বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কেসি সলিসিটর্সের দশক পূর্তি উদযাপন  » «   বঙ্গবন্ধু স্কলারশিপ আন্তর্জাতিক অঙ্গণে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রতিচ্ছবি  » «   লীলা নাগের স্মৃতি রক্ষায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উদ্যোগ নেবে  » «   ফুসফুস-ক্যান্সার পরীক্ষার জন্য মাইল এন্ড লেজার সেন্টারে স্থাপন করা হচ্ছে বিশেষ ‘স্ক্রিনিং মেশিন’  » «   অলি-মিঠু-টিপু প্যানেলের পরিচিতি ও ইশতেহার ঘোষণা  » «   ২০ নভেম্বর লন্ডনের রয়েল রিজেন্সিতে ৫ম বেঙ্গলী ওয়েডিং ফেয়ার  » «   একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির যুক্তরাজ্য শাখা গঠিত  » «   টি আলী স্যার ফাউন্ডেশন সম্মাননা পেলেন সিলেটের ২৪গুণী শিক্ষক  » «   নওয়াগ্রাম প্রগতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ফুল, ফল ও ঔষধি বৃক্ষরোপণ  » «   আলোকিত মানুষ শিক্ষক মো. সমছুল ইসলাম এর ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী  » «   সিলেটের বিয়ানীবাজারে একটি পরিত্যক্ত কূপে তাজা গ্যাসের মজুদ আবিষ্কৃত  » «   বাংলাদেশী কারী  ব্রিটেনের প্রবৃত্তি ও খাবার সংস্কৃতিতে অনন্য  অবদান রাখছে  » «   পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় নারীবাদের প্রতিবন্ধকতা  » «   রিষি সুনাক এশিয়ান বংশদ্ভোত, কনজারভেটিভ এবং ধনীদের বন্ধু  » «   গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাব নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টিকারীদের ব্যাপারে সতর্ক থাকার আহবান  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


‘করি পণ-আজীবন সৎ পথে চলবো’-একটি অনুকরণীয় উদ্যোগ



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

শিক্ষা , লেখক ও সামাজিক অনুপ্রেরণাবান্ধব  চ্যারিটি প্রতিষ্ঠান সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে কোমলমতি ও এতিম শিক্ষার্থীদের সৃজনশীলকাজে উদ্ধুদ্ধকরণ এবং একটি দিন তাদের জন্য আনন্দময় করে রাখতে একটি ব্যতিক্রমি উদ্যোগ নিয়েছে।

অন্ধকারে আলো শ্লোগাণ নিয়ে কাজ করা সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশন বড়লেখা উপজেলার লিচুবাগান নুরানি তালিমুল কোরআন ইসলামি  একাডেমি  ও এতিমখানায় অর্ধশত   শিক্ষার্থীদেরকে   তাদের পছন্দের দুপুরের খাবার ও সৃজনশীলকাজে ব্যবহার উপযোগী ডায়েরি ও কলম উপহার দেয়া হয়।

১০ নভেম্বর বুধবার একাডেমি হলরুমে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের শিরোনাম ছিল- ‘করি পণ- আজীবন সৎ পথে চলবো।’

মূলত শিক্ষকদের মাধ্যমে, প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি মৌলিক ও সৃজনশীল শিক্ষার গুরুত্ব এবং ব্যক্তি জীবনে কীভাবে  একজন সৎ ও মানবিক মানুষ হিসাবে নিজেকে তৈরী করতে হবে – এই আলোকে শিক্ষার আদেশ- নিষেধ ও উপদেশ ইত্যাদি বিষয়ে ছাত্রদের অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্যের মাধ্যমে তাদেরকে জাগরিত করা হয়।

একাডেমির শিক্ষক  মাওলানা সাইফুর রহমানের সঞ্চালনায় একাডেমির সুপার মাওলানা মঈনুল ইসলামের সভাপিত্বে প্রধান অতিথি  ছিলেন -গোলাপগঞ্জ  ফুলবাড়ি ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার সাবেক প্রিন্সিপাল মাওলানা ইব্রাহীম আলী ।

প্রধান অতিথি  অনুপ্রেরণাদায়ী মহতি কাজের প্রসংশা করে বলেছেন- সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশনের   এই উদ্যোগটি অন্যান্যদের জন্য  হতে পারে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত। এই ফাউন্ডেশন  শিক্ষা ও শিক্ষক বান্ধব নানা কাজ সহ বৃক্ষরোপন এবং মানবিক কাজ করে আসছে।

বিশেষ করে তুলনামূলক সুবিধা বঞ্চিত এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মনে সততা ও অনুপ্রেরণা  জাগবে এবং বড় হলে তাদের  ব্যক্তি জীবনে  জাগরণ ঘটাবে বলে বিশ্বাস করি।

তিনি এই শিক্ষাবান্ধব কাজের জন্য সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশন কে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন,  এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের জন্য আজ  একটি বিশেষ দিন- আনুষ্ঠানিক অনুপ্রেরণায় এখান যে ছাত্ররা স্বপ্ন দেখতে শিখবে- শিক্ষক- লেখক, কবি –সাহিত্যিক হতে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি  ছিলেন লিচুবাগান নুরানি তালিমুল কোরআন ইসলামি  একাডেমি  ও এতিমখানায় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি  ডা: আব্দুন নূর, মাওলানা মিজানুর রহমান, মাওলানা সাইফুর রহমান, হাফিজ মাওলানা আব্দুল খালিক।

বিশেষ অতিথিবৃন্দ  তাদের বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশে শিক্ষার হার বাড়ছে ঠিক। কিন্তু সৎ ও মানবিক মানুষের সংখ্যা বাড়ছে না। ’করি পণ-আজীবন সৎ পথে চলব’- শিরোনামের সৃজনশীল ও প্রেরণামূলক এই উদ্যোগটি  অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়িয়ে দিতে পারলে শিশুকাল থেকে শিক্ষার্থীরা নিজেকে নিয়ে ভাবতে এবং মানবিক কাজে সম্পৃক্ত হতে অনুপ্রাণীত হবে ।

বক্তারা  এই শিক্ষাবান্ধব কাজের জন্য সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশন কে ধন্যবাদ  দিয়ে বলেন,  এই  উদ্যোগে শিক্ষার্থীরা লেখাপড়ায় আরও মনযোগী হবে।  একদিন এখান থেকেও বেরিয়ে আসতে পারে  লেখক, কবি -সাহিত্যিক।

ফাউন্ডেশনের কো-অর্ডিনেটর সাংবাদিক মো:ইবাদুর রহমান জাকির লিচুবাগান নুরানি তালিমুল কোরআন ইসলামি  একাডেমি  ও এতিমখানাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন ,ভালো কাজে অনুপ্রেরণা এবং শিক্ষাজীবনে নিজের ভবিষ্যত স্বপ্ন নিয়ে চর্চার জন্য   এতিম  অর্ধশত শিক্ষার্থীদের হাতে ডায়েরি -কলম তুলে দিতে পেরে  আমরা খুশি।

এদিকে শিক্ষার্থীরাও  ব্যতিক্রমধর্মী এই প্রেরণামূলক কাজে সম্পৃত হয়ে নিজেদের আনন্দ ও তৃপ্তির কথা জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, নিজের স্বপ্ন ও মানবিক চর্চা নিয়ে আগে তারা এভাবে ভাবেননি। এই সুযোগ পেয়ে তারা খুব খুশী।

পরে খতমে খাজেগান পড়ে সমছুল -করিমা ফাউন্ডেশনের সংশ্লিষ্ট ও বিশ্বের সকল বঞ্চিত- নিপীড়িত মানুষের  সুস্থতা ও কল্যাণ কামনা  এবং  মৃত্যুবরণকারীদের পরকালীন শান্তি কামনা করেন মোনাজাত পরিচালনা করেন গোলাপগঞ্জ  ফুলবাড়ি ফাজিল ডিগ্রী মাদ্রাসার সাবেক প্রিন্সিপাল মাওলানা ইব্রাহীম আলী।

প্রসঙ্গত  অন্ধকারে আলো শ্লোগাণ নিয়ে  ২০০৪ সাল থেকে  সমছুল-করিমা ফাউন্ডেশন  বিভিন্ন  মানবিক , শিক্ষা- শিক্ষক সম্পর্কিত এবং  সমাজসেবামূলক কাজ  ধারাবাহিকভাবে  নিদৃষ্ট  প্রকল্পের মাধ্যমে  করছে। ‘মানবিক স্বজন‘ এর   আওতায়  নিভৃতে  বঞ্চিত ও দুস্থ মানুষের  ঘরে খাবার সামগ্রী বিতরণ।  ‘সবুজে হাসি  সবুজে বাঁচি’ প্রকল্পের মাধ্যমে  অস্বচ্ছল ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  ফলদ ও ঔষধি বৃক্ষ রোপন, মৌলিক ও সৃজনশীল প্রকল্প- ’সৃষ্টি ঘর’ এর আওতায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চিত্রাঙ্কন ও সাহিত্য -সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা  এবং প্রতিশ্রুতিশীল লেখকদের বই প্রকাশ, পবিত্র রমজান মাসে নিন্মবিত্ত  পরিবারের জন্য ‘হাসি মুখে ইফতার’, প্রবীন অসহায়দের জন্য –’প্রশান্তির হাসি’,  কৃষক ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য   ‘আমার স্বপ্ন’  প্রকল্পের মাধ্যমে তৃণমূলে  কাজ করে আসছে।

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন