শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


ব্রিটেনে দ্বিতীয়বারের মত জাতীয় লকডাউন ঘোষণা
৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার থেকে লকডাউন কার্যকর



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ব্রিটেনে দ্বিতীয়বারের মত জাতীয় লকডাউন ঘোষণা করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ৩১ অক্টোবর  শনিবার সন্ধ্যায়  ডাউনিং স্ট্রীটে এক বিশেষ সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষনা দেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী  ৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার থেকে লকডাউন কার্যকর করা হবে।

নতুন ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী বৃহস্পতিবার নতুন করে ‘স্টে অ্যাট হোম’ অর্ডার ঘোষণা করা হয়েছে। বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে হসপিটালিটি খাত এবং অপরিহার্য নয় এমন দোকান পাঠ। তবে স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় খোলা রাখা হবে।

লকডাউনের নতুন নিয়মে লোকজনকে কোন কারণ ছাড়া ঘরের বাইরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। এসবের মধ্যে রয়েছে- ঘরে থেকে যদি কাজ কিংবা লেখাপড়া সম্ভব না হয় তাহলে তিনি বাইরে যেতে পারবেন। শারিরিক অনুশীলনের জন্য ঘরের বাইরে বের হওয়া যাবে। এসময় ঘরের অথবা বাইরের একজনকে সাথে রাখা যাবে। ঘরের বাইরে বা ভিতরে যেকোন ধরনের মিটিং নিষিদ্ধ।

পাব, বার, রেস্টুরেন্ট এবং অপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান বন্ধ থাকবে। শুধুমাত্র টেইকওয়ে ও কালেকশন রিটেইল চালু থাকবে। নির্মান সাইট এবং উৎপাদন কাজের জায়গা খোলা থাকবে। শিশুরা ঘরের বাইরে গিয়ে বাবা-মার সাথে দেখা করতে পারবে, যদি বাবা-মা পৃথক হয়ে বসবাস করেন।

এছাড়াও বয়স্ক ও বিশেষ সেবার আওয়তায় অসুস্থ ও নিডি মানুষদের প্রতি পরিবারের বিশেষ যত্ন নেওয়ার কথাও বলা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন  জানান, করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পেতে থাকায় লকডাউন ঘোষণা করা ছাড়া তার হাতে আর কোন বিকল্প ছিল না। তিনি বলেন, মেডিকেল ও নৈতিক বিপর্যয় থেকে এনএইচএস কে রক্ষা করতেই এই সিদ্ধান্ত।

একই সাথে লকডাউনে বন্ধ হয়ে যাওয়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা বেতনের ৮০ পাসেন্ট ডিসেম্বর পর্যন্ত পাবেন বলেও জানিয়েছেন  প্রধানমন্ত্রী ।

২ ডিসেম্বরের পর আবারো টায়ার সিস্টেমে ফিরে আসবে ইংল্যান্ড জানিয়ে  বরিস জনসন সংবাদ সম্মেলনে আশা করেছেন, বড়দিন সবাই মিলে উদযাপন করতে পারবেন।

বিশ্বের দুই শতাধিক দেশ ও অঞ্চল এই  ভাইরাসে আক্রান্ত। তবে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুতে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এই তালিকায় ৯ম স্থানে রয়েছে যুক্তরাজ্য। ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লাখ ৮৯ হাজার ৭৪৫। এর মধ্যে মারা গেছে ৪৬ হাজার ২২৯ জন।

এদিকে বিবিসির এক  প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই মুহুর্তে যদি যুক্তরাজ্যে লকডাউন আরোপ না করা হয় তবে প্রথম ধাপের চেয়ে এবার আরো বেশি মানুষের মৃত্যু হবে। প্রতিদিন ৪০০০ মানুষের মৃত্যুর আশংকা করছেন বিজ্ঞানীরা।

৩১ অক্টোবর শনিবার  ২৪ ঘন্টায়  ব্রিটেনে করোনায় আরো আক্রান্ত হয়েছে ২১,৯১৫ জন। যা গতকালের চেয়ে প্রায় ২৫০০ জন কম।  গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে আরও ৩২৬ জনের। ব্রিটেনে মোট মৃতের সংখ্যা ৪৬ হাজার ৫৫৫ জন এবং  মোট আক্রন্তের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

 


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন