শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


ভিজিট ভিসাধারীদের এয়ারপোর্টে হয়রানী বন্ধের দাবীতে আমিরাতের ব্যবসায়ীদের সংবাদ সম্মেলন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

কিছু সংখ্যক অসাধু ট্রাভেল এজেন্সীর সিন্ডিকেটের যোগসাজশে বাংলাদেশের বিমানবন্দরগুলোর কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মচারীদের দ্বারা সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী ভিজিট ভিসাধারী যাত্রীদের হয়রানী ও কন্ট্রাক্ট বাণিজ্যের প্রতিবাদে ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা আবুধাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে।
৭ নভেম্বর  শনিবার স্থানীয় সময় রাতে আবুধাবীর একটি রেস্তোরায় অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে আলোচনা করেন ব্যবসায়ী জিয়া উদ্দিন তরফদার, আব্দুল মান্নান, শাহেদ নূর,আতাউর রহমান আতা ও আজমল খান।

সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন , বিগত ৮ বছরেরও বেশী সময় ধরে আমিরাতে বাংলাদেশীদের ভিসা বন্ধ । এতে করে আমাদের এই সম্ভাবনাময় শ্রমবাজার এবং বাংলাদেশী ব্যবসায়ীদের প্রতিষ্ঠানগুলো দেশি শ্রমিকের অভাবে ভালোমত ব্যবসা করতে না পারায়  ব্যবসা বাণিজ্য প্রায় ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে ।

সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার ভিজিট ভিসায় বাংলাদেশীদের বৈধভাবে আমিরাতে আসার সুযোগ দিলেও তারা ভিসা পরিবর্তন করে কোনো কাজে যোগ দিতে পারতো না | সম্প্রতি ভিজিট ভিসায় আমিরাতে আসার পর ভিসা স্ট্যাটাস পরিবর্তন করে কোম্পানির ভিসা বা পার্টনার ভিসা লাগানোর সুযোগ করে দিয়েছে আমিরাত সরকার । কিন্তু বাংলাদেশের এয়ারপোর্টে ভিজিট ভিসাধারীদের আটকে দেওয়া হচ্ছে ।

তারা অভিযোগ করেন,বিমানবন্দরের কিছু অসাধু কর্মচারী বৈধ ভিজিট ভিসা সহ যাবতীয় ট্রাভেল ডকুমেন্ট থাকা সত্বেও ভিজিট ভিসাধারীদের আসতে বাধা সৃষ্টি করছে।কেবল ‘কন্ট্রাক্ট বানিজ্য’র মাধ্যমে ভিজিট ভিসাধারীদের আসতে দিচ্ছে। যারা কন্ট্রাক্ট করছে না তাদের আটকে দিচ্ছে।

এতে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপনকালে ব্যবসায়ী জিয়াউদ্দিন তরফদার বলেন,এভাবে চলতে থাকলে আমরা আরো ক্ষতিগ্রস্থ হব। বাংলাদেশ থেকে ৫০ হাজার টাকা বিমান ভাড়ায় যেখানে তারা এদেশে আসতে পারতেন এখন তাদেরকে দেড় লাখ থেকে এক লাখ আশি হাজার টাকায় চুক্তিতে আসতে হচ্ছে যার ব্যয়ভার বহন করা প্রান্তিক মানুষের পক্ষে দুঃসাধ্য।
তারা এ সমস্যার সমাধানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী, বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রীর সুদৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন