বুধবার, ৩ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
আদর্শের বিপরীতেই দাঁড়িয়ে যাচ্ছে আদর্শ  » «   করোনায় সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশিদের অসহায়ত্ব  » «   সোয়া ছয় কোটি মানুষের হাতে সরকারের ত্রাণ  » «   শারজাহর মসজিদগুলিতে পরিচ্ছন্নকরণ অব্যাহত  » «   ‘আলোকিত ৯৫ মাদারীপুর’ এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ২০২০ উদযাপন  » «   পরিবহন কল্যাণ তহবিলের টাকা নিয়ে সিলেটে শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ, ভাঙচুর  » «   আমিরাত নিউজ এজিন্সিতে বাংলা ভাষা সংযুক্ত করা হয়েছে  » «   নিজ খরছে দেশে যেতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের তালিকা করা হবে  » «   করোনা থেকে বাঁচতে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার আহ্বান পরিবেশমন্ত্রীর  » «   লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যা: মানব পাচারকারী চক্রের হোতা হাজী কামাল গ্রেফতার  » «   করোনার দুর্যোগে আরব আমিরাতে ভিসা নিষেধাজ্ঞা তোলে নেয়া হয়েছে  » «   ইতালীতে শুরু হয়েছে বৈধকরণের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম  » «   বিয়ানীবাজারের ৫৩১টি মসজিদ পাবে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান  » «   সারাদেশে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ২২, সিলেটে ১ জন  » «   মসজিদ-আল-হারাম ও আল-নববী নামাজের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে  » «  

আমিরাতে ২০মে থেকে জীবানুনাশক স্প্রে কর্মসূচির সময় পরিবর্তন

নির্দেশ অমান্যকারীকে গুনতে হবে ৬৯ হাজার টাকা জরিমানা



করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে আরব আমিরাতে চলছে জীবাণুনাশ স্প্রে কর্মসূচি। রমজান উপলক্ষে রাত ১০ টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত জীবানুনাশক স্প্রে করার যে সময় নির্ধারণ করা হয়েছিল তা  ২০ মে বুধবার থেকে পরিবর্তন করে রাত ৮ টা থেকে সকাল ৬ টা পর্যন্ত করা হয়েছে।

গত সোমবার (১৮ মে) স্থানীয় গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। জীবাণুনাশক স্প্রে কর্মসূচি চলাকালীন সময়ে আমিরাতে বসবাসরত সকলকে নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। কেবলমাত্র খাদ্য ও ঔষধের প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হতে পারবে না।

এই  নির্দেশ অমান্যকারীকে ৬৯ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হবে।  তবে টেলিযোগাযোগ, পাবলিক মিডিয়া, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, বিমানবন্দরের কর্মকর্তা এবং প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নিজ নিজ কর্মস্থলে যাওয়ার অনুমতি রয়েছে।

ঈদের ছুটিতে মল এবং শপিং সেন্টারগুলি সম্পূর্ণ সতর্কতামূলক সব ব্যবস্হা গ্রহন করে সকাল ৯ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে। তবে ৬০ বছরের উর্ধ্বে ও ১২ বছরের নিচে শিশুদের শপিং মলে প্রবেশ নিষেধ।

মসজিদ, মন্দির সহ প্রার্থনা কেন্দ্রগুলিও পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। খাদ্য আউটলেট, কোপারেটিভস, মুদি, সুপারমার্কেট এবং ফার্মেসীগুলো ২৪ ঘন্টা খোলা রাখতে পারবে।

সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এখন থেকে কোভিড ১৯ এর আইন অমান্য কারীদের বিপক্ষে কঠোর শাস্তির ব্যবস্হা করা হবে। নির্দেশনা অমান্য করে নির্ধারিত সেক্টরের লোক ছাড়া বাইরে চলাফেরা করলে জরিমানাসহ জেল হতে পারে। পরবর্তী নির্দেশ আসা পর্যন্ত জীবাণুনাশক স্প্রে কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।