শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


শিক্ষক-হত্যার প্রতিবাদে উত্তাল ফ্রান্স



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ছুরি হামলার শিকার হয়ে এক শিক্ষকের মৃত্যুর পর উত্তাল হয়ে উঠেছে ফ্রান্স। দেশজুড়ে শিক্ষকদের সমর্থনে, রক্তপাতের প্রতিবাদে এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা সুরক্ষায় সমাবেশ করেছে হাজার হাজার মানুষ।  রোববার প্যারিস, লিয়ঁ, মার্সেই সহ বহু শহরেই প্রতিবাদকারীদের ঢল দেখল ফ্রান্স।

প্য়ারিসের রাস্তায় গত শুক্রবার ইতিহাসের শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে হত্যা করেছিল এক তরুণ। ওই শিক্ষক ক্লাসে মহানবীর কার্টুন দেখিয়ে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন। তারপরই ফ্রান্সজুড়ে শুরু হয়েছে প্রতিবাদ।প্যারিসের কেন্দ্রস্থলে সমবেত হয়েছিলেন কয়েক হাজার প্রতিবাদকারী। তার মধ্যে রাজনৈতিক নেতা, সংগঠন ও শিক্ষক ইউনিয়নের সদস্য থেকে সাধারণ মানুষ সকলেই ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীও টুইটে বলেছেন, ”এভাবে আপনারা আমাদের ভয় দেখাতে পারবেন না। আমরা ভীত নই। এভাবে আমাদের মধ্যে বিভেদ তৈরি করা যাবে না ।” শুক্রবার শিক্ষককে হত্যা করা হয়েছিল। শনিবার শত শত লোক সেই স্কুলে গিয়ে সাদা গোলাপ রেখে আসেন। রোববার বিক্ষোভের ডাক দিয়েছিল ব্যাঙ্গচিত্রের জন্য প্রসিদ্ধ পত্রিকা শার্লি এব্দো, এসওএস রেসিসিম নামে একটি সংস্থা ও শিক্ষকদের ইউনিয়ন। ।পুলিশ এখনো পর্যন্ত ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তার মধ্যে অভিযুক্তের পরিবারের চার জন সদস্যও আছেন। গত মার্চেই তাঁদের শরণার্থী হিসাবে ১০ বছরের জন্য ফ্রান্সে থাকার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। সরকারি আইনজীবী জানিয়েছেন, অভিযুক্তের মোবাইলে শিক্ষকের ছবি পাওয়া গেছে। ফরাসী শিক্ষামন্ত্রী জিন-মিশেল ব্লাঙ্কার বলেছেন, “গণতন্ত্রের অন্যতম স্তম্ভ – মতপ্রকাশের স্বাধীনতার সাথে সম্পর্কযুক্ত এমন একটি শ্রেণীর পাঠদানের জন্য পট্টিকে হত্যা করা হয়েছিল।”

প্রসঙ্গত,গত শুক্রবার ঐ শিক্ষক তাঁর ক্লাসে ইসলাম ধর্মের প্রবর্তক হজরত মহম্মদের একটি ব‍্যঙ্গচিত্র নিয়ে আলোচনা করছিলেন।‌ এই কারণে শিরচ্ছেদ করে তাঁর হত‍্যা করা হয়। এই ঘটনা ঘটার পর তৎক্ষণাৎ স্কুলে পৌঁছেছিলেন ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি এমম‍্যানুয়েল ম‍্যাক্রন। তিনি এই নৃশংস ঘটনাটিকে “ইসলামপন্থী সন্ত্রাসী আক্রমণ” বলে অভিহিত করেছেন। এই উগ্রবাদের বিরুদ্ধে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন