শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


সিলেটে সৎ ছেলের দা’র কূপে প্রাণ গেলো সৎ মা ও মেয়ের



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সিলেট মহানগরীর শাহপরাণ (রহ.) থানাধীন বিআইডিসি এলাকার মীর মহল্লায় সৎ মা ও বোনকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন এক যুবক। তার দায়ের কোপে সৎ ভাইও গুরুতর আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে এই নৃশংস ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- রুবিয়া বেগম (৩০) এবং তার মেয়ে মাহা (৯)। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন রুবিয়ার ছেলে তাহসান (৭)।

এ ঘটনায় রুবিয়ার সৎ ছেলে ঘাতক আবাদ হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ।

শাহপরান থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আনিসুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে আবাদ হোসেন দা দিয়ে তার সৎ মা ও বোন ও ভাইকে কোপাতে থাকে। ঘটনাস্থলেই মা ও বোন মারা যান। আর আহত অবস্থায় তার সৎ ভাই তাহসানকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থাও গুরুতর।

ওসি বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে আছি। কি কারণে মা-বোনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কিছু জানা যায়নি।’

তিনি বলেন, অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। আর মরদেহগুলো উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ওসমানী হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে সিলেটে মহানগর পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) সুহেল রেজা, শাহপরান থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার ময়নুল আফসারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মহানগর পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) সুহেল রেজা জানান- প্রাথমিকভাবে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী সৎ মায়ের সাথে ঘাতক আবাদের ভালো সম্পর্ক না থাকায় মনের ক্ষোভ থেকেই এই হত্যাকান্ডটি ঘটেছে। তবে জিজ্ঞাসাবাদের পর আসল রহস্য জানা যাবে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন