শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


দুর্গাপুরে জমি সংক্রান্ত দ্বন্ধে ভাতিজার ছোরার আঘাতে চাচা নিহত



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

জমি সংক্রান্ত দ্বন্ধে ভাতিজার ছোরার আঘাতে চাচা আব্দুল হাশেম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। আজ সোমবার সকাল ৮টার দিকে নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় বিরিশিরি ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল হাশেম একই গ্রামের মৃত জব্বার মুন্সির ছেলে।

অভিযুক্তরা হলেন নিহতের ছোট ভাই আব্দুল লতিফ ও তার ছেলে ভাতিজা লাবু (১৮)। অভিযুক্তরা ঘটনাস্থল থেকে সোমেশ্বরী নদীর ওপর পাড় গাঁওকান্দিয়া ইউনিয়নের কানাই গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় নিহতের আরেক ভাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, আব্দুল লতিফ ও আব্দুল হাশেম দুই ভাই এক সাথে ব্যবসা করতেন। বড় ভাই হাশেমের সরলতার সুযোগে ব্যবসার উপর্জিত অর্থ দিয়ে ছোট ভাই লতিফ জমি কিনে নিজ নামে দলিল করেন। এ বিষয় নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে প্রায় ২০-২২ বছর যাবত জমি সংক্রান্ত দ্বন্ধ বিরাজমান ছিল এবং সামাজিকভাবে দেন-দরবার হলেও কোন সুরাহা হয়নি।

বড় ভাই হাশেম এবার আমন মৌসুমে বনগাঁও গ্রামে বাড়ির পাশে জমিতে ধান লাগিয়ে ছিলেন। এই জমিতে আজ (সোমবার) সকাল ৮টার দিকে সোমেশ্বরী নদীর ওপার পাড় হতে ঘটনাস্থল বনগাঁও গ্রামে এসে নিহতের ছোট ভাই লতিফ ও ভাতিজা লাবু ধান কাটতে থাকে।

এতে হাশেম বাঁধা দিলে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায় ভাতিজা লাবু পকেট থেকে দাঁড়ালো ছোরা দিয়ে চাচার গলায় আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা দ্রুত হাশেমকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দুর্গাপুর থানার ওসি মো. শাহনুর-এ আলম বলেন, ঘটনার পর অভিযুক্তরা পালিয়ে গেছে এবং অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে জিজ্ঞাসাবাদে জন্য নিহতের ভাই আব্দুর রাজ্জাককে থানায় আনা হয়েছে।

মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে তিনি জানান।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন