শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জীবন যেখানে দ্রোহের প্রতিশব্দ মৃত্যু সেখানেই শেষ কথা নয়..  » «   শিল্প উদ্যোক্তা ও ক্রীড়া সংগঠক মো: জিল্লুর রাহমানকে  লন্ডনে সংবর্ধনা  » «   ঈদের সামাজিক গুরুত্ব ও বিলাতে ঈদের ছুটি   » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি  প্রসঙ্গে  » «   হজের খুতবা বঙ্গানুবাদ করবেন মাওলানা শোয়াইব রশীদ ও মাওলানা খলিলুর রহমান  » «   হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, তাবুর শহর মিনায় হাজিরা  » «   ঈদের ছুটি : আমাদের কমিউনিটিতে সবার আগে শুরু হোক  » «   ঈদের দিনে বিলেত প্রবাসীদের মনোবেদনা  » «   বিলেতে ঈদ উৎসব এবং বাঙ্গালী কমিউনিটির অন্তর্জ্বালা  » «   জলঢুপে বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমান কেম্প  » «   তিলপাড়ায় বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   করিমগঞ্জ দিবস  » «   ঈদের ছুটি চাই : একটি সমন্বিত উদ্যোগ অগণিত পরিবারে হাসি ফুটাতে পারে  » «   ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল তিন বন্ধুর  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতালের বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


ফ্রান্সে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের বৈধকরণের দাবিতে বিক্ষোভ , আটক ৯২



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সরকারের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ফ্রান্সে অনিবন্ধিত অভিবাসীদের বৈধকরণ ও বিভিন্ন দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার ,৩০মে দুপুরে রাজধানী প্যারিসের মেডিলিন পয়েন্ট থেকে শুরু হওয়া বিক্ষোভ মিছিলে দু শতাধিক সংগঠনের কয়েক হাজার আন্দোলনকারী এবং ফ্রান্সে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের কয়েকটি সংগঠন এতে অংশগ্রহণ করে।

বিপুল সংখ্যক পুলিশী বেষ্টনীর মধ্যে দিয়ে যাত্রা করা বিক্ষোভ মিছিলটি ঐতিহাসিক রিপাবলিক চত্বরে এসে শেষ হয়। সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আয়োজনকারীরা বক্তব্য রাখেন।
পরে আইন অমান্য করায় পুলিশ ৯২ জনকে গ্রেফতার করে।

আমাদের ৫২বাংলা ফ্রান্স ব্যুরো চীফ এনায়েত হোসেন সোহেল জানান, করোনা কবিড ১৯ মহামারীকালে সম্প্রতি ফ্রান্সের শতাধিক সংসদ সদস্য ও সিনেটর দেশের অনিবন্ধিত অভিবাসীদের বৈধকরণের জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবর আবেদন করলে সরকারের পক্ষে থেকে তা নাচক করে দেয়া হয়। এরই প্রেক্ষিতে শনিবার বিক্ষোভ কর্মসূচির ডাক দেয় অনিবন্ধিত অভিবাসী আন্দোলনকারীরা।

কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে এই কর্মসূচিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে আন্দোলনকারীরা তা উপেক্ষা করে পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচিতে যোগদানের জন্য প্লেকার্ড,ফেস্টুন ব্যানার নিয়ে মেডিলিন চত্বরে ধাপে ধাপে জড়ো হয়।

এ সময় পুলিশ তাদেরকে নিবৃত করতে চাইলে আন্দোলনকারীরা বৈধকরণের বিভিন্ন শ্লোগান দিয়ে পুরো এলাকা প্রকম্পিত করে তোলে।

এ সময় সংক্ষিপ্ত পরিসরে নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। পরে বিক্ষোভকারীরা মিছিল নিয়ে ঐতিহাসিক রিপাবলিক চত্বরের দিকে অগ্রসর হয়। এ সময় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মিছিলটি ব্যারিকেড দিয়ে সামনের দিকে নিয়ে যায়।

অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে হেলিকপ্টার দিয়ে মিছিলটি র গতিবিধি নজদারীতে রাখা হয়। এক পর্যায়ে রিপাবলিক চত্বরে কয়েক হাজার আন্দোলনকারি জড়ো হয়ে শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত করে তোলেন পুরো এলাকা।

সংক্ষিপ্ত পরিসরে পরবর্তী করণীয় ব্যাপারে বক্তব্য প্রদান করেন আয়োজক নেতৃবৃন্দ। পরে পুলিশ রিপাবলিক চত্বর ছেড়ে চলে যাবার জন্য কয়েকদফা মাইকে ঘোষণা প্রদান করলে আন্দোলনকারীরা তাতে কর্নপাত না করায় পুলিশ পুরো রিপাবলিক চত্বর ঘেরাও করে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এ সময় টিয়ারশেল ঝাঁঝালো ধোঁয়ায় আন্দোলনকারীরা দিকবিদিক ছোটাছোটি করতে থাকেন। এ সময় পুলিশ ৯২জনকে আইন অমান্য করায় গ্রেফতার করে। আগামী ২০ শে জুন একই দাবিয়ে পুনরায় বিক্ষোভ সমাবেশের আহবান জানিয়েছে আয়োজকরা।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন