বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


একটি সামাজিক উদ্যােগ অসহায় পরিবারকে নতুন করে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখাচ্ছে



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে প্রতিবন্ধী রুবেল মিয়াকে নিয়ে সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম (ফেসবুকে) সাহায্যের জন্য একটি পােস্ট দেন সৈয়দ মিজান উদ্দিন পলাশ।

ফেসবুকের পােস্টে দেশ ও প্রবাস থেকে অনেকে ব্যাক্তি সাড়া দিয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন। মানবিক মহৎ কাজে সাড়া দিয়ে অর্থ পাঠাতে থাকেন মানবিক মানুষজন।

তাঁদের দেওয়া অর্থ সাহায্য অসহায় প্রতিবন্ধী রুবেলের পরিবার দুটি টমটম, একটি সেলাই মেশিন ও রুবেলের বাবাকে একটি টং দােকান করে দেওয়া হয়েছে।

আর এভাবেই একটি সামাজিক উদ্যাগে অসহায় পরিবারকে নতুন করে বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখিয়েছে। রুবেলের বড় বােন ও প্রতিবন্ধী ছিলো। সে মারা গেছে কয়েক বছর পূর্বে।

আরেক বােনের বিবাহ হয়েছিল স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। রুবেলের বাবা এক সময় একটি এনজিওতে চাকরি করতেন। অনেক বছর পূর্বে চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন। নিজদের কােন বাড়ী-ঘর নাই। আত্মীয়ের বাড়িতে চেয়ে থাকেন।

শত অভাব অনটনের মাঝে থাকেলও রুবেলের বাবা তাই ইচ্ছা করলেই কারাে কাছে হাত পাততে পারেন না। তাদের দূর্দশা ও অসহায়ত্ব সবাই দেখেন দূর থেকে। কিন্তু কেউ নিজ থেকে এগিয়ে আসেন না।

তাদের দূর্দশা দিন দিন চরম অবস্থায় পৌছে যায়। এমন অবস্থায় একজন উপকারী যুবক সৈয়দ মিজান উদ্দিন পলাশ ফেসবুক পােস্ট দিয়ে একটি সামাজিক উদ্যাগ গ্রহন করে অসহায় পরিবারটির পাশে দাড়িয়েছেন।

এ উপলক্ষেে মঙ্গলবার (১৪ সপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় স্থানীয় কামালখানী হাসান মঞ্জিলে এক সভা অনুষ্টিত হয়।

বানিয়াচং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা পারভীন আক্তারের সভাপতিত্বে ও সাংবাদিক ইমদাদুল হােসেন খানের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউএনও পদ্মাসন সিংহ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযােদ্ধা হায়দারুজ্জামান খান (ধন মিয়া), প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মলয় কুমার দাশ, সাবেক ছাত্রনেতা নকীব ফজলে রকিব মাখম, প্রেসক্লাব সভাপতি মােশাহেদ মিয়া, ছান্দ সর্দার আরজু মিয়া, ইউপি সদস্য মখলিছ মিয়া, এডঃ আছাদুজ্জামান খান তুহিন, সৈয়দ পলাশ মিজান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন খলিলুর রহমান, সঙ্গীত শিল্পী একে আজাদ, সমাজসেবী জসিম উদ্দিন, সাংবাদিক মখলিছ মিয়া, আনােয়ার হােসেন, আল আমিন খান, আক্তার হােসেন আলহাদী, এসকে রাজ, তাসকির হােসেন সাগর, ইউপি সদস্য মােবারক মিয়া, মিজানুর রহমান প্রমূখ।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন