সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
https://blu-ray.world/ download movies
সর্বশেষ সংবাদ
প্রধানমন্ত্রীর সাথে আবরারের পরিবারের সদস্যরা  » «   প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র সরবরাহের কাজ শুরু হচ্ছে শিঘ্রই  » «   গ্রীসে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে মতবিনিময়  » «   আবরার হত্যায় ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের বিস্ময় ও দুঃখপ্রকাশ  » «   বুয়েট ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের কক্ষ সিলগালা  » «   মিলানে দূতাবাসের উদ্যোগে বাউল সংগীতের অনুষ্ঠান  » «   জন্মস্থান থেকে ‘রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ফাউন্ডেশনে’র যাত্রা শুরু  » «   নর্থ ওয়েষ্ট ইংল্যান্ডে শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন  » «   ঢাকায় কাব্যকলার আয়োজনে কেন্দ্রীয় পাঠক সমাবেশে কবিতা ও আড্ডা  » «   পিঠা মেলা সফল করতে লন্ডনে প্রস্তুতি সভা  » «   আমিরাতে কমলগঞ্জ প্রবাসী কল্যাণ সমিতির মতবিনিময়  » «   লন্ডনে বঙ্গবন্ধু কাপ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত  » «   সাবেক অতিরিক্ত সচিবকে জিএমবিএ’র উদ্যোগে সংবর্ধনা  » «   আবরার হত্যার আগে ম্যাসেঞ্জারে ছাত্রলীগ নেতার নির্দেশনা  » «   আওয়ামী লীগ সাউথ লন্ডন শাখার সম্মেলন অনুষ্ঠিত  » «  

‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ প্রতিযোগিতার এওয়ার্ড অনুষ্ঠান হলো টাওয়ার হ্যামলেটসে



‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ নামের লন্ডন ব্যাপি বার্ষিক বাগান প্রতিযোগিতার ২০১৯ এর আসর বসেছিলো এবার টাওয়ার হ্যামলেটসের মাইল এন্ড আর্টস প্যাভিলিয়নে। ২০ সেপ্টেম্বর মাইল এন্ড আর্টস প্যাভিলিয়নে লন্ডনের সকল বরা থেকে তিন শয়েরও বেশি সেরা হর্টিকালচারিস্ট বা উদ্যানপালক অংশ নিয়েছিলেন ‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ এওয়ার্ড অনুষ্ঠানে।
প্রাকৃতিক পরিবেশের উন্নয়নে এবং ফুলে পল্লবে লন্ডনকে উজ্জলতর করে রাখতে যে সকল ব্যক্তি ও কমিউনিটি গ্রুপ অবদান রেখে চলেছেন, তাদের কাজের স্বীকৃতি দিতে প্রতি বছর ‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ নামের এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র জন বিগস এ প্রসঙ্গে বলেন, এ বছরের ‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ এওয়ার্ড অনুষ্ঠান টাওয়ার হ্যামলেটসে আয়োজন করতে পেরে আমরা আনন্দিত এবং আমি সকল ফাইনালিস্টকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। লন্ডনের সেরা কিছু পার্ক ও উন্মুক্ত স্থান রয়েছে আমাদের এই বরায়। বন্যপ্রাণির সহজাত আশ্রয়স্থল গড়ে তুলতে আমাদের বাসিন্দা ও কমিউনিটি গ্রুপগুলো বৃক্ষ রোপন ও বাগান পরিচর্যা করে যে ভূমিকা রাখছেন, তাদের এই অবদান উদযাপনের সুযোগ হচ্ছে এই অনুষ্ঠান।

এবারের ‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ এওয়ার্ড বিতরণী অনুষ্ঠানে ৩ শতাধিক মানুষ উপস্থিত হয়ে সার্টিফিকেট ও ট্রফি গ্রহণ করেন। প্রতিযোগিতার ক্যাটাগরির মধ্যে ছিলো, পার্কস ও ওপেন স্পেস, বিজনেস ইম্প্রুভমেন্ট ডিস্ট্রিক্ট, টাউন সেন্টার, চার্চইয়ার্ডস এবং কমিউনিটি গ্রুপ ওয়ার্ক।

সেরা টাউন/সিটি সেন্টার হিসেবে স্বর্ণ পদক লাভ করেছে টাওয়ার হ্যামলেটস এবং ক্যানরি ওয়ার্ফ। বেস্ট সিটি ক্যাটাগরিতেও টাওয়ার হ্যামলেটস যৌথভাবে স্বর্ণ পদক লাভ করে। হ্যারিটেজ পার্ক/গার্ডেন অব দ্যা ইয়ার ক্যাটাগরিতে এবং লার্জ পার্ক অব দ্যা ইয়ার ক্যাটাগরিতে দু’টি স্বর্ণ পেয়েছে ভিক্টোরিয়া পার্ক। এছাড়া লার্জ সেমেট্রি ক্যাটাগরি এবং বায়োডাইভার্সিটি বা জীব বৈচিত্র্য ক্যাটাগরিতে টাওয়ার হ্যামলেটস সেমেট্রি পার্ক সোনা জিতেছে। স্মল পার্ক অব দ্যা ইয়ার ক্যাটাগরিতে স্বর্ন জিতেছে ট্রিনিটি স্কোয়ার গার্ডেন।

‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ এর বিদায়ি চেয়ারম্যান জেওফ হাইড বলেন, বিপুল সংখ্যক এন্ট্রি বা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সংখ্যা বৃদ্ধির ফলে ‘লন্ডন ইন্ ব্লুম’ আরো প্রাণবন্ত হয়েছে। তিনি তার দায়িত্ব পালনের সময়কালে যারা এই রাজধানীকে সবুজাভ করে তুলতে অবদান রেখে চলেছেন, তাদেরকে ধন্যবাদ জানান।