বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
মাথিউরা ইউনিয়ন উন্নয়ন সংস্থা ইউকে এর সম্মেলন ও  কার্যকরি কমিটি গঠিত  » «   প্রবাসী ৭ ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বিসিএ ও ইউকে বিবিসিআই’র সংবাদ সম্মেলন  » «   বিসিএ’র  ১৬তম  এওয়ার্ড অনুষ্ঠান ৩০ অক্টোবর  লন্ডনের পার্ক প্লাজায়  » «   সাত ব্যবসায়ীর ষড়যন্ত্রমূলক গ্রেফতারে বিচার এবং তাঁদের নিরাপদে যুক্তরাজ্যে ফিরিয়ে আনার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক আঙ্গুরায় বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান  » «   স্পেনে বিয়ানীবাজার পৌরসভা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট বার্সেলোনা কমিটি গঠিত  » «   স্পেনে বাংলাদেশ কালচারাল ইয়ং ফেডারেশন কমিটি গঠিত  » «   গোলাপগঞ্জে সাংবাদিক জাহেদের উপর সন্ত্রাসী হামলা  » «   মাসা আমিনির মৃত্যুতে ইরানের ‘নীতি পুলিশ’ এখন আলোচনায়  » «   অনশনে বসতে আ’লীগ কার্যালয়ে ইডেন ছাত্রলীগের ১২ নেত্রী  » «   ইতালিতে জাঁকজমকপূর্ণভাবে বিএনপি’র ৪৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন  » «   ইতালির জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি ও সিনেট পদপ্রার্থীদের রোমের বাংলাদেশী কমিউনিটির সাথে মতবিনিময়  » «   রানির প্রস্থান, রাজার আগমন এবং আধুনিক ব্রিটেন  » «   আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় বাংলাদেশি তাকরিম  » «   ফুটবলার আঁখির বাবার সঙ্গে অসদাচরণ, দুই পুলিশ ক্লোজড  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


হোয়াইচ্যাপেলে তিন তরুণের  উদ্যোগে  ফামোস ক্যাফে‘র যাত্রা



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

পূর্ব লন্ডনের বাঙালি অধ্যুষিত হোয়াইটচ্যাপেল এর  ওসমানী সেন্টারে   ফামোস ক্যাফে নামে একটি  খাবারেরর দোকান চালু করা হয়েছে।

দোকানটিতে হরেক রকমের চা,কফি এবং  বিভিন্ন ধরণের জ্যুস, স্ন্যাংক এবং ইংলিশ ব্রেকফাস্ট ও ইভিনিং সময়ের নানা ঐতিহ্যিক খাবার সুলভে  পাওয়া যাবে। প্রতিদিন সকাল দশটা থেকে বিকাল সাতটা পর্যন্ত ক্যাফেটি খোলা থাকবে।

গত ১০ জুলাই শুক্রবার  বিকালে  তাজ  একাউন্টস এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর এবং  ব্রিটিশ বাংলাদেশী চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ড্রাষ্ট্রি‘র  লন্ডন প্রেসিডেন্ট  আবুল হায়াত  নুরুজ্জামান   ফামোস ক্যাফেটি উদ্বোধন করেন।

তিনি বলেন ফামোস ক্যাফে এর উদ্যোক্তারা হলেন ব্রিটিশ বাংলাদেশী  তিনজন মেধাবী তরুণ। তারা তাদের মেধা এবং শ্রমে এই ক্যাফের মাধ্যমে ব্যবসায় যাত্রা শুরু করেছে। নানা নি:সন্দেহে ইতিবাচক দিক।

ক্যাফেটিতে রয়েছে নানা পদের বহুজাতিক খাবার- দাবার।  আমার বিশ্বাস পরিবেশ এবং পারিপার্শিকতা বিবেচনায় নিয়ে ফামোস ক্যাফে তাদের ব্যবসায়ীক  সেবাটি সকলের কাছে পৌছাতে পারবে।

ফামোস ক্যাফে ‘র তিন উদ্যোক্তা হলেন সৈয়দ মুজিবুর রহমান, শাহ ফয়েজ ও আকিকুল ইসলাম।  উদ্যোক্তারা জানিয়েছেন- পূর্ব লন্ডনের বিশেষ করে তরুণ  প্রজন্মের পছন্দের খাবার , ডিজার্ট এবং মাল্টিকালচারাল ঐতিহ্যিক খাবার  এখানে পাওয়া যাবে ।

ফামোস ক্যাফে তুলনামূলক কম মূল্যে খাবার বিক্রির অঙ্গিকার নিয়েই যাত্রা শুরু করেছে। এছাড়াও বাংলাদেশী অধ্যুষ্যিত এলাকার ক্যাফে হিসাবে এখানে বাংলাদেশী বিভিন্ন রকম স্ন্যাকস ও ডিজার্ট এর ব্যবস্থা রাখা  হয়েছে।

ফামোস ক্যাফে এনএইচ এস স্টাফ ও কেয়ার ওয়ারকারদের জন্য ১০% ছাড়ের ব্যবস্থা রেখেছে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন