শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কারী ইন্ড্রাস্টির সংকট মোকাবেলায় দরকার সমন্বিত উদ্যোগ  » «   বিবিসি প্রকাশ করেছে উইঘুর নির্যাতন নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন  » «   মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ আরও ২ দেশে: বেলজিয়ামে ২১ দিনের কোয়ারেন্টিন ঘোষণা  » «   শুধুই নারীদের পরিচালনায় প্রথম সৌদি আরবের আকাশে উড়ল ব্যতিক্রমী ফ্লাইট  » «   গোলাপগন্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী এলিম চৌধুরী’র মতবিনিময়  » «   দুদকের মামলায় হাজী সেলিম কারাগারে  » «   নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও রাশিয়ার মুদ্রা রুবল’র উত্থান  » «   কারী শিল্পের সংকট মোকাবেলায় সিবিআই প্রেসিডেন্টের কাছে  বিসিএ’র পাঁচ দাবী উপস্থাপন  » «   গোলাপগঞ্জে ভোটার হাল নাগাদ শুরু  » «   বার্সেলোনায় মাদারীপুর সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী  » «   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসায় স্পেনের প্রেসিডেন্ট  » «   আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর চিরবিদায়  » «   ইতালির জেনোভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান  » «   বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে‘র দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও সম্মেলন অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিয়ানীবাজারের  হাজি ইলিয়াছ আলী মাস্টার আর নেই
জানাজা ফিলাডেলফিয়ার  টাইসন জামে মসজিদে বাদ জুম্মা



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সিলেট  বিয়ানীবাজার উপজেলার প্রবীন শিক্ষক  যুক্তরাষ্ট্র  প্রবাসী হাজি ইলিয়াছ আলী মাস্টার গত ৯ সেপ্টেম্বর, বৃহম্পতিবার  আমেরিকার ফিলাডেলফিয়ার নিজ বাসায়  শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেছেন।  ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন ।

তিনি বেশ কিছুদিন থেকে বার্ধ্যক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর।  তার  বাড়ি বিয়ানীবাজার পৌরসভাস্থ  শ্রীধরা গ্রামে।

মরহুম হাজি ইলিয়াছ আলী মাস্টার দীর্ঘ ৩০ বছর বিয়ানীবাজারের বড়দেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রায় ৩ বছর থেকে তিনি  যুক্তরাষ্ট্রে ফিলাডেলফিয়ায় পরিবারের সাথে স্থায়ীভাবে  বসবাস করছিলেন।

প্রবীন শিক্ষক হাজি ইলিয়াছ আলীর জানাজা (আজ) ১০ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার  বাদ জুম্মা ফিলাডেলফিয়ার  টাইসন জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। পরে তাকে সিনামন  কবরস্থানে দাফন করা হবে।

মৃত্যুকালে তিনি  স্ত্রী, ৫ ছেলে , ২ মেয়ে, নাতি-নাতনি সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তার অনেক শিক্ষার্থী দেশ- বিদেশে নানা আলোকিত অবস্থানে থেকে সমাজে আলো ছড়াচ্ছেন।  দেশে থাকাকালীন সময়ে তিনি  দারুস ছালাম জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও জনহিতকর কাজে জড়িত ছিলেন।

ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত সহজ সরল, পরোপকারী ও সজ্জন হিসাবে পরিচিতি।

এদিকে মরহুমের পরকালীন শান্তি কামনা করে সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন  তার ছেলে যুক্তরাজ্যবাসী মো. আব্দুল বাতিন।

 

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন