শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


লেবাননে হৃদরোগে প্রবীণ প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের মৃত্যু



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

লেবাননের প্রবীণ প্রবাসী সিরাজুল ইসলাম  আর নেই( ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সিরাজুল ইসলাম এর দেশের বাড়ী নোয়াখালী জেলায়। তিনি সেনবাগ থানার  আবদুল জাব্বারের ছেলে।

১৯৯৮ সালে জীবন জীবিকার তাগিদে লেবানন আসেন সিরাজুল ইসলাম। তিনি দীর্ঘ ২২টি বছর প্রবাস জীবন কাটিয়ে ২৯ নভেম্বর রবিবার পৃথিবী থেকে  চির বিদায় নিয়েছেন । প্রবীন এই রেমিটেন্স যোদ্ধা লেবাননের বিভাগীয় শহর জুনিতে জমুজবা এলাকায় আউন সুপার মার্কেটে কর্মরত ছিলেন।

গত ১৪ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর এদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ঘোষিত লকডাউন সময়ে সকাল থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত মার্কেট খোলা থাকায় কাজ করেছেন তিনি। রবিবার সপ্তাহিক ছুটির দিন থাকায় মার্কেটও বন্ধ ছিল।  তিনি নিজ বাসায় অবস্থানরত ছিলেন।
বাসায় অবস্থানকালে বিকেল ৫টায় তার বুকে ব্যাথা অনুভব করলে সহকর্মীরা লেবাননের রেডক্রসকে সংবাদ দিলে দ্রুততায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানায় সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।মৃত্যুকালে স্ত্রী, চার মেয়ে  ও মাকে রেখে গেছেন।
এদিকে  লেবাননের প্রবীণ প্রবাসী সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুর সংবাদে দেশের বাড়ীতে শোকের ছায়া নেমে আসে । পরিবারের পক্ষ থেকে তার লাশ দ্রুততায় দেশে প্রেরণের জন্য বৈরুত বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন