শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


বানিয়াচংয়ে পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে দোকান নির্মাণ
এলাকাবাসীর ক্ষোভ প্রকাশ



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

বানিয়াচংয়ের (হবিগঞ্জ) দক্ষিন নন্দীপাড়ার প্রভাবশালী একটি পরিবার এলাকাবাসীর পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে দিয়ে দোকান ঘর নির্মাণ করছে। এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। পানি নিষ্কাশনের নালাটি বন্ধ করা হলে দুটি মহল্লার কয়েক হাজার মানুষ জলাবদ্ধতার কারনে দূর্ভোগে পড়বে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বানিয়াচং উপজেলার ১ নং ইউনিয়নের দক্ষিন নন্দীপাড়া গ্রামের আনসার মিয়া ও তার ভাইয়েরা মিলে মাটি ভরাট করে পানি নিষ্কাশনের নালা বন্ধ করে দিচ্ছেন। বানিয়াচং আলীয়া মাদ্রাসার সামনের কালভার্ট দিয়ে পুরানবাগ গ্রাম,আলীয়া মাদ্রাসা,পুরানবাগ কবরস্থান ও দক্ষিন নন্দীপাড়া গ্রামের পানি ওই নালা দিয়ে গড়ের খালে নামে।

অভিযুক্ত আনসার মিয়া ও তার ভাইয়েরা তাদের পুকুরের পাড় পেরিয়ে নালার প্রায় ৭থেকে ৮ফুট ও রাস্তার ৫ থেকে ৬ ফুট জমি ভরাট করে ফেলছেন। মাটি দিয়ে নালাটি বর্তমানে ভরাট করার কারনে পানি নিষ্কাশনের আর কোন ব্যাবস্থা না থাকায় বেশ কয়েকটি এলাকায় স্থায়ী জলাবদ্ধতার আশংকা দেখা দিয়েছে। আগামী বর্ষাকালে ওই সমস্ত এলাকার পানি নামতে না পেরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হবে। এতে করে দূর্ভোগ পোহাবে কয়েক হাজার মানুষ।

এ ব্যাপারে দক্ষিন নন্দী পাড়া’র মোঃ নবী হোসেন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন,তারা এলাকায় প্রভাবশালী লোক হওয়ায় ভয়ে কেউ কিছু বলছেনা। এটি নালা নয় এক সময় বড় ধরনের একটি খাল ছিল। সরকার রাস্তা করার কারনে এটি বর্তমানে নালায় পরিনত হয়েছে। এখন যদি তারা নালাও বন্ধ করে দেন তাহলে লোকজনের বাসা-বাড়ীর পানি কোথায় যাবে বলে তিনি প্রশ্ন রাখেন সংবাদকর্মীদের কাছে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন