শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «   পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে স্পেনে দূতাবাসের বিশেষ আয়োজন  » «   পদ্মা সেতুর স্মারক নোট বাজারে আসবে রবিবার  » «   পদ্মা সেতুর জন্য অভিনন্দন বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধির  » «   অদম্য বাংলাদেশ, খুলল পদ্মার দ্বার  » «   আছে শুধু ভালোবাসা, দিয়ে গেলাম তাই: প্রধানমন্ত্রী  » «   রেমিটেন্স প্রেরণে উদ্বুদ্ধকরণে মাদ্রিদে মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত  » «   বিশ্বনাথে মায়ের কোল থেকে ভেসে গেল শিশু, ৫ জনের মৃত্যু  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


সড়ক দুর্ঘটনায় আমেরিকা প্রবাসীর মর্মান্তিক মৃত্যু
২৪ বছর পর নিহত রুহুল আমিন মাতৃভূমে ফিরছিলেন



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে মাইক্রোবাস ও ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে  যুক্তরাজ্য প্রবাসী  রুহুল আমিন(৩৫) নিহত হয়েছেন। ১৫ জানুয়ারি বুধবার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জের মাধবপুর নামক এলাকায়  এ মর্মান্তিক  দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় চালকসহ আরো ২জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

নিহত প্রবাসী রুহুল আমিন এর বাড়ী সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়নের  খশির নামনগর । তার পিতার নাম আলিম উদ্দিন। ২৪ বছর পর আমেরিকা থেকে দেশে ফেরার সময় এ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান পরিবারের এই বড় সন্তান।

দুর্ঘটনায় আহতরা হলেন- নিহত রুহুল আমিনের বাবা আলিম উদ্দিন , ছোট ভাই নুরুল আমীন এবং  মাইক্রো চালক বাদশাহ মিয়া।  দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও  একজন মহিলা যাত্রী, যার পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।

জানা গেছে, আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে ব্রাম্মণবাড়িয়া হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে  হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদেরকে সিলেট এমএজি  ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এদের মধ্যে নুরুল আমিন ও চালক বাদশাহ মিয়ার অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

নিহত রুহুল আমীন দীর্ঘ ২৪ বছর পর দেশে যাবার প্রাক্ষালে তার ফেইসবুক আইডিতে সর্বশেষ ছবি আপলোড করে তার উচ্ছাস প্রকাশ করেছিলেন। তার  ফেইসবুক আইডিতে দেখা যায়- জন্মভূমি বাংলাদেশ এ যাত্রার আগের রাতে, শেষ কর্মদিবসে দেশে যাবার তথ্য প্রকাশ করেছেন। তারপর জনএফ কেনেডি এয়ারপোর্টে  বন্ধু-স্বজনদের নিয়ে এবং সর্বশেষ আনন্দময় সেলফিটি আপলোড করেছেন- দুবাই এয়ারপোর্টে ট্রানজিট সময়ে।

নিয়তি  তার মর্মান্তিক মৃত্যুর সংবাদ ও  ছবি তার ফেইসবুক বন্ধুরা তার-ই আইডিতে কয়েক ঘন্টা পরে  শেয়ার করেছেন।

রুহুল আমিনের মর্মান্তিক মৃত্যুর সংবাদে  নিউ ইয়র্র্কে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমেছে। সকলের মুখেই দুর্ঘটনার সংবাদটি  আলোচনায় উঠছে। বুধবার বিকেল ৬:৩০ মিনিট নিউইয়র্কের এস্টোরিয়ায় অবস্থিত শাহ জালাল মসজিদে  নিহতের আত্বীয় স্বজন ও বন্ধুমহলের পক্ষ থেকে   এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন