বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


লেবাননের পরিস্থিতি ভয়াবহ: প্রবাসী বাংলাদেশীরা আংতকের মাঝে



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

লেবাননের পরিস্থিতি দিন দিন ভয়বহতার দিকে যাচ্ছে, প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাই আংতকের মাঝে জীবন যাপন করছে। দীর্ঘ ১৮ মাস ধরে চলছে এই বিক্ষোভ, একের পর এক আন্দলোন সব মিলিয়ে লেবানন অসহায় প্রবাসী বাংলাদেশীরা ভালো নেই, অনেক কষ্টের মাঝে জীবন যাপন করছে ।

লেবানন প্রবাসী বাংলাদেশীরা ধৈর্য হারা হয়ে গেছে, না পারছেন দেশে যেতে না পােছে কাজ করে বাবা মাকে টাকা পাঠাতে। পিতা-মাতা-স্বজনরা অপেক্ষায় আছে, কখনেলেবানন প্রবাসীরা ফিরে আসবে, আবার অন্যদিকে প্রবাসীরা আশায় আছে আবারও ফিরবে লেবননের পুরনো সেই দিন।

এদিকে, টানা ছয় দিন (রবিবার পর্যন্ত) থেকে লেবাননে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। লেবাননের তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব দায়িত্ব থেকে নিজে অব্যাহতি নেয়ার কথা বলেছেন । এতে বিক্ষোভ আরো জোরদার হয়েছে।
কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, টায়ার ও আসবাবাপত্রের টুকরায় আগুন ধরিয়ে দিয়ে সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন বিক্ষোভকারীরা।

জানা গেছে, অর্থনৈতিক সঙ্কট ও বেকারত্বের প্রতিবাদে বৈরুতে রাস্তায় নেমে আসেন শত শত মানুষ। মূলত ডলারের বিপরীতে লেবানিজ মুদ্রার মান আশঙ্কাজনক হারে কমে যাওয়ার জেরে এই বিক্ষোভের সূত্রপাত।
লেবাননের রাজধানীতে ব্যাংকিং সমিতির সামনে বিক্ষোভকারীদের একটি ছোট্ট দল তাদের আমানত পাওয়ার দাবি জানিয়েছে। নিজেদের ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশের জন্য তারা সেখান থেকে পার্লামেন্ট ভবনের দিকে পদযাত্রা শুরু করে।আল-জাজিরার ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈরুতের মার্টারস স্কয়ারে অন্তত ৫০ জন বিক্ষোভকারী টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখান।

একজন বিক্ষোভকারী কেঁদে কেঁদে বলেন, আমাদের প্রত্যেকের ঘাড়ের ওপর চার-পাঁচজন সন্তানের ভরণপোষণের দায় আছে। এছাড়া পরিবারে বাবা-মা তো আছেই। তাদের (দুর্নীতিবাজ রাজনীতিবিদ) উচিত আমাদের খাওয়ানোর দায়িত্ব নেওয়া।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন