বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে হিন্দু নারীকে সমাজচ্যুত করে রেখেছেন গ্রাম্য মাতব্বর



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে করফুল সরকার(৪৭)নামে এক অসহায় হিন্দু নারীকে বছরের পর বছর একঘরে ঘোষনা দিয়ে সমাজচ্যুত করে রাখার খবর পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বিদ্যাভূষণ পাড়া গ্রামে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে জানা যায়, কয়েক বছর আগে হিন্দু বর্মা নন্দন সরকারের মেয়ে করফুল সরকার পার্শ্ববর্তী এলাকার মুসলমান ধর্মের ছেলে চানপাড়া গ্রামের রবি উল্লার পুত্র কাজল মিয়ার সাথে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন।

সেখানে আড়াই বছর সংসার করার পর উভয়ের মধ্যে সাংসারিক সমস্যা দেখা দিলে করফুল সরকার আদালতের মাধ্যমে মুসলমান স্বামীকে তালাক দেন।

পরে এফিডেভিড এর মাধ্যমে নিজ ধর্ম হিন্দুতে ফিরে এসে পুনরায় বাবার বাড়ী বিদ্যাভূষণ পাড়াতে বসবাস শুরু করে মর্যাদার সাথে হিন্দু ধর্ম পালন করে যাচ্ছেন।

কিন্তু বিষয়টিতে বাঁধ সাধে দৈত্য সরকারের পুত্র বিদ্যাভূষণ পাড়ার গ্রাম্য মাতব্বর নকুল সরকারের।

তাইতো তিনি এলাকার সকল হিন্দু নারী পুরুষদের ওই নারীর সঙ্গে কোন প্রকার সম্পর্ক এবং কথাবার্তা না বলতে নির্দেশ প্রদান করেন।

শুধু তাই নয় কেউ তাঁর আদেশ অমান্য করলে তাকেও একঘরে করে সমাজচ্যুত করার হুমকি দেন তিনি।

ভোক্তভোগি করফুল সরকার সাংবাদিকদের জানান-‘বিদ্যাভূষণ পাড়ার মাতব্বর নকুল সরকার এলাকাবাসীকে ভূল বুঝিয়ে আমাকে একঘরে ঘোষণা করে বছরের পর বছর সমাজচ্যুত করে রেখেছেন।’

এলাকার লোকদের তিনি তাঁর সাথে কথা বলতে বারণ করেছেন।

তাই কেউ তাঁর সাথে মাতব্বরের ভয়ে কথা বলেনা। যারা কথা বলবে তাদেরকে একঘরে করে রাখার হুমকি দিচ্ছে ওই মাতব্বর।

তার দাবী এলাকা থেকে তাকে বিতাড়িত করতে খড়ের গাদায় আগুন দেয়াসহ একের পর এক অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে মাতব্বর নকুল সরকার।

এ ব্যাপারে বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদ রানা বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন