শনিবার, ১৫ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কাতালোনীয়ায় জাতীয় শোক দিবস পালনের প্রস্তুতি ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  » «   বার্মিংহামের মিষ্টি দেশ যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরে শাখা ও ফ্রাঞ্চাইজ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে  » «   ইতালীর রোমে তিনদিনব্যাপী ন্যাশনাল কাফ অপারেটর কোর্স সম্পন্ন  » «   ইতালিতে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য মহাউৎসব ও নন্দ উৎসব  » «   বাঙালির জীবনে এক মর্মস্পর্শী ও হৃদয়বিদারক দিন আজ ১৫ আগস্ট  » «   পরিবেশ মন্ত্রীর সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  » «   লেবাননে উদীয়মান সাংবাদিক মহসীন মৃধার মৃত্যু  » «   ফ্রান্স-নেদারল্যান্ডস ফেরতদের ব্রিটেনে বাধ্যতামূলক কোয়ারেনটাইন  » «   যত দিন বেঁচে আছি এতিমদের পাশে আছি : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  » «   শীঘ্রই ৯৯৬ কোটি টাকা ব্যয়ে মনু নদীর স্থায়ী প্রতিরক্ষামূলক কাজ শুরু হবে  » «   আমিরাতে রেমিটেন্স যোদ্ধারা আবারো সক্রিয় হয়ে উঠেছে  » «   দুবাই প্রবাসীরা টিকেট সংকটে: সিলেটে বিক্ষোভ  » «   সৌদি আরবে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব ও শেখ কামালের জন্মদিন উদযাপন  » «   মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি : নাইজেরিয়ায় গায়কের মৃত্যুদণ্ড  » «   ভয়াবহ মন্দায় পড়েছে যুক্তরাজ্য  » «  

পাকিস্তানের করাচিতে ১০৭ আরোহী নিয়ে বিমান বিধ্বস্ত



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পাকিস্তানের করাচির একটি আবাসিক এলাকায় এক যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। বিমানটিতে থাকা ১০৭ আরোহীর কেউ জীবিত নেই বলে জানিয়েছেন করাচির মেয়র ওয়াসিম আখতার। উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। বিমান দুর্ঘটনায় এলাকার বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পিআইএর জেট বিমানটি লাহোর থেকে ৯৯ জন যাত্রী ও ৮ জন ক্রু নিয়ে রওনা হয়েছিল।

পাকিস্তানের বিমান চলাচল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন পাকিস্তান ইন্টারন্যাশানাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) বিমানটিতে ৯৯ জন যাত্রী এবং আটজন বিমান কর্মী ছিলেন।

পাকিস্তান বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র আবদুল সাত্তার খোখার জানান, বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে করাচিতে,
তারা নিশ্চিত করতে চেয়েছেন ঠিক কতজন যাত্রী ছিল বিমানটিতে তবে প্রাথমিকভাবে বিমানে ৯৯ জন যাত্রী এবং আটজন ক্রু ছিলেন বলে তিনি জানান।

দুর্ঘটনার পরপরই সেনাবাহিনীর উদ্ধারকর্মীরা সেখানে পৌঁছে কাজ শুরু করেছে বলে পাকিস্তান আইএসপিআরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা ভিডিও ও ছবিতে দেখা গেছে, ওই আবাসিক এলাকার ওপর দিয়ে কালো ধোঁয়া উড়ছে। রাস্তায় ছুটে যাচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স।

করোনাভাইরাস লকডাউনের পর বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালুর অনুমতি দেওয়ার কয়েক দিনের মধ্যে করাচিতে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটলো।

এর আগে ২০১০ সালে ইসলামাবাদে এক বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৫২ জন প্রাণ হারায়। ২০১২ সালে পাকিস্তানের ভোজা এয়ার পরিচালিত একটি বোয়িং ৭৩৭-২০০ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১২১ জন প্রাণ হারায়। এছাড়া ২০১৬ সালে ইসলামাবাদে আরেকটি বিমান ৪৭ যাত্রী নিয়ে বিধ্বস্ত হয়।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •