সোমবার, ১০ মে ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
যুক্তরাস্ট্র প্রবাসী সাংবাদিক এম সিন উদ্দিন মারা গেছেন  » «   আয়োজন হোক দরিদ্রের উপকারে, বিতরণ হোক লোকচক্ষুর আড়ালে  » «   ওয়ারিংটনে প্রথম বাংলাদেশী বংশদ্ভোত কাউন্সিলার মোয়াজ্জেম হোসেন  » «   বড়লেখা ফ্রেন্ডস ক্লাব ইউকে’র দু:স্থ ও সুবিধা বঞ্চিতদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ  » «   স্কটিশ পার্লামেন্টে প্রথম বাংলাদেশী বংশদ্ভোত এমপি ফয়সল চৌধুরী  » «   সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমানের ‘ইয়েস ফর মেয়র’ বিজয়ী    » «   উপজেলার ৮৮০ জনকে বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকে’র ৯ লক্ষ টাকা ঈদ উপহার  » «   হুমকির মুখে গ্রীষ্মের ব‍্যবসা :যুক্তরাজ্যের অনিরাপদ  তালিকায় স্পেনের ক‍্যানারিয়া দ্বীপপুঞ্জ  » «   বানিয়াচংয়ে বোরো ধান সংগ্রহের উদ্বোধন  » «   গোলাপগঞ্জে ছাত্রদলের উদ্যোগে বেগম খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় দোয়া ও ইফতার মাহফিল  » «   বড়লেখা ফাউন্ডেশন ইউকে এর ইফতার বিতরণ  » «   ডুমুরিয়ায় মৎস্য চাষীদের মাঝে চিংড়ি খাদ্য ও সরঞ্জামাদি বিতরণ  » «   বাংলাদেশ থেকে কৃষি শ্রমিক নিতে গ্রিসের আগ্রহ প্রকাশ  » «   বিয়ানীবাজার ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইউকের মাথিউরা ইউনিয়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  » «   শুক্রবার ইতালীতে ন্যাশনাল কাফ ইসলামিক ট্যালেন্ট শো’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন  » «  

গোসলের ভিডিও ধারণ নিয়ে কথা কাটাকাটি: ভাতিজার হাতে প্রাণ গেল চাচীর



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    68
    Shares

নেত্রকোণা জেলার কলমাকান্দা উপজেলায় ভাতিজার আঘাতে আহত চাচী পঞ্চাশোর্ধ রহিমা আক্তার মারা গেছেন। ওই ঘটনায় নিহতের স্বামী, ছেলে,মেয়েসহ তিনজন কলমাকান্দা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকালে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত অবস্থায় নিহতের স্বামী বজলুর ইসলাম, ছেলে আবুল কাশেম, মেয়ে নার্সিছ আক্তার ও সেলিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গত রোববার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে উপজেলার রংছাতি ইউনিয়নের বিশাউতি গ্রামে এ হামলার ঘটনাটি ঘটে।

নিহতের স্বামী বজলুর ইসলাম ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত (১৮ এপ্রিল) রবিবার দুপুরে উপজেলার রংছাতি ইউনিয়নের বিশাউতি গ্রামের মো. বজলুর ইসলামের মেয়ে নার্গিছ (২০) গোসল করতে যান। এ সময় বাথরুমের টিনের ছিদ্র দিয়ে বজলুর ইসলামের আপন ভাতিজা রুবেল মিয়া মোবাইলে ভিডিও ধারণ করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে রাত ৭টার দিকে বজলুর ইসলামের ছেলে আবুল কাশেম রুবেলকে ভিডিও ধারণের বিষয়টি জিজ্ঞেস করেন। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এ সময় তাজুল ইসলামের স্ত্রী শাহারা খাতুন ও তিন ছেলে বাবুল মিয়া, রুবেল মিয়া ও সোহেল মিয়া লাঠিসোটা নিয়ে বজলুর ইসলাম, তার স্ত্রী রহিমা আক্তার, ছেলে আবুল কাশেম, মেয়ে নার্গিস আক্তার ও সেলিনার উপর হামলা চালায়। পরে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় রহিমা আক্তারসহ তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।

এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মনিরুজ্জামান রহিমা আক্তারের অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সোমবার বিকালে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রহিমার মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় নিহতের স্বামী, ছেলে,মেয়েসহ তিনজন কলমাকান্দা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

কলমাকান্দার বিশরপাশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সাব ইন্সপেক্টর মো. মোক্তার হোসেন ৫২ বাংলাটিভি কে বলেন, এ ঘটনার পর থেকে আসামিরা পলাতক রয়েছে। নিহতের লাশ ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে সোমবার রাতে কলমাকান্দার বিশাউতি গ্রামে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে । ইতিমধ্যেই পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 68
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    68
    Shares