রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে মুজাহিদ উদ্দীন চৌধুরী দুবাগী ছাহেব কিবলার ঈসালে সওয়াব উপলক্ষে আলোচনা ও মিলাদ মাহফিল  » «   গোলাপগঞ্জের কমলগঞ্জে মৎস্য শেড এর উদ্বোধন  » «   সংযুক্ত আরব আমিরাতে কোবিড ১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী  » «   রোম বিডি স্পোটিং ক্লাব ইতালীর বার্ষিক বনভোজন ও পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা  » «   কলমাকান্দায় পক্ষাঘাত আক্রান্ত বীর মুক্তিযোদ্ধাকে চাঁদাবাজী মামলায় প্রধান আসামি !  » «   আপটন পার্ক লন্ডনে  এস.এম সাকসেস লিমিটেড  এর শুভ যাত্রা  » «   করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা: ফের লকডাউনে ব্রিটেন-ইউরোপ  » «   মৃত্যু বাড়ছে প্রতিদিন,নতুন ধারার লকডাউনে ব্রিটেন  » «   আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   বাগেরহাটের চিতলমারীতে মহা ধুমধামে ভাদ্র সংক্রান্তি উদযাপন  » «   মোংলায় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে খুলনা সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আঃ খালেক  » «   সিলেটে অন টাইম বিডি ডেলিভারি এন্ড সার্ভিস বর্ষপূর্তিতে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করবে  » «   লন্ডনে বৃহত্তর বাগলা প্রবাসী এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে আলোচনা সভা  » «   সরকার চা শ্রমিকদের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে—পরিবেশ মন্ত্রী  » «   লাফিয়ে বাড়ছে পিঁয়াজের দাম  » «  

করোনা ভ্যাকসিন সরবরাহে প্রয়োজন ৮ হাজার জাম্বো বিমান



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

করোনভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য কোভিড নাইটিং ভ্যাকসিন এর দিকে চেয়ে আছে  বিশ্ব।  ভ্যাকসিন আবিস্কার নিয়েও চলছে তুমুল প্রতিযোগিতা। চলছে আলোচনা । সমালোচনাও। প্রাণ বাচানো এই ভ্যাকসিনটির পেছনে অবশ্য  লুকিয়ে আছে  আরেকটি বিষয়-তা হলো ব্যাবসা। আর  এই ব্যাবসায় এখন তুমুলভাবে  আলোচনায় উঠে এসেছে পরিবহন বিমানের নাম।

বলা হচ্ছে, গ্লোভালি এই ভ্যাকসিন দ্রুততম সময়ে নিরাপদে পৌছে দিতে একমাত্র বিমানই হবে ভরসা। আর  বিশ্বজুড়ে করোনা ভ্যাকসিন সরবরাহের কাজটি হবে বিমান পরিবহন সংস্থাগুলোর জন্য এযাবৎকালের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

খাতটির সংশ্লিষ্ট আন্তর্জাতিক জোট ‘ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অথরিটি’ (আইএটিএ) এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, ‘এ কাজে প্রয়োজন পড়বে ৮ হাজার বোয়িং সেভেন ফোর সেভেন এর সমপরিমাণ জাম্বো বিমান।’

 

বিবিসির  এক প্রতিবেদনের তথ্যমতে  , ‘এ পর্যন্ত মহামারি কোভিড-নাইটিং এর কোনো ভ্যাকসিন নেই। কিন্তু ভ্যাকসিন আসার সঙ্গে সঙ্গে তা পরিবহনে এয়ারলাইন্স, বিমানবন্দর, আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সংস্থা এবং ভ্যাকসিন উৎপাদক কোম্পানিগুলোর সঙ্গে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে- জোট ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অথরিটি।’

বিপুল এই পরিবহন কর্মসুচির আওতায় প্রত্যেকের জন্য ভ্যাকসিনের একটি ডোজ সরবরাহের কথা জানানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, করোনাকালে যাত্রীসংকটে ভুগতে থাকা বিমান সংস্থাগুলো যখন যাত্রীর চেয়ে পণ্য পরিবহনের ওপর বেশি মনযোগী হয়েছে ,তখন ভ্যাকসিন সরবরাহের এ কাজটি হয়ে উঠবে আরও জটিল।

আইএটিএ-র প্রধান নির্বাহনী আলেকজান্দ্রে ডি জুনিয়াক বলেছেন, ‘নিরাপদে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সরবরাহ করার কাজটি হবে বৈশ্বিক এয়ার কার্গো শিল্প খাতের জন্য শতাব্দীর সবচেয়ে বড় মিশন। তবে সতর্কতার সঙ্গে আগাম পরিকল্পনা করা ছাড়া এটা সম্ভব নয়। এবং এর জন্য এখন সময় এসেছে।’

বিবিসি জানাচ্ছে, সব ধরনের বিমান ভ্যাকসিন পরিবহনের উপযুক্ত নয়। কারণ ভ্যাকসিন পরিবহন করতে হলে সংশ্লিষ্ট বিমানের তাপমাত্রা থাকতে হবে -২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। কিছু কিছু ভ্যাকসিন হয়তো হিমায়িত অবস্থায় রাখার প্রয়োজন পড়বে। ফলে অনেক বিমানে ভ্যাকসিন পরিবহন সম্ভব নয়।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •