শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
জকিগঞ্জের ভাইরাল ভিডিওর সুবাদে নির্যাতনকারী মেম্বার সালাম আটক  » «   ২৬ নভেম্বর লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের ক্যারম দাবা’র ফাইনাল ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান  » «   ইস্ট লন্ডনে গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশী যুবক মারা গেছেন  » «   হৃদয়ে ৭১ ফাউন্ডেশনের ইতালী শাখা কার্যকরী কমিটি অনুমোদিত  » «   বিমানে ম্যানচেষ্টার থেকে কার্গোর মাধ্যমে মালামালও যাবে সরাসরি  » «   ডা. হোসাইন আহমদ সংক্ষিপ্ত সফরে  এখন লন্ডনে  » «   আল্লাহর রাসুল (সাঃ) কে ভালোবাসার মাধ্যমেই পরিপূর্ণ মুমিন হওয়া সম্ভবঃ হুছামুদ্দীন চৌধুরী ফুলতলী  » «   লন্ডনে একাত্তরে চা বাগানে নারকীয় গণহত্যা নিয়ে আলোচনা  » «   দুবাইয়ে সি আই পি মাহতাবুর রহমান ও আলহাজ্ব আব্দুল করিমকে সংবর্ধনা  » «   রোমে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  » «   সোমবার স্পেন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন  » «   আন্দ্রে ফ্লেচার ঝড়ে বাংলা টাইগার্সের দাপুটে জয়  » «   কুয়েতে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত  » «   উপস্থাপকের অনুরোধেও শাকিব খান বাংলায় কথা বলেননি  » «   ইতালির ভেনিসে ভয়াবহ বন্যায় ২ জনের মৃত্যু  » «  

হবিগঞ্জে আদর্শ শিক্ষক টি আলী স্যারের নামে সড়ক উদ্বোধন

মহতি উদ্যোগটি আদর্শ শিক্ষক সৃষ্টিতে উৎসাহ যোগাবে



হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশে অবস্থিত গভঃ স্কুল ক্রসরোডটি ওই বিদ্যালয়ের আদর্শ শিক্ষক টি আলী স্যারের নামে নামকরণ করা হয়েছে। ১ লা নভেম্বর  শুক্রবার দুপুরে তিনকোনা পুকুরপাড় এলাকায় শহরের প্রধান সড়কের পাশে ফলক উন্মোচন করে ‘টি আলী স্যার সড়কের’ উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির।

উদ্বোধনের পূর্বে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় এমপি আবু জাহির বলেন- টি আলী স্যার ছিলেন হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন আদর্শ শিক্ষক। তিনি ছাত্রদের ভালবাসতেন নিজের সন্তানের মতোই। আদর্শ শিক্ষকের সকল গুণাবলীই ছিল তাঁর মধ্যে। আমরা চাই আজকের সমাজে টি আলী স্যারের মতো আদর্শ শিক্ষক তৈরি হোক। এজন্য একদিকে, টি আলী স্যারের স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য এবং অন্যদিকে টি আলী স্যারের নামে সড়কের নামকরণ দেখে অন্য শিক্ষকগণ যাতে টি আলী স্যারের মতো আদর্শ শিক্ষক হতে উৎসাহিত হন- সেজন্য এই সড়কের নামকরণ করা হয়েছে টি আলী স্যার সড়ক।

এমপি আবু জাহির বলেন, তিনি নিজে এই সড়কটি টি আলী স্যারের নামে নামকরণের প্রস্তাব করেছিলেন। প্রস্তাবটি অনুমোদনের জন্য তিনি সরকার ও হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি আরো বলেন- হবিগঞ্জের আরো বিভিন্ন সড়ক গুণীজনদের নামে নামকরণ করা হবে।

হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও টি আলী স্যার ফাউন্ডেশনের সভাপতি হারুনুর রশিদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান মিজান, সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যায়ের পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল্লাহ, হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ আলফাজ উদ্দিন, বিকেজিসি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুধাংসু কুমার কর্মকার, হবিগঞ্জ মটর মালিক গ্রুপের সাবেক সভাপতি মো. ফজলুর রহমান চৌধুরী, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অ্যাডভোকেট মনসুর উদ্দিন আহমেদ ইকবাল, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক প্রতিদিনের বাণী সম্পাদক মোহাম্মদ শাবান মিয়া, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক খোয়াই সম্পাদক শামীম আহছান, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও দৈনিক হবিগঞ্জ এক্সপ্রেস সম্পাদক মোঃ ফজলুর রহমান, নবীগঞ্জের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী, জেলা জাসদ সভাপতি অ্যাডভোকেট তাজউদ্দিন আহমেদ সুফি, রোটারী ক্লাব অব হবিগঞ্জ সেন্ট্রালের প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান সিরাজুল ইসলাম, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও একুশে টিভি ও যুগান্তর প্রতিনিধি সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন, ম্যাটলাইফ বাদল এজেন্সীর ম্যানেজার বাদল রায়, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও চ্যানেল আই প্রতিনিধি চৌধুরী মোহাম্মদ ফরিয়াদ, হবিগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি ও নিউজটুয়েন্টিফোর ও সমকাল প্রতিনিধি রাসেল চৌধুরী, হবিগঞ্জ টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এস এম সুরুজ আলী, বাপা হবিগঞ্জ জেলা সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল, রোটারী ক্লাব অব হবিগঞ্জ এর সাবেক সেক্রেটারী রোটারিয়ান হাফিজুর রহমান সুমন, রোটার‌্যাক্টর আইজেন নিহান শাহনূর শাহ প্রমূখ।

এছাড়া টি আলী স্যার ফাউন্ডেশনের আমন্ত্রণে সিলেটের বিশিষ্ট সাংবাদিকগণ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে ছিলেন ইলেক্ট্রনিক জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন ইমজা’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও এটিএন নিউজের সিলেট ব্যুরো প্রধান সজল ছত্রী, চ্যানেল এস টেলিভিশন ইউকের সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার এম.হাসানুল হক উজ্জল, ইমজার সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনটিভির স্টাফ ক্যামেরাপার্সন আনিস রহমান, এনটিভির সিলেট প্রতিনিধি মারুফ আহমেদ, ইমজার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও চ্যানেল এস টেলিভিশন ইউকের চীফ ক্যামেরাপার্সন লিটন চৌধুরী।

‘টি আলী স্যার সড়ক’ উদ্বোধন শেষে আদর্শ শিক্ষক টি আলী স্যারের আত্মার মাগফেরাত কামনায় মোনাজাত করেন হবিগঞ্জ কোর্ট মসজিদের খতিব মাওলানা গোলাম মোস্তফা নবীনগরী। পরে জুম্মার নামাজের পর হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মসজিদে টি আলী স্যার সড়ক নামকরণ হওয়ায় শোকরানা মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়। মিলাদে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি হারুনুর রশিদ চৌধুরীসহ মসজিদের মুসল্লীরা অংশ নেন।

উল্লেখ্য, ১৯১৩ সালের ৩০ এপ্রিল সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার কালাইউড়া গ্রামে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন টি আলী। স্বার্থত্যাগী টি আলী স্যার হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রায় ৩০ বছর শিক্ষকতা করেন।

তন্মধ্যে স্কুলের মুসলিম হোস্টেলের তত্তাবধায়কের দায়িত্ব পালন করেন ২ যুগেরও বেশি। ছাত্রদের তিনি ভালবাসতেন নিজের ছেলের মতোই। এজন্য তাকে হারাতে হয়েছে অনেক। ৬ সন্তানের মৃত্যু হয়েছে প্রায় চিকিৎসা ছাড়াই। তাদের কয়েকজনের দাফনেও উপস্থিত থাকতে পারেননি স্বার্থত্যাগী এই শিক্ষাগুরু।

দীর্ঘ চাকুরি জীবনে তিনি রীতিমতো হবিগঞ্জের মানুষের সাথে এমনভাবে মিশে গিয়েছিলেন যে, সবাই তাকে হবিগঞ্জের বাসিন্দা বলেই মনে করতেন। তার আসল নাম তজম্মুল আলী। সবার কাছে তিনি টি আলী স্যার নামেই পরিচিত ছিলেন। ২০০০ সালে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনে টি আলী স্যার ইন্তেকাল করেন।
প্রসঙ্গত, সাবেক অর্থমন্ত্রী মরহুম শাহ এএমএস কিবরিয়া, প্রয়াত সুবীর নন্দী, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জালাল আহমেদ, বিশিষ্ট শিশু বিশেষজ্ঞ  ড. এখলাছুর রহমান ,নাট্যব্যক্তিত্ব ঝুনা চৌধুরীসহ অসংখ্য খ্যাতনামা ব্যক্তিত্ব টি আলী স্যারের ছাত্র।

গুণী এই শিক্ষকের বাড়ী সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার জলঢুপ গ্রামে।  তার নিজ গ্রামের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ জলঢুপ উচ্চ বিদ্যালয়ে ২০০১ সালে তার পরিবার টি আলী স্যার মেমোরিয়েল লাইব্রেরী প্রতিষ্ঠা করে দিয়েছেন।