রবিবার, ৩ জুলাই ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
বিলেতে কারী শিল্পে ঈদের ছুটি সময়ের দাবি  » «   ঈদের ছুটি  » «   ইউরোপে জ্বালানি সংকট চরমে, বিকল্প ভাবতে হচ্ছে ইউরোপকে  » «   হাইডে প্রবীণদের স্মরণে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল  » «   ঈদের দিন হোক সবার উৎসবের দিন  » «   ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হসপিটাল সিলেটের সার্টিফিকেট বিতরণী অনুষ্ঠিত  » «   নেদারল্যান্ডস বাংলাদেশী সমিতি’ ইউকে’র যাত্রা শুরু  » «   ব্রিটেন প্রবাসে ঈদ ছুটি নিয়ে ভাবনা ও আমাদের করণীয়  » «   ঈদে ছুটি নাই  » «   কমিউনিটি ও পরিবারের স্বার্থকে প্রাধান্য দিলে ঈদের ছুটি নিয়ে দ্বি-মত থাকবে না- শায়খ আব্দুল কাইয়ুম  » «   ব্রিটেনে ঈদ হলিডে : আকাঙ্ক্ষা ও বাস্তবতা  » «   দয়া নয়, ঈদের ছুটি শ্রমজীবি মুসলমানদের অধিকার  » «   ব্রিটেনে ঈদের ছুটি নিয়ে কমিউনিটি ও মানবাধিকার নেতারা যা বলেন  » «   বিয়ানীবাজার ক্যান্সার এন্ড জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃক বন্যা দুর্গতদের চিকিৎসার্থে বিনামূল্যে ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল ক্যাম্প  » «   যুক্তরাজ্যে ঈদের ছুটির দাবীতে  আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন


‘ছাত্রলীগের সন্ত্রাস-দুর্নীতি দেশের সর্বনাশ ডেকে এনেছিল’



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

‘ছাত্রলীগের দানবীয় সন্ত্রাস-দুর্নীতি অতীতে দেশের সর্বনাশ ডেকে এনেছিল। বর্তমানেও সে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।’ বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর)  ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) ডাকসু’র ভিপি নূরকে দেখতে গিয়ে এ মন্তব্য করেন তিনি।

রবিবার (২২ ডিসেম্বর) ডাকসু কার্যালয়ের অভ্যন্তরে গিয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগের হামলার ঘটনায় গুরুতর আহত হন ভিপি নূরুল হক নূর, ফারাবি ও অন্যান্যরা। তাদের দেখতে হাসপাতালে যান স্বাধীনতাত্তোর ডাকসু’র প্রথম ভিপি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম। এসময় তিনি নূরের সাথে দেখা করে তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নেন। ফারাবি ও অন্যান্যদের শারীরিক অবস্থারও খোঁজ নেন তিনি। এসময় তিনি আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

নুরসহ ছাত্রদের ওপর নৃশংস আক্রমণের তীব্র নিন্দা জানিয়ে হাসপাতালে অপেক্ষমান সাংবাদিক ও ছাত্রদের উদ্দেশ্যে মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি-সাধারণ সম্পদকের উপস্থিতিতে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নামে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা যে আক্রমণ চালিয়েছে তা ক্ষমার অযোগ্য। অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও বিচার করতে হবে।

ডাকসুর সাবেক ভিপি সেলিম সরকার ও সংশ্লিষ্ট মহলকে সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, স্বাধীনতাত্তোরকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাত খুনের আসামি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে আসীন হয়েছিল। তাদের সন্ত্রাস বিশ্ববিদ্যালয়কে কেবল অস্থিতিশীল করেনি জাতীয় পর্যায়ে দুর্যোগ বয়ে এনেছিল। আজও সেই আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সরকার দলের ছাত্র সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা দুর্নীতি ও সন্ত্রাসে এমনভাবে জড়িয়ে পড়েছে যা দেশে বড় ধরণের বিপর্যয়ের কারণ হয়ে উঠেছে। এর দায় একদিকে যেমন সরকার ও ক্ষমতাসীনদের তেমনি তা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষেরও।

ক্যাম্পাসকে সন্ত্রাসমুক্ত করে শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য সরকার ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতিও তিনি দাবি জানান।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন