মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
নিউ ইয়র্কে আব্দুস সাত্তার স্মরণে সার্বজনীন শোকসভা ও দোয়া মাহফিল  » «   বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট যুক্তরাজ্য শাখা গঠিত  » «   পঙ্কজ ভট্টাচার্য’র সাথে পীর হাবিব ফাউন্ডেশন ইউকে নেতৃবৃন্দের সাক্ষাত  » «   মুক্তিযুদ্ধের প্রবাসী সংগঠক মরহুম শামসুল আলম চৌধুরী স্মরণে শোকসভা ও মিলাদ মাহফিল  » «   আমিরাতে ঈদে মিলাদুন্নবীর আলোচনা ও দোয়া মাহফিল  » «   আলোকিত মানুষ প্রবীন শিক্ষক মো. সমছুল ইসলাম এর ২য় মৃত্যুবার্ষিকী সোমবার  » «   ঘূর্ণিঝড় বুলবুল : ১০ জন নিহত, অর্ধশত জেলে নিখোঁজ  » «   ইতালিস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে প্রেস কনফারেন্সঃ ইস্যুর আপেক্ষায় ১৭শ ২ টি পাসপোর্ট।  » «   মাদ্রিদে স্পেন বিএনপি‘র উদ্যোগে ৭ নভেম্বর পালিত  » «   বিয়ানীবাজারে প্রবাসী সাংবাদিক-লেখক-সংগঠক শরিফুল হক মনজু’র সাথে অন্তরঙ্গ আড্ডা  » «   শারজায় গণমাধ্যমকর্মী ও সুধী মহলের সাথে সিএজি মুসলিম চৌধুরী  » «   ব্লাক হিস্টোরি মান্থ উপলক্ষ্যে টাওয়ার হ্যামলেটস স্পীকারের ফান্ড রাইজিং  » «   বার্সেলোনায় দ্বিতীয় বার ‘হাসিনা: এ ডটার্স টেল’ তথ্য চিত্র প্রদর্শিত  » «   রোমের ফিডেন স্কুলে প্রবাসীদের ইতালীয়ান ভাষা শিক্ষার যাত্রা শুরু  » «   ওয়েজ আর্নার্স বোর্ড এর কার্ড প্রদান করলেন গ্রীসের রাষ্ট্রদূত  » «  

বিক্ষোভ-মিছিল-অগ্নিসংযোগ আর আন্দোলনে উত্তাল স্পেনের কাতালোনীয়া



স্পেনের আদালতে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাপন্থী নেতাদের কারাদণ্ড ঘোষণার প্রতিবাদে ফুঁসে উঠেছে অঞ্চলটির প্রধান শহর বার্সেলোনা। বুধবার বিক্ষোভকারীরা গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি পুলিশের ওপর পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে মারে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, দিনভর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের পর রাতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। আঞ্চলিক সরকারের নেতা কুইম তোরা বিক্ষোভকারীদের সহিংসতা থামানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

২০১৭ সালে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার দাবিতে গণভোট আয়োজনে ভূমিকার জন্য গত সোমবার (১৪ অক্টোবর) অঞ্চলটির ৯ স্বাধীনতাকামী নেতাকে কারাদণ্ড দেয় স্পেনের সুপ্রিম কোর্ট। আদেশে তাদের ৯ থেকে ১৩ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আদালতের রায়ের পরই রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ শুরু করে কাতালানরা। বার্সেলোনা ও সেখানকার কয়েকটি শহরে বিক্ষোভের সময় আহত হওয়া ৫২ জনকে চিকিৎসা দেওয়ার কথা জানিয়েছে জরুরি সেবা বিভাগ। বুধবার চারজনকে অজামিনযোগ্য ধারায় গ্রেফতার করা হয়েছে।

বুধবার পুলিশ জানিয়েছে, কর্মকর্তাদের লক্ষ্য করে বিক্ষোভকারীরা মলোটোভ ককটেল, পেট্রোল বোমা ও এসিড ছোঁড়া হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন কয়েকটি স্থানে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয়েছে। বুধবার সকালে বিক্ষোভকারীরা রাস্তা ও রেলপথ অবরোধ করে। আঞ্চলিক সরকারের নেতা কুইম তোরা জিরোনা শহরে একটি বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন। পরে তিনি বলেন, এই মিছিল আদালতের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানানোর সঠিক পথ।

সূর্যাস্তের সময় কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী বার্সেলোনার মধ্যাঞ্চলের একটি এভিনিউতে সমবেত হয়। তারা স্বাধীনতার পতাকা উড়িয়ে বিক্ষোভ করে। বিক্ষোভকারীদের একজন ১৮ বছর বয়সী ইসাক গ্রানা বলেন, ২০১২ সাল থেকে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ করে লক্ষ্যপূরণ না হওয়ায় বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন পাত্রে আগুন ধরিয়ে দিতে শুরু করে। তিনি বলেন, মানুষের মনোযোগ আকর্ষণের একমাত্র উপায় হলো সোরগোল সৃষ্টি করা। স্পেন যদি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হতো তাহলে ভোট চাওয়ার জন্য কাউকে কারাদণ্ড দেওয়া হতো না।

আঞ্চলিক সরকারের নেতা কুইম তোরার পূর্বসূরি চার্লস পুজদেমন ২০১৭ সালে স্বাধীনতার দাবিতে গণভোট আয়োজন করেন। স্পেনের শীর্ষ আদালতে নিষিদ্ধ ঘোষিত ওই গণভোট আয়োজনের পর থেকে ইউরোপীয় দেশগুলোসহ অন্যরা সেখানকার আন্দোলন পর্যবেক্ষণ করছে। এরই মধ্যে চার হাজারেরও বেশি কোম্পানি কাতালোনিয়ার বাইরে তাদের সদর দফতর সরিয়ে নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে কাতালান ব্যাংক কাইক্সা ব্যাংক ও ব্যাংকো সাবাডেল। দেশটির ভারপ্রাপ্ত অর্থনীতিমন্ত্রী নাদিয়া কালভিনো বলেছেন, কাতালোনিয়া’র স্বাধীনতা দাবির প্রভাব না থাকলে দেশের অর্থনীতির গতি আরও দ্রুত হতে পারতো।

বিক্ষোভের কারণে আগামী ২৬ অক্টোবর স্পেনের শীর্ষ ফুটবল লীগ লা লিগা বার্সেলোনা ও রিয়েল মাদ্রিদের নির্ধারিত ম্যাচটি মাদ্রিদের মাঠে সরিয়ে নিতে স্প্যানিশ ফুটবর ফেডারেশনকে অনুরোধ জানিয়েছে। বর্তমানে স্বেচ্ছা নির্বাসনে বেলজিয়ামে থাকা পুজদেমনকে ফিরিয়ে আনতে তৃতীয় বারের মতো প্রচেষ্টা চালাচ্ছে স্পেন। ব্রাসেলসের প্রসিকিউটর কার্যালয় বুধবার ওই আবেদন পাওয়ার কথা জানিয়েছে। তবে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে কয়েক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে।

দেশটির ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ বলেছেন, বিক্ষোভ ঠেকাতে সরকার কঠোর ও নিয়মতান্ত্রিকভাবে কাজ করবে। মাদ্রিদে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, কাতালান জনগণ ও সব স্প্যানিশ সমাজকে অবশ্যই জানতে হবে সরকার সব বিষয় বিবেচনা করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার সমন্বয়ে সরকার বিশেষ কমিশন গঠন করবে বলে জানান তিনি।