শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


৩ দিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলা বাগেরহাটে



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

৪১তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে “ খাদ্য নিরাপত্তা.বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ব্যবহার” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বাগেরহাটে ৩দিন ব্যাপী বিজ্ঞান মেলা ও প্রযুক্তি সপ্তাহ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার(২৭ অক্টোবর) সকালে বাগেরহাট স্বাধীনতা উদ্যানে মেলার উদ্বোধন করেন বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ।

বাগেরহাট অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট হাফিজ আল আসাদ এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায়, সিভিল সার্জন কেএম হুমায়ুন কবির, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান, জেলা পরিষদের সদস্য এ্যাডভোকেট শরিফা খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীন, বাগেরহাট বহুমুখি কলেজিয়েট স্কুলের অধ্যক্ষ মোসা. ফারহানা আক্তার প্রমুখ।

জেলা প্রশাসনের আয়োজনে মেলায় মাধ্যমিক পর্যায়ের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১২টি স্টল প্রদর্শিত হয়। এসব স্টলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের আবিস্কৃত পরিবেশ বান্ধব বিভিন্ন প্রকল্প স্থান পেয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে সমাপনি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই মেলা শেষ হবে।

মেলায় আগত শিক্ষার্থীরা বলেন, বিজ্ঞান মেলা উপলক্ষে আমরা বিভিন্ন ছোট ছোট প্রয়োজনীয় প্রকল্প ও প্রকল্পের মডেল নিয়ে এ খানে এসেছি। নিজেদের মডেলের পাশাপাশি অন্য শিক্ষার্থীদের মডেল দেখে আমরা অনুপ্রাণিত হচ্ছি। শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ স্টলে তাদের উদ্ভাবিত যন্ত্র বা প্রযুক্তির উপর দর্শনার্থীদের কর্ম পদ্ধতি সর্ম্পকে ধারনা দেন।

বক্তারা বলেন, বিজ্ঞানের প্রতি শিক্ষার্থীদের আগ্রহ বৃদ্ধি করতে এই আয়োজন ভূমিকা রাখবে। বিজ্ঞানের তত্ত্ব ও তথ্য হাতে কলমে কাজের মাধ্যমে বিষয়ের স্পষ্ট ধারণা অর্জন করা। বৈজ্ঞানিক আবিষ্কারে উৎসাহিত করা, শিক্ষার্থীদের সাংগঠনিক দক্ষতা বৃদ্ধি করা, বিজ্ঞানের সাথে জনগণকে পরিচিত করা।

বিদ্যালয়ে বিজ্ঞানের যেসব তত্ত্ব ও তথ্য পড়ানো হয় তার আলোকে শিক্ষার্থীরা বাস্তব জীবনে দৈনন্দিন কাজে সহজে প্রয়োগ যোগ্য উদ্ভাবনী মূলক যন্ত্র বা প্রযুক্তি তৈরি করে প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয় এই বিজ্ঞান মেলায়।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন