শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


স্পেন – বাংলাদেশী বংশদ্ভোদ রায়হানা আব্দুল নাহার এর কৃতিত্ব



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

স্পেন –বাংলাদেশী বংশদ্ভোদ রায়হানা আব্দুল নাহার নার্সিং বিভাগে ডিপ্লোমা পাশ করেছেন। মূলত মানব সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেবার জন্য ৪ বছর ব্যাপী এই শিক্ষাকোর্সটি সম্পন্ন করেছে রায়হানা।  বর্তমানে সে  একটি মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি হসপিটাল ক্লিনিক এ উচ্চতর ডিগ্রী নিচ্ছে।  ভবিষ্যতে  ডাক্তার হবার সংকল্প নিয়েই লেখাপড়া চালিয়ে যাচ্ছে বলে ৫২বাংলাকে জানিয়েছে রায়হানা ।

রায়হানা আব্দুল নাহার এর দেশের বাড়ী  সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলায়।  দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে সে সবার ছোট । মা  মোছাম্মদ লুৎফুর নাহার, বাবা মো.আব্দুল জব্বার বার্সেলোনা গোলাপগঞ্জ এসোসিয়েশন এন কাতালোনীয়ার উপদেষ্টা । বার্সেলোনায় প্রায় বিশ বছর ধরে তারা স্বপরিবারে বসবাস করছেন।

প্রসঙ্গ  স্পেনে নব্বই এর দশক থেকে প্রথম বাংলাদেশিদের  বসবাস শুরু হয়। এরপর ধাপে ধাপে কমিউনিটি বড় হতে থাকে।বর্তমানে স্পেনের বাংলাদেশি কমিউনিটিতে  প্রায় ৪০ হাজার এরও বেশি বসবাস করছেন। ইতিমধ্যে  স্পেনে স্থানীয় কমিউনিটির মধ্যে  বাংলাদেশি কমিউনিটি অসংখ্য অবদান রেখেছে। কমিউনিটিতে  মসজিদ, মাদ্রাসা,স্কুল, বিভিন্ন সামাজিক সেবামূলক সংস্থা, বিভিন্ন ব্যবসা- বানিজ্যে বাংলাদেশিরা  তুলনামূলকভাবে অনেক এগিয়ে রয়েছে।

প্রথম বাংলাদেশী  প্রজন্মের  ছেলে মেয়েরা স্প্যানিশ মূলধারার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  ডাক্তার,বিজ্ঞান, ব্যবসা সহ বিভিন্ন শাখায় উচ্চতর ডিগ্রী নিতে লেখাপড়া করছে। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, বাংলাদেশীদের এই ধারা অব্যাহত থাকলে নিকট ভবিষ্যতে ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশীদের একটি উজ্জ্বল কমিউনিটি স্পেনের বার্সেলোনায়  প্রতিষ্ঠিত হবে।

 

 

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন