বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কারী ইন্ড্রাস্টির সংকট মোকাবেলায় দরকার সমন্বিত উদ্যোগ  » «   বিবিসি প্রকাশ করেছে উইঘুর নির্যাতন নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন  » «   মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ আরও ২ দেশে: বেলজিয়ামে ২১ দিনের কোয়ারেন্টিন ঘোষণা  » «   শুধুই নারীদের পরিচালনায় প্রথম সৌদি আরবের আকাশে উড়ল ব্যতিক্রমী ফ্লাইট  » «   গোলাপগন্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী এলিম চৌধুরী’র মতবিনিময়  » «   দুদকের মামলায় হাজী সেলিম কারাগারে  » «   নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও রাশিয়ার মুদ্রা রুবল’র উত্থান  » «   কারী শিল্পের সংকট মোকাবেলায় সিবিআই প্রেসিডেন্টের কাছে  বিসিএ’র পাঁচ দাবী উপস্থাপন  » «   গোলাপগঞ্জে ভোটার হাল নাগাদ শুরু  » «   বার্সেলোনায় মাদারীপুর সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী  » «   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসায় স্পেনের প্রেসিডেন্ট  » «   আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর চিরবিদায়  » «   ইতালির জেনোভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান  » «   বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে‘র দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও সম্মেলন অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

দূর্গাপুরে আদিবাসীদের পাশে কম্বল নিয়ে “রক্তদানে নেত্রকোনা”



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

নেত্রকোনায় শীতে আদিবাসী সম্প্রদায়ের পাশে ২০০ অসহায় পরিবারকে কম্বল বিতরণ করেছে “রক্তদানে নেত্রকোনা” নামের একটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবক শেখ অলি আহমেদ রনি ৫২ বাংলা টিভি কে জানান, নিজেদের ঐচ্ছিক চাঁদা,আত্মীয় স্বজন,বন্ধু-বান্ধব, পরিচিতজনদের এবং “বিকন বাংলাদেশ” ও “রাইজ আপ” এর সহায়তায় তারা এই কাজটি সম্পন্ন করেছেন।

তিনি আরো বলেন,আমরা ২০১৭ সালের পর থেকে রক্তদান কর্মসূচীর পাশাপাশি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রকার সামাজিক সেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।
এ বছর শীতের শুরু থেকে আমরা ” বিকন-বাংলাদেশ,”সংযোগ-কানেক্টিং পিপলস” এর আর্থিক সহায়তায় এ পর্যন্ত বারহাট্টা ও কলমাকান্দা সহ ৪৫০ টি পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছি।

এইবার আমরা নিজেদের আর্থিক সহায়তাসহ বিকন-বাংলাদেশ ও রাইজ আপ এর সহায়তায় ২০০ পরিবারের মধ্যে এই কম্বল বিতরণ করছি।

সেচ্ছাসেবী এম.এইচ.জনি ৫২ বাংলা টিভি কে জানান, গত ৮ মাস যাবৎ করোনার শুরু থেকে আমরা বিকন-বাংলাদেশ এর সাথে তাদের সহযোগিতায় কাজ করছি।বিকন-বাংলাদেশের ফাউন্ডার জনাব আশফাক কবিরের উৎসাহে আমরা এই যৌথ প্রজেক্টটি করার অনুপ্রেরণা পাই।

এর পূর্বে আমরা গ্রামে গ্রামে গিয়ে হত দরিদ্রদের তালিকা সংগ্রহ করি তাদের নিজেদের না জানিয়ে।

স্থানীয় শান্তা হাজং(৪০) ৫২ বাংলা টিভি কে বলেন এই শীতে আমাদের পাহাড়ি সীমান্ত এলাকায় প্রচুর উত্তরের হাওয়া আসে এতে প্রচুর ঠান্ডা লাগে তাই এই কম্বল পাওয়ায় আমরা অনেক খুশি।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন