বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে স্পেনে দূতাবাসের বিশেষ আয়োজন  » «   পদ্মা সেতুর স্মারক নোট বাজারে আসবে রবিবার  » «   পদ্মা সেতুর জন্য অভিনন্দন বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির  » «   অদম্য বাংলাদেশ, খুলল পদ্মার দ্বার  » «   আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই: প্রধানমন্ত্রী  » «   রেমিটেন্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণে মাদ্রিদে মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে মায়ের কোল থেকে ভেসে গেল শিশু, ৫ জনের মৃত্যু  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


ম্যানচেষ্টার সহকারী হাইকমিশনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষনই ছিল স্বাধীনতার আহবান। বাঙালি জাতির মুক্তির দিকে যাত্রার দিক নির্দেশনা। এই ভাষন সম্মোহিত করেছিল গোটা জাতিকে, এই ভাষনই বাাঙ্গালি জাতিকে দিয়েছিল যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়ার মুল মন্ত্র।’—–এরকম কথাই উচ্চারিত হয়েছে ম্যনচেষ্টার সহকারী হাইকমিশনে গত ৭ ই মার্চ শনিবার।

বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক বক্তৃতার দিনটি পালন উপলক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন দূতাবাস প্রধান, সহকারী হাইকমিশনার এ এন এম আনওয়ারুল ইসলাম।দুতাবাসের প্রথম সচিব মাহমুদা খানম ও সোসিয়েল সেক্রেটারী জিল্লুর রহমানের পরিচালনায় শুরুতেই কোরান তেলাওয়াত করেন নাজমুল হাসান।

এর আগে দুতাবাসের আঙ্গিনায় বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়।রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন সহকারি হাইকমিশনার এবং প্রধানমন্ত্রীর বাণি পাঠ করেন প্রথম সচিব। এরপর বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সহসভাপতি গৌছ মিয়া, সৈয়দ মাহমুদুর রহমান, সাধারন সম্পাদক মীর গোলাম মোস্তফা, ৫২বাংলা টিভি’র প্রধান সম্পাদক ফারুক যোশী, জিএমবিএ’র সাধারন সম্পাদক ডি এন কোরেশী, আওয়ামীলীগের ওয়ছে কামালী, সৈয়দ জাফর আহমদ, স্বেচ্ছা সেকব লীগের ফয়জুল হক জুয়েলসহ আরো অনেকে।

আলোচনা পর্বে উপস্থিত সকলেই তাঁদের বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর সম্মোহনী এ ভাষনের ঐতিহাসিক গুরত্বের কথাগুলো তুলে ধরেন।

সভাপতি বক্তব্যে সহকারী রাষ্ট্রদূত এ এন এম আনওয়ারুল ইসলাম ৭ই মার্চের বক্তৃতার ঐতিহাসিক পটভূমি তুলে ধরে বলেন, ‘জাতির পিতার এ ভাষনের মধ্যি দিয়ে সেসময় সারা বিশ্বেই তিনি একজন রাজনৈতিক বিচক্ষন নেতা হিসেবেই প্রমান তাঁকে করেছিলেন, আর সেজন্য আজও পৃথিবীর অন্যতম প্রধান ভাষন হিসেবেই তা আজ সারা বিশ্বে পরিচিত ও স্বীকৃত।’


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন