শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কারী ইন্ড্রাস্টির সংকট মোকাবেলায় দরকার সমন্বিত উদ্যোগ  » «   বিবিসি প্রকাশ করেছে উইঘুর নির্যাতন নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন  » «   মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ আরও ২ দেশে: বেলজিয়ামে ২১ দিনের কোয়ারেন্টিন ঘোষণা  » «   শুধুই নারীদের পরিচালনায় প্রথম সৌদি আরবের আকাশে উড়ল ব্যতিক্রমী ফ্লাইট  » «   গোলাপগন্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী এলিম চৌধুরী’র মতবিনিময়  » «   দুদকের মামলায় হাজী সেলিম কারাগারে  » «   নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও রাশিয়ার মুদ্রা রুবল’র উত্থান  » «   কারী শিল্পের সংকট মোকাবেলায় সিবিআই প্রেসিডেন্টের কাছে  বিসিএ’র পাঁচ দাবী উপস্থাপন  » «   গোলাপগঞ্জে ভোটার হাল নাগাদ শুরু  » «   বার্সেলোনায় মাদারীপুর সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী  » «   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসায় স্পেনের প্রেসিডেন্ট  » «   আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর চিরবিদায়  » «   ইতালির জেনোভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান  » «   বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে‘র দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও সম্মেলন অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

নিউজ কনটেন্ট নিয়ে ফেসবুকের সমঝোতায় অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে ঐতিহাসিক আইন পাশ



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সংবাদ আধেয় প্রকাশের জন্য স্থানীয় গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানকে ফেসবুক-গুগলের মতো বৈশ্বিক প্রযুক্তি জায়ান্টদের অর্থ দেওয়ার বিধি রেখে আইন পাস করেছে অস্ট্রেলিয়া। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার(২৫ ফেব্রুয়ারী) অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্ট আইনটি পাস করে। এই আইন পাসের ফলে ফেসবুক-গুগল তাদের প্ল্যাটফর্মে অস্ট্রেলিয়ার স্থানীয় সংবাদ আধেয় প্রকাশের জন্য সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানকে অর্থ দেবে।

আইনটিকে ঐতিহাসিক হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। কারণ, এমন আইন বিশ্বে এই প্রথম। এখন অন্যান্য দেশেও একই ধরনের আইন করা হতে পারে। ইতিমধ্যে কানাডাও জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার মতো পদক্ষেপ তারাও নেবে।

প্রথমে আইনটির তীব্র বিরোধিতা করেছিল ফেসবুক ও গুগল। এমনকি এই আইনকে কেন্দ্র করে সরকারের সঙ্গে বিরোধের জেরে গত বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ায় সব সংবাদ আধেয় ‘বন্ধ’ করে দেয় ফেসবুক। পরে অস্ট্রেলিয়া সরকারের সঙ্গে ফেসবুকের সমঝোতা হয়। সমঝোতার পরিপ্রেক্ষিতে ফেসবুক গত মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ায় সংবাদ আধেয় চালুর সিদ্ধান্ত নেয়।

মূলত সমঝোতার আলোকে আইনে সংশোধনী এনে তা গতকাল অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধি পরিষদে পাস করা হয়। তার আগে গত সপ্তাহে সিনেটে আইনটি পাস হয়।

অস্ট্রেলিয়া সরকার বলছে, ‘নিউজ মিডিয়া অ্যান্ড ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মস ম্যান্ডাটরি বার্গেনিং কোড’ নামের এই আইন সংবাদ ব্যবসার জন্য ন্যায্য পারিতোষিক নিশ্চিত করবে। আইনটি অস্ট্রেলিয়ায় জনস্বার্থ সাংবাদিকতাকে টিকিয়ে রাখতে সহায়তা করবে।

নতুন আইনে সংবাদ আধেয়র জন্য অর্থ পরিশোধের বিষয়ে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে স্থানীয় গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর দর-কষাকষির সুযোগ আছে। আলোচনা ব্যর্থ হলে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানকে স্বাধীন সালিসে নেওয়ার সুযোগ আছে।

নতুন আইনের ফলে স্থানীয় সংবাদ আধেয়সংক্রান্ত চুক্তির আওতায় ফেসবুক ও গুগলের কোটি কোটি ডলার অর্থ বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হয়েছে। এই মডেল অন্যত্রও চালু হওয়ার পথ খুলল।

গুগলের শোকেসে যেসব সংবাদ আধেয় প্রদর্শিত হবে, তার জন্য তারা এখন অর্থ পরিশোধ করবে। অন্যদিকে ফেসবুকের নিউজ ফিডে যেসব সংবাদমাধ্যমের খবর থাকবে, তাদের অর্থ দিতে পারে ফেসবুক।

গুগল ইতিমধ্যে স্থানীয় মিডিয়া কোম্পানিগুলোর সঙ্গে লাখো ডলারের চুক্তি করেছে। অন্যদিকে ফেসবুকও অস্ট্রেলিয়ার একটি গণমাধ্যম কোম্পানির সঙ্গে প্রস্তাবিত চুক্তির বিষয়ে ঘোষণা দিয়েছে।

ফেসবুক ও গুগল জানিয়েছে, আগামী তিন বছরে তারা পৃথকভাবে সারা বিশ্বে সংবাদ খাতে প্রায় ১ বিলিয়ন ডলার করে বিনিয়োগ করবে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন