শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


এ্যাওয়ারনেস সভার মাধ্যমে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিশ্ব ক্যান্সার দিবস পালন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

৪ ফেব্রুয়ারি “বিশ্ব ক্যান্সার দিবস”, প্রাণঘাতী ক্যান্সার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিশ্বব্যাপী পালিত হচ্ছে দিবসটি। প্রতি বছর ক্যান্সার সচেতনতা মূলক নানাবিধ কর্মসূচি বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল দিবসটি পালন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় হাসপাতালের কনফারেন্স হলে চিকিৎসক, জনপ্রতিনিধি, স্বাস্থ্যকর্মী, সংবাদকর্মী সহ সামাজিক বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার প্রতিনিধি দলকে নিয়ে বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

Close the care gap’’ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে এবং হাসপাতালের  সিইও ও এমডি এম সাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভা পূর্র্বনির্ধারিত সূচী অনুযায়ী দুপুর ২টায় আরম্ভ হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল এডভাইজার, সিলেটের সাবেক সিভিল সার্জন ডা: ফয়েজ আহমেদ।

প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের নিয়মিত ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ, সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ক্যান্সার বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, বিশিষ্ট্য ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডা: মো. এস্তেফসার হোসাইন।

সভায় হাসপাতালের পক্ষ থেকে ক্যান্সারের সচেতনতামূলক একাধিক ভিডিও চিত্র ও তথ্য পরিক্রমা ডিজিটাল স্ক্রিনের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয়।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন “ক্যান্সার প্রতিরোধে মানুষের মনে ক্যান্সার নিয়ে যে আতঙ্ক তা দূর করতে হবে, এবং ক্যান্সারের বিরুদ্ধে সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ক্যান্সার সচেতনতাকে সামাজিক আন্দোলনে রুপ দিতে হবে”। উক্ত আলোচনা সভার প্রধান আলোচক তাঁর বক্তব্যে ক্যান্সার সচেতনতা ও চিকিৎসায় সামাজিক বৈষম্য দূরীকরণ এবং যার যার অবস্থান থেকে ক্যান্সার সচেতনতা ও চিকিৎসায় অবদান রাখার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

হাসপাতালের  সিইও ও এমডি এম সাব উদ্দিনের আরো বলেন যে, ক্যান্সার চিকিৎসায় দেশে পর্যাপ্ত ক্যান্সার বিশেষায়িত হাসপাতাল ও সেবা কেন্দ্রের অপ্রতুলতায় ক্যান্সার সচেতনতার কোন বিকল্প নেই।

আলোচনা সভায় বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি  বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান, বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভাইস চেয়ারম্যান সুহেল খান, হাসপাতালের অন্যতম ট্রাস্টি আলহাজ্ব বাজিদুর রহমান, হাসপাতালের সমন্বয়ক, বাংলাদেশ মানবাধিকার সংস্থা সিলেট মহানগরের সভাপতি জাকির হোসেন খান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব লুৎফর রহমান, বিয়ানীবাজার জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি, সাংবাদিক আহমেদ ফায়সাল, বিয়ানীবাজার প্রেস ক্লাবের ক্রীড়া সম্পাদক এহসান করিম খোকন, বাংলাদেশ পল্লী চিকিৎসক এ্যাসোসিয়েশন বিয়ানীবাজার শাখার সভাপতি হযরত আলী সহ সংগঠনের নেতৃস্থানীয় পল্লী চিকিৎসক বৃন্দ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের আরএমও ডা: মো. মোরশেদ আলম, মেডিক্যাল অফিসার ডা: ইফতেখার উল ইসলাম, ডা: মাহমুদুর রহমান পাপলু, ডা: সানজিদা সিদ্দিকা লিজা সহ হাসপাতালের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ, ইউকে ভিত্তিক স্যাটেলাইট টিভি  চ্যানেল এস ও স্থানীয় অনলাইন সম্প্রচার মাধ্যম, এবি টিভি, টাইম্‌স টিভি, জনতার টিভি-র প্রতিনিধিবৃন্দসহ স্থানীয় সংবাদ কর্মী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

বিশেষ অথিতিবৃন্দ তাঁদের বক্তব্যে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের সেবা কার্যক্রমের প্রশংসা করেন এবং এই ধরণের সামাজিক সচেতনতামূলক কার্যক্রমকে সমাজের সকল স্থরে প্রতিষ্ঠিত করতে হাসপাতালের সাথে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস ব্যক্ত করেন। তারা বলেন ক্যান্সার প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতার কোন বিকল্প নেই।

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন