় ছড়ায় গণহত্যার ইতিহাস তুলেছেন তিনি। বইয়ের পৃষ্ঠা সংখ্যা ২০০। মোট ছড়া ১৪২টি। বইটি প্রকাশ করেছেন লন্ডনপ্রবাসী কবি-সাংবাদিক ও সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশনের নির্বাহী আনোয়ারুল ইসলাম অভি। প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ। ভূমিকা লিখেছেন লুৎফর রহমান রিটন। বইটির শেষাংশে সিলেট বিভাগের মুক্তিযুদ্ধের তৃণমূল স্মৃতিচিহ্ন প্রকাশ করা হয়েছে।

বইটি মেলায় সোহরার্দি উদ্যানে ৫৩৫-৫৩৬ চৈতন্যের স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া সিলেটে জসিম বুক হাউস ও অনলাইনে রকমারি ডটকম থেকেও পাওয়া যাবে।

বইয়ের ভূমিকায় লুৎফর রহমান রিটন লিখেছেন, মুক্তিযুদ্ধকালে সংগঠিত অঞ্চলভিত্তিক গণহত্যার ইতিহাস ছড়ায় ছড়ায় রচনার ক্ষেত্রে প্রথম প্রয়াস এই বই। আমাদের ছড়া সাহিত্যে নতুন এই উদ্যোগের প্রথম অভিযাত্রী হিসেবে লুৎফুরকে অভিনন্দিত করি অকুণ্ঠ চিত্তে। অনুজপ্রতিম ছড়া বন্ধু লুৎফুর রহমানের জন্য তিন উল্লাস।

উল্লেখ্য, লুৎফুর রহমান দুবাইয়ে মুকুল নামে একটি মাসিক পত্রিকা সম্পাদনা করেন। এছাড়া প্রবাসের নিউজ নামে প্রবাসি মুখপত্রের নির্বাহি সম্পাদক। তার পৈতৃক নিবাস সিলেটের বিয়ানীবাজারের নিদনপুরে।

এর আগে তার ছয়টি ছড়া গ্রন্থ, একটি ভ্রমণ ও একটি প্রামাণ্য গ্রন্থ বেরিয়েছে। তিনি লাল সবুজের ছড়া, বিয়ানীবাজারে গড়া বইয়ের জন্য শহীদ বুদ্ধিজীবী পদক ’১৫ পেয়েছেন।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন