শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
কারী ইন্ড্রাস্টির সংকট মোকাবেলায় দরকার সমন্বিত উদ্যোগ  » «   বিবিসি প্রকাশ করেছে উইঘুর নির্যাতন নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ উদযাপন  » «   মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ আরও ২ দেশে: বেলজিয়ামে ২১ দিনের কোয়ারেন্টিন ঘোষণা  » «   শুধুই নারীদের পরিচালনায় প্রথম সৌদি আরবের আকাশে উড়ল ব্যতিক্রমী ফ্লাইট  » «   গোলাপগন্জে চেয়ারম্যান প্রার্থী এলিম চৌধুরী’র মতবিনিময়  » «   দুদকের মামলায় হাজী সেলিম কারাগারে  » «   নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও রাশিয়ার মুদ্রা রুবল’র উত্থান  » «   কারী শিল্পের সংকট মোকাবেলায় সিবিআই প্রেসিডেন্টের কাছে  বিসিএ’র পাঁচ দাবী উপস্থাপন  » «   গোলাপগঞ্জে ভোটার হাল নাগাদ শুরু  » «   বার্সেলোনায় মাদারীপুর সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী  » «   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রশংসায় স্পেনের প্রেসিডেন্ট  » «   আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর চিরবিদায়  » «   ইতালির জেনোভায়‌ প্রবাসীদের কনস্যুলেট সেবা প্রদান  » «   বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে‘র দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা ও সম্মেলন অনুষ্ঠিত  » «  
সাবস্ক্রাইব করুন
পেইজে লাইক দিন

মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে হত্যা, ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার



সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে মেয়েকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। বুধবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই ব্যক্তি মারা যান। দুপুরে উপজেলার পাটগ্রাম এলাকায় হামলার শিকার হন তিনি। পুলিশ অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে।

নিহত ব্যক্তির নাম আবদুর রউফ (৪৫)। গ্রেপ্তার হয়েছেন আমিনুল ইসলাম (২৮)। তিনি কাজিপুর পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। আমিনুলের দলীয় পরিচয় নিশ্চিত করেছেন, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা একরামুল হক। একরামুল জানিয়েছেন, তিনি জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (সদ্য সাবেক) থাকা অবস্থায় আমিনুলদের কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়। ওই পৌর কমিটি এখনো বলবৎ আছে।

কাজিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের স্নাতক প্রথম বর্ষের ছাত্রী সোনিয়া খাতুনকে ছাত্রলীগ নেতা আমিনুল প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন। সম্প্রতি সোনিয়ার বাবা আবদুর রউফ বিষয়টি আমিনুলের বাবা-মাকে জানান। এতে আমিনুল আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। বুধবার দুপুরের দিকে আবদুর রউফ বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় আমিনুল ও তাঁর সহযোগীরা তাঁকে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ফেলে রেখে চলে যান।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হামলার পরপরই স্থানীয়রা মুমূর্ষু অবস্থায় সোনিয়ার বাবাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পুলিশ জানিয়েছে, সেখানেই রাতে রউফের মৃত্যু হয়।

ওসি জানান, এই ঘটনায় আমিনুলসহ কয়েকজনকে আসামি করে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলা হয়েছে। কাজিপুর থানা-পুলিশ পাটগ্রাম বাজার থেকে আমিনুলকে গ্রেপ্তার করেছে। অন্য আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।


সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন