বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
বৃটেনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত তাহমিনার অসাধারণ সাফল্য  » «   দুই বঙ্গকন্যা ব্রিটিশ মন্ত্রীসভায় স্থান পাওয়ায় বঙ্গবন্ধু লেখক এবং সাংবাদিক ফোরামের আনন্দ সভা ও মিষ্টি বিতরণ  » «   কেয়ার হোমের লাইসেন্স বাতিলের বিরুদ্ধে আইনী লড়াইয়ে ল’ম্যাটিক সলিসিটর্সের সাফল্য  » «   যুক্তরাজ্যে আবারও চার ব্রিটিশ-বাংলাদেশী  পার্লামেন্টে  » «   আমি লুলা গাঙ্গ : আমার আর্তনাদ কেউ  কী শুনবেন?  » «   বাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রতিবাদে লন্ডনে ইউনিভার্সেল ভয়েস ফর হিউম্যান রাইটসের সেমিনার অনুষ্ঠিত  » «   লন্ডনে বাংলা কবিতা উৎসব ৭ জুলাই  » «   হ্যাকনি সাউথ ও শর্ডিচ আসনে এমপি প্রার্থী শাহেদ হোসাইন  » «   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই ইন দ্য ইউকে’র সাথে ঢাবি ভিসি প্রফেসর ড. এএসএম মাকসুদ কামালের মতবিনিময়  » «   মানুষের মৃত্যূ -পূর্ববর্তী শেষ দিনগুলোর প্রস্তুতি যেমন হওয়া উচিত  » «   ব্যারিস্টার সায়েফ উদ্দিন খালেদ টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নতুন স্পীকার নির্বাচিত  » «   কানাডায় সিলেটের  কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলমকে সংবর্ধনা ও আশার আলো  » «   টাওয়ার হ্যামলেটসের নতুন লেজার সার্ভিস ‘বি ওয়েল’ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন মেয়র লুৎফুর রহমান  » «   প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী এমপির সাথে বিসিএর মতবিনিময়  » «   সৈয়দ আফসার উদ্দিন এমবিই‘র ইন্তেকাল  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

সেহরিতে জনগণকে জাগানোর উদ্দেশ্যে ফাইটার জেট উড়াবে ইন্দোনেশিয়া



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ইন্দোনেশিয়ার এয়ার ফোরস্ থেকে জানানো হয় তারা এবার এ ব্যাতিক্রমী উদ্যোগের দ্বারা দেশের এই ট্রেডিশনে যোগদান করবে।

যুক্তিমূলক অনেকগুলো বিষয় মাথায় রেখে এ সিদ্ধান্ত নেয় সেদেশের এয়ার ফোরস্। মেডিক্যাল এক্সপার্টসদের মতে, রমজানে ভোর সময়টাও ফাইটার পাইলটদের প্লেন চালনার জন্য উপযুক্ত সময়। কেননা রোযা অবস্থায় লো ব্লাড সুগার লেভেল পাইলটদের যাত্রার জন্য অনেক ঝুঁকিপূর্ণ।

এয়ার ফোর্সের বরাত দিয়ে কর্নেল সুস এম য়ুরিস জানান, ‘এটি একটি সংযুক্ত মিশন যেটির মাধ্যমে জনগনকে সেহরিতে জাগিয়ে দেওয়ার সাথে সাথে আমাদের পাইলটদের ট্রেনিং পিরিওড সম্পাদন করা হবে।

সেহরির সময়, পাইলটরা শহরের আকাশজুড়ে  আফটার বার্নার ব্যবহার করে উড্ডয়ন করবে যার দরুন অনেক শব্দের সৃষ্টি হবে।’

উল্লেখ্য, কয়েক বছর আগেও একই ধরনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল সেদেশে। সেসময় এয়ারক্রাফট হিসেবে ব্যাবহার হয়েছিল লো ফ্লাইং ফাইটার এয়ারক্রাফট এফ-১৬ এবং টি-৫০আই জেট।

টুইটারের মাধ্যমে সেদেশের এয়ার ফোরস্ @_TNIAU জানায়, ‘সেহরির সাথে আমাদের প্রধান উদ্দেশ্যে হচ্ছে আমাদের কমব্যাট পাইলটদের প্রফেশনালিজম যেন বজায় থাকে যাতে তারা যেকোন সময় বহিঃশত্রুর আক্রমন মোকাবিলা করতে পারে।’

ব্যাতিক্রমি এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে সেদেশের জনগণ। 

সূত্র: দি জাকার্তাপোষ্ট


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন